vitiligo

শ্বেতী রোগের সফল চিকিৎসা

শ্বেতী রোগ আক্রান্তদের মনের কষ্ট বুঝতে পেরে তাদের সহযোগিতায় আমাদের এ ছোট্ট নিবেদন। এই প্রবন্ধের শেষের দিকে আরো কিছু রোগের কারণ ও প্রতিকারের বর্ণনা দেয়া হয়েছে। এসকল রোগ থেকে আরোগ্য লাভের নানা পন্থা সম্পর্কে বর্ণনা রয়েছে। আপনারা এ রোগ থেকে মুক্ত হন এবং অপরকে এ রোগ থেকে মুক্তি পেতে সাহায্যের জন্য সংবাদটি শেয়ার করুন-এটাই আমাদের কামনা।

শ্বেতী রোগ কি?
মানুষের ত্বক, চুল ও চোখের রঙ নির্ধারন করে মেলানিন নামক উপাদান যা ত্বকের কোষে তৈরী হয়। যখন শরীরের কোন অংশের ত্বকের কোষগুলো ক্ষয়ে যায় বা মরে যায় তখন ঐ অংশ মেলানিনের অভাবে বিবর্ণ বা সাদা হয়ে যায়। একে শ্বেতী রোগ বলে। শ্বেতী রোগ নিয়ে সাধারণ মানুষের মনে বিভিন্ন কুসংষ্কার বা ভীতি রয়েছে। যদিও শ্বেতী কোন সংক্রামক বা প্রাণঘাতী রোগ নয়।

শ্বেতী রোগের প্রকারভেদঃসাধারণত দুই ধরণের শ্বেতী দেখা যায়-
১. এই ধরণের শ্বেতী শরীরের যেকোন একপাশের হাত, পা বা মুখ আক্রান্ত হয়।অল্প বয়সেই রোগের লক্ষণ দেখা দেয়।
২. এই ধরণের শ্বেতী পুরো শরীরেই ছড়িয়ে পড়ে।সাধারণত এই ধরণের শ্বেতী বেশী দেখা যায়। প্রথমে এটি হাত, পা বা মুখের সামান্য অংশে ছোট ছোট সাদা দাগ হিসাবে দেখা দেয় এবং ক্রমে এগুলো একত্রিত হয়ে বড় আকার ধারন করে এবং সারা শরীরে ছড়িয়ে পড়ে।

শ্বেতী রোগ কেন হয়ঃ এখনো পর্যন্ত বিজ্ঞানীরা শ্বেতীর সঠিক কারণ বের করতে পারেনি। তবে নিম্নোক্ত কারণে শ্বেতী রোগ হতে পারে, যেমনঃ
বংশগত কারণে,
কেউ কেউ জন্মগতভাবে এই রোগে আক্রান্ত হয়,
শরীরে মেলানিন উৎপাদনকারী কোষ ধ্বংসকারী পদার্থ তৈরী হওয়া,
অত্যাধিক মানসিক অবসাদ,
নির্দিষ্ট কিছু রাসায়নিক পদার্থ যেমন মনোইথাইলিন বেনজিন ইত্যাদির কারণেও শ্বেতী হতে পারে।

শ্বেতী রোগের লক্ষণসমূহঃ
মুখমণ্ডল, বাহু, হাত বা পায়ের চামড়া বিবর্ণ হয়ে যাওয়া (অধিক প্রচলিত),
শরীরে সাদা বা হালকা ফুস্কুরি দেখা দেওয়া,
শরীরের অন্যান্য অংশ যেমনঃ বগল, কুচকি, যৌনাঙ্গ বা পায়ুপথ ইত্যাদির চামড়া বিবর্ণ হয়ে যাওয়া,
মুখগহবর ও নাকের ভেতরে বিবর্ণ রঙের কোষ দেখা যাওয়া,
চুল, ভ্র, চোখের পাপড়ি বা মুখের লোম সাদা হয়ে আসা

