ছাত্রীকে নিয়ে উধাও শিক্ষক! এলাকায় উত্তেজনা

0
513
ছবি: প্রতীকী

০২ মে, ২০১৮ ১০:৫৫:০০

ছাত্রীকে নিয়ে পালিয়ে গেছেন স্কুল শিক্ষক। রাজশাহীর বাঘা উপজেলায় এ ঘটনা ঘটে। ঘটনার পর থেকে এলাকার লোকজন উত্তেজিত হয়ে উঠেছেন। অভিযুক্ত শিক্ষক জাকির হোসেন বাঘা উপজেলার মীরগঞ্জ মুছার ঈদগাঁবাজার বালিকা বিদ্যালয়ের ইংরেজি শিক্ষক।

নারী-পুরুষের যে কোনোা যৌন সমস্যার (যৌন দুর্বলতা, সন্তান না হওয়া, সহবাসে ব্যর্থতা) সমাধানে ‘নাইট কিং’ ও ‘নাইট কিং গোল্ড’ কার্যকরী। বাংলাদেশের যে কোনো জেলা বা উপজেলায় কুরিয়ার সার্ভিসযোগে ‘নাইট কিং’ পেতে যোগাযোগ করুন : হাকীম মিজানুর রহমান, ইবনে সিনা হেলথ কেয়ার, যোগাযোগ করুন : (সকাল ১০টা থেকে রাত ০৮ টা (নামাজের সময় ব্যতীত) 01777988889 অথবা
01762240650
মূল্য : নাইট কিং- ১০৫০/- টাকা, নাইট কিং গোল্ড ১৩৫০/- টাকা।
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

এ বিষয়ে উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকেও শাস্তিমূলক ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলে নিশ্চিত করেছেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা কর্মকর্তা শাহিন রেজা।

সূত্র জানায়, বাঘা উপজেলার মীরগঞ্জ মুছার ঈদগাঁবাজার বালিকা বিদ্যালয়ের দশম শ্রেণির এক ছাত্রীকে নিয়ে শিক্ষক জাকির হোসেন সোমবার প্রেমের টানে পালিয়ে যান। এ ঘটনা পরের দিন জানাজানি হলে এলাকার লোকজন উত্তেজিত হয়ে ওঠে। ঘটনাটি নিয়ন্ত্রণ করার জন্য স্কুল পরিচালনা কমিটির পক্ষ থেকে শিক্ষক জাকির হোসেনকে সাময়িক বহিষ্কার করা হয়।

বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আবদুল মালেক বলেন, ঘটনাটি জানার পর তাৎক্ষণিকভাবে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শাহিন রেজা ও শিক্ষা কর্মকর্তা আরিফুর রহমানকে জানানো হয়। এ ছাড়া বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির পক্ষ থেকে তাকে বহিষ্কার করা হয়েছে।

এ ছাড়া সাত দিনের মধ্যে জবাব দেয়ার জন্য কারণ দর্শানোর নোটিশও দেয়া হয়েছে। সঠিক উত্তর না দিতে পারলে স্থায়ীভাবে তাকে বহিষ্কার করা হবে।

বাঘা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শাহিন রেজা বলেন, বিষয়টি স্কুলের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে। উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে আইনিভাবে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

তবে এ বিষয়ে শিক্ষক জাকির হোসেনের মুঠোফোনে যোগাযোগের চেষ্টা করেও তাকে পাওয়া যায়নি।

বিডি২৪লাইভ/এইচকে

ফেসবুকে মন্তব্য করুন
494 জন পড়েছেন