চাঁদপুরে কলেজ ছাত্রী ধর্ষণ, আটক ১

0
38

 

চাঁদপুরের শাহরাস্তিতে কলেজ ছাত্রী ধর্ষণ মামলায় রোমান হোসেন (২০) নামে এক যুবককে আটক করেছে পুলিশ। শুক্রবার বিকেলে পৌর শহরের ঠাকুর বাজার এলাকায় আটকের এ ঘটনা ঘটে।

নারী-পুরুষের যে কোনোা যৌন সমস্যার (যৌন দুর্বলতা, সন্তান না হওয়া, সহবাসে ব্যর্থতা, দ্রুত বীর্যপাত) সমাধানে ‘নাইট কিং’ ও ‘নাইট কিং গোল্ড’ কার্যকরী। বাংলাদেশের যে কোনো জেলা বা উপজেলায় কুরিয়ার সার্ভিসযোগে ‘নাইট কিং’ পেতে যোগাযোগ করুন : হাকীম মিজানুর রহমান, ইবনে সিনা হেলথ কেয়ার, যোগাযোগ করুন : (সকাল ১০টা থেকে রাত ০৮ টা (নামাজের সময় ব্যতীত) 01777988889 অথবা
01762240650
এছাড়াও শ্বেতী রোগ, ডায়াবেটিস, অশ্ব (গেজ, পাইলস, ফিস্টুলা), হার্টের ব্লকেজ, শ্বেতপ্রদর, রক্তপ্রদর ইত্যাদি রোগের চিকিৎসা দেয়া হয়।
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

ক্ষতিগ্রস্ত পরিবার ও থানা পুলিশ সূত্রে জানা যায়, উপজেলার টামটা উত্তর ইউপির তারালিয়া গ্রামের ইমান হোসেনের সদ্য কলেজ পড়ুয়া কন্যাকে (১৮) গত মঙ্গলবার মেহের ডিগ্রি কলেজ সম্মুখ থেকে পূর্ব পরিচিত দুই যুবক রোমান হোসেন ও সাদ্দাম হোসেন প্রলোভন দিয়ে তুলে নিয়ে যায়।

মঙ্গল ও বুধবার তারা তাকে স্থানীয় ঠাকুর বাজার এলাকায় একটি বিল্ডিংয়ের কক্ষে আটক রাখে। ওই সময় রোমান তাকে বিভিন্ন ভয়ভীতি ও বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে জোরপূর্বক ধর্ষণ করে।

বুধবার সকাল ১১টায় রোমান ওই কলেজ ছাত্রীকে টামটা এলাকায় তার নানার বাড়ির সামনে ফেলে রেখে যায়।

দুই দিন মেয়েকে পরিবারের লোকজন বিভিন্ন স্থানে খোঁজাখুঁজি করে। পরে তার নানার বাড়ি থেকে সংবাদ পেয়ে তাকে বাড়িতে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদে সে পরিবারের লোকদের ঘটনা অবহিত করে।

পরিবারের লোকজন স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান মোহাম্মদ ওমর ফারুক দর্জিকে অবহিত করে শাহরাস্তি মডেল থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। যার নং-২৪, তাং-২৪-০৫-২০১৮ইং। মামলার পর শাহরাস্তি থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) মোঃ নাসির উদ্দিন ঘটনায় জড়িত রোমান হোসেনকে আটক করে কোর্ট হাজতে প্রেরণ করেন।

উপ-পরিদর্শক (এসআই) মোঃ নাসির উদ্দিন জানান, ক্ষতিগ্রস্ত মেয়ের বাবা থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। মামলার পর আসামী রোমান হোসেনকে আটক করে কোর্টে প্রেরণ করা হয়েছে। মেয়েটিকে ডাক্তারী পরিক্ষার জন্য পাঠানো হয়েছে। রিপোর্ট পেলে তদন্ত সাপেক্ষে পরবর্তী ব্যবস্থা নেয়া হবে।

ফেসবুকে মন্তব্য করুন
265 জন পড়েছেন