‘‘আমি নদীতেও জায়গা পাই’’

মতলব দক্ষিণ প্রতিনিধি: ‘‘ আমি নদীতেও জায়গা পাই। ২২ শতাংশ জমি কিনেছি যার মধ্যে ৯ শতাংশ দখলে আছি, বাকিটা নদীতে আছে।’’ প্রকাশ্যেই বালু ব্যবসার নামে নদী ভরাট করার বিষয়ে জানতে চাইলে এমনই উত্তর দেন মতলব ফেরী ঘাটের দক্ষিণ পাশে বসবাসকারী লোকমান হোসেন।

সরেজমিনে মতলব ফেরী ঘাটের একাধিক ব্যবসায়ীদের সাথে কথা বলে জানা যায়, লোকমান হোসেন বালু ব্যবসার নামে একটু একটু করে নদী ভরাট করে চলছে। এভাবে গত কয়েক বছরে সে আনুমানিক ২০ শতাংশ জায়গা ভরাট করে দখল করেছে এবং তা আজও চালিয়ে যাচ্ছে। উপজেলা প্রশাসনের চোখের সামনে এভাবে নদী ভরাট করায় সাধারণ মানুষের মনে প্রশ্ন ‘লোকমানের খুটির জোর কোথায়’। এদিকে প্রকাশ্যে নদী ভরাট করার বিষয়ে গত ২১ জুন নদীরক্ষা কমিশনের নিকট একটি লিখিত অভিযোগ করেন মতলব পৌরসভার কলাদী এলাকার মাসুম নামে এক ব্যক্তি।

স্থানীয় একাধিক সচেতন ব্যক্তি জানান, নদীর ¯্রােতের কারণে অনেকের ভিটা-মাটি বিলিন হয়েছে। কিন্তু তাদের নামে ব্রিটিশ আমলে রেকর্ড আছে। তাই বলে কী নদীতে বিলিন হওয়া জায়গা ভরাট করে দখল করা যাবে?

নদীরক্ষা কমিশনের কাছে অভিযোগকারী মাসুম বলেন, সে (লোকমান) যদি এভাবে নদী ভরাট করে দখল নিয়ে পার পেয়ে যায় তাহলে অন্যরাও তার মত নদী ভরাট করতে উৎসাহিত হবে। এ বিষয়ে সংশ্লিষ্ট কতৃপক্ষের সু-দৃষ্টি কামনা করনে তিনি।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো.শাহিদুল ইসলাম বলেন, বিষয়টি জেনে তার বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

390 জন পড়েছেন

Recommended For You

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

অনুমতি ব্যতীত এই সাইটের কোনো সংবাদ, ছবি অন্য কোনো মাধ্যমে প্রকাশ আইনত দণ্ডনীয়