চান্দিনায় ক্রসফায়ারের হুমকি দিয়েছে পুলিশ কনস্টেবল

0
22

চান্দিনায় ক্রসফায়ারের হুমকি দিয়েছে পুলিশ কনস্টেবল
মাদক বিরোধী ‘বন্দুকযুদ্ধকে’ প্রশ্নবিদ্ধ করছে চান্দিনা থানা পুলিশ

টি. আর. দিদার, চান্দিনা (কুমিল্লা) থেকে :
কুমিল্লার চান্দিনায় সাধারণ মানুষকে প্রকাশ্যে ‘ক্রস ফায়ারের’ হুমকি দিয়ে চলমান মাদক বিরোধী ‘বন্দুক যুদ্ধকে’ প্রশ্নবিদ্ধ করেছে চান্দিনা থানা পুলিশ। এ ঘটনায় এলাকায় মিশ্র প্রতিক্রিয়া দেখা দিয়েছে।

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

শুক্রবার (২৫ মে) রাত প্রায় ১১টা ছুঁই ছুঁই। সিএনজি অটোরিক্সা যোগে বাজার থেকে বাড়ি ফিরছিলেন চান্দিনা বাজারের ৪ জন ব্যবসায়ী। সিএনজি অটোরিক্সাটি চান্দিনা উপজেলা সদরের খেলার মাঠ সংলগ্ন স্থানে পৌঁছলে তাদের পথরোধ করে সাদা পোশাকে থাকা পুলিশের এক কনস্টেবল। তার পিছনে পুলিশের পিকআপ ভ্যান। শুরু করেন সিএনজিতে তল্লাসী। এসময় সিএনজির যাত্রীরা বলেন, ‘স্যার সমস্যা কি?’ উত্তরে পুলিশ কনস্টেবল বলেন- ‘কোন কথা নাই, মাদক পাইলেই ক্রস ফায়ার’। কোন কারণ ছাড়াই পুলিশ কনস্টেবলের মুখে এমন কথা শুনে হতভম্ব ও ভিত হয়ে পড়েন যাত্রীরা।

এসময় পোশাক পরিহিত অপর এক পুলিশ কনস্টেবল এসে ওই সাদা পোশাকের কনস্টেবলকে সিএনজির কাছ থেকে সরিয়ে নেন।

যাত্রীরা বলেন- তাহলে কি পুলিশ প্রকৃত মাদক ব্যবসায়ীদের মারছে না? ‘বন্দুক যুদ্ধের’ নামে সাধারণ মানুষকে ধরে ক্রস ফায়ার দেওয়া হচ্ছে ? অপর এক যাত্রী বলেন- ‘একজন পুলিশ কনস্টেবল-ই তো ফাঁস করে দিলো ‘বন্দুকযুদ্ধের’ প্রকৃত ঘটনা।’

খোঁজ নিয়ে জানা যায়- সাদা পোশাকের ওই পুলিশ কনস্টেবলের নাম রুবেল। তিনি চান্দিনা থানায় কর্মরত।

একজন পুলিশ কনস্টেবল প্রকাশ্যে ‘ক্রস ফায়ার’ দেওয়ার হুমকি দেওয়ার বিষয়টি সম্পর্কে জানতে চান্দিনা থানার অফিসার ইন-চার্জ (ওসি) মুহাম্মদ শামছুল ইসলাম এর সাথে যোগাযোগ করলে তিনি জানান, ‘আমার থানার কোন পুলিশ কনস্টেবল সিভিল পোশাকে বের হয়নি। এমনকি ক্রস ফায়ারের কথা বলেনি’।

কিন্তু ওই কনস্টেবল সাদা পোশাকেই ছিল এমনকি সাধারণ যাত্রীদের অহেতুক ক্রসফায়ারের হুমকি দিয়েছে এটা সত্য এমন কথা বলার সাথে সাথে ওসি সামছুল ইসলাম এই প্রতিবেদকের সাথে ক্ষিপ্ত হয়ে বলেন, আপনি এই বিষয়ে এতো বাড়াবাড়ি করছেন কেন?

এ বিষয়ে জানতে সহকারি পুলিশ সুপার (চান্দিনা-দাউদকান্দি সার্কেল) মো. মহিদুল ইসলাম জানান, বিষয়টি আমার জানা নেই। তবে এমন ঘটনা অপ্রত্যাশিত। তদন্ত সাপেক্ষে ব্যবস্থা নেবো।

ফেসবুকে মন্তব্য করুন
247 জন পড়েছেন