‘ড্রাগ খাইয়ে এজেন্সির ম্যানেজার আমাকে দিনের পর দিন ধরে ধর্ষণ করে’

0
86

বিনোদন ডেস্ক :
বিশ্বব্যাপী সাধারণ নারী থেকে শুরু করে মডেল, অভিনেত্রী সব শ্রেণীর নারীরাই বিভিন্ন সময় যৌন হয়রানির শিকার হয়ে আসছে। নারী ও শিশু পাচার বাড়ছে।

গেল বছর এমনই এক ঘটনার শিকার হয়েছিলেন বিখ্যাত এইরিকা ক্রেহম। মডেলিং করতে গিয়ে তিনিও পাচার হয়ে গিয়েছিলেন।

নারী-পুরুষের যে কোনোা যৌন সমস্যার (যৌন দুর্বলতা, সন্তান না হওয়া, সহবাসে ব্যর্থতা, দ্রুত বীর্যপাত) সমাধানে ‘নাইট কিং’ ও ‘নাইট কিং গোল্ড’ কার্যকরী। বাংলাদেশের যে কোনো জেলা বা উপজেলায় কুরিয়ার সার্ভিসযোগে ‘নাইট কিং’ পেতে যোগাযোগ করুন : হাকীম মিজানুর রহমান, ইবনে সিনা হেলথ কেয়ার, যোগাযোগ করুন : (সকাল ১০টা থেকে রাত ০৮ টা (নামাজের সময় ব্যতীত) +88 01762240650, +88 01777988889
এছাড়াও শ্বেতী রোগ, ডায়াবেটিস, অশ্ব (গেজ, পাইলস, ফিস্টুলা), হার্টের ব্লকেজ, শ্বেতপ্রদর, রক্তপ্রদর ইত্যাদি রোগের চিকিৎসা দেয়া হয়।
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

২০ বছরের ক্রেহম নিউ ইয়র্কের ব্যস্ত রাস্তা থেকেই পাচার হয়েছিলেন। স্বপ্নের মডেলিং জগতে সুনাম কামাতে এসে যৌনদাসীতে পরিণত হয়ে ছিলেন তিনি। দিনের পর দিন তাকে নির্মম ভাবে ধর্ষণ করেছে এক এজেন্সির ম্যানেজার।

সম্প্রতি গণমাধ্যমের কাছে ভয়ঙ্কর সেই অভিজ্ঞতার কথা বলেছেন ক্রেহম। তিনি বলেন, ‘ একটি এজেন্সি নিজেদের ম্যানেজমেন্ট এজেন্সি বলে পরিচয় দিয়েছিল। একটি দু’কামরার ঘরে প্রায় ২১ জন মিলে থাকতাম আমরা।’

একটি নাইট ক্লাবে কাজের অভিজ্ঞতা শেয়ার করে ক্রেহম বলেন, ‘আমাকে ড্রাগ খাইয়ে এজেন্সির এক ম্যানেজার ধর্ষণ করে।

ক্লাবের পিছনের দিকে একটি রেস্টরুমে এই ঘটনা ঘটানো হয়। পালিয়ে যাওয়ার পর রাস্তা থেকে আবার আমাকে একজন তুলে নিয়ে যায়।

ফের ড্রাগ দেওয়া হয়। পরের দিন সকালে নিজেকে বিছানার বাঁধা অবস্থায় পাই।’

তার মডেলিং করাটা ভয়াবহ হয়ে গিয়েছিল।বহুদিন এভাবে চলার পর জায়গা পরিবর্তন হতে হতে একদিন পালাতে সক্ষম হয়েছিলেন তিনি।

প্রকাশিত : ১০ মে ২০১৯ খ্রিস্টাব্দ, শুক্রবার : ০২:০৮ পিএম

চাঁদপুর রিপোর্ট-এমআরআর

ফেসবুকে মন্তব্য করুন
391 জন পড়েছেন