শ্বেতী রোগের চিকিৎসা অধিকাংশ ক্ষেত্রেই দীর্ঘমেয়াদী চিকিৎসার প্রয়োজন হতে পারে। শ্বেতী রোগের চিকিৎসায় সাধারণত নিম্নলিখিত পদ্ধতিগুলো ব্যবহৃত হয়ে থাকেঃ-

শ্বেতী রোগের চিকিৎসার ক্ষেত্রে সাধারণত কোনো ল্যাবরেটরি পরীক্ষা ছাড়া শুধু রোগের লক্ষণ দেখেই এই রোগ নির্ণয় করা হয়। কিন্তু বেশির ভাগ ক্ষেত্রেই দীর্ঘমেয়াদি চিকিৎসা প্রয়োজন। চিকিৎসকের পরামর্শ অনুযায়ী ঔষধ ব্যবহার করা হয়।Night King Sexual Animation

প্রয়োজনে রোগীর বয়স, রোগের সময়কাল, রোগের স্থান এবং ব্যাপ্তিভেদে চিকিৎসা পদ্ধতি বাছাই করা হয়। সেক্ষেত্রে এ রোগ হলে প্রাথমিক অবস্থায়  Recap ক্রিম, Vitiligo Natural, Vitiligo Natural Harbs, Vitiligo Remover সহ চিকিৎসকের নির্দেশনামতে আরো কিছু ঔষধ কয়েক মাস এমনকি প্রয়োজনে কয়েক বছর ধরে নিয়মিতভাবে সেবন করতে হয় এ চিকিৎসায় ধীরে ধীরে শ্বেতী থেকে আরোগ্য লাভ করা সম্ভব এবং সারাদেশে প্রায় এক হাজারেরও বেশি রোগী আরোগ্য লাভ করেছেন।

এ চিকিৎসার ক্ষেত্রে আপনি নিজে সরাসরি গিয়ে ঔষধ গ্রহণ করতে পারলে তা হবে পারফেক্ট। তবে যদি কোনো কারণে তা সম্ভব না হয় তবে বাংলাদেশের যে কোনো জেলায় কুরিয়ার সার্ভিসের মাধ্যমেও দু’ থেকে তিন দিনের মধ্যেই ঔষধ গ্রহণ করতে পারবেন।

প্রবন্ধের শুরুতে হাকীম মিজানুর রহমান-এর সাথে যোগাযোগের নাম্বার দেয়া আছে। তাঁর সাথে যোগাযোগ করে ঔষধ গ্রহণ করতে পারেন।

রোগীর অবস্থা শুনে ও দেখে সারাদেশের যে কোনো জেলায় বিশ্বস্ততার সাথে কুরিয়ার সার্ভিসে ঔষধ পাঠানো হয়।

 ঔষধ পেতে যোগাযোগ করুন :

(শতভাগ বিশ্বস্ত ও প্রতারণামুক্ত অনলাইন স্বাস্থ্যসেবা প্রতিষ্ঠান)

ইবনে সিনা হেলথ কেয়ার

হাজীগঞ্জ, চাঁদপুর।

যোগাযোগ করুন : (সকাল ১০টা থেকে রাত ০৮ টা (নামাজের সময় ব্যতীত)

01960-288007

01762-240650

01834-880825

01777-988889 (Imo/whats-app)

শ্বেতী রোগ, যৌন রোগ, ডায়াবেটিস,অশ্ব (গেজ, পাইলস, ফিস্টুলা),ব্লকেজ, শ্বেতপ্রদর, রক্তপ্রদর , আলসার, টিউমার, বাত-ব্যথা, দাউদ-একজিমা ইত্যাদি রোগের চিকিৎসা দেয়া হয়।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

আরও পড়ুন : 

নিয়মিত আপডেট পেতে আমাদের পেইজে লাইক দিন এবং শেয়ার করুন …

2,933 জন পড়েছেন
শেয়ার করুন

Leave a Reply