স্বামী-স্ত্রী কীভাবে তালাক দিতে পারেন

0
306

প্রকাশিত : ২৭ জুন ২০১৮ খ্রি.

অ্যাডভোকেট শাহজাহান শাওন, চট্টগ্রাম জজ কোর্ট, মুঠোফোন : 01746-576682

http://picasion.com/

তালাক সংক্রান্ত আলোচনা
স্বামী-স্ত্রী কীভাবে তালাক দিতে পারেন, স্বামীর পক্ষ থেকে তালাক, স্ত্রীর পক্ষ থেকে তালাক, হিল্লা বিয়ে, চেয়ারম্যানের দায়িত্ব, কাজীর দায়িত্ব মুসলিম পারিবারিক আইনে তালাক সম্পর্কে আলোচনা করা হবে।

মুসলিম আইনে তালাকের অধিকার
মুসলিম আইন অনুযায়ী বিয়ে একটি চুক্তি। এই চুক্তি যে কোন পক্ষ রদ বা ভঙ্গ করতে পারেন। বিয়ের মাধ্যমে স্থাপিত সম্পর্ককে আইনগত উপায়ে ভেঙ্গে দেয়াকে তালাক বা বিয়ে বিচ্ছেদ বলে। স্বামী বা স্ত্রীর যে কোন একজনের ইচ্ছাতেও (শর্তাধীন) বিয়ে বিচ্ছেদ ঘটতে পারে।

প্রশ্ন : তালাকের ক্ষেত্রে স্বামী/স্ত্রীর অধিকার কি সমান ?
উত্তর : বিয়ে বিচ্ছেদ ঘটাতে স্বামী-স্ত্রীর অধিকার সমান নয়। এক্ষেত্রে স্বামীর ক্ষমতা বা অধিকারই বেশি।

প্রশ্ন : স্বামী বা স্ত্রী কিভাবে তালাক দিতে পারে ?
উত্তর : স্বামী-স্ত্রী নিম্নলিখিত উপায়ে তালাক দিতে পারেন:

স্বামী কর্তৃক তালাক (স্বামী আইনের নিয়ম মেনে যে কোন সময় স্ত্রীকে তালাক দিতে পারেন।)স্ত্রী কর্তৃক তালাক (স্বামী যদি স্ত্রীকে তালাক প্রদানের ক্ষমতা দিয়ে থাকেন অর্থাৎ তালাক-ই-তৌফিজের মাধ্যমে স্ত্রী কর্তৃক তালাক)পারষ্পরিক সম্মতির ভিত্তিতে তালাক (খুলা বা মুবারত পদ্ধতিতে তালাক)আদালতের মাধ্যমে তালাক।
প্রশ্ন : স্বামী কিভাবে স্ত্রীকে তালাক দিতে পারেন ?

 নারী-পুরুষের যে কোনোা যৌন সমস্যার (যৌন দুর্বলতা, সন্তান না হওয়া, সহবাসে ব্যর্থতা, দ্রুত বীর্যপাত) সমাধানে ‘নাইট কিং’ ও ‘নাইট কিং গোল্ড’ কার্যকরী। বাংলাদেশের যে কোনো জেলা বা উপজেলায় কুরিয়ার সার্ভিসযোগে ‘নাইট কিং’ পেতে যোগাযোগ করুন : হাকীম মিজানুর রহমান, ইবনে সিনা হেলথ কেয়ার, যোগাযোগ করুন : (সকাল ১০টা থেকে রাত ০৮ টা (নামাজের সময় ব্যতীত) +88 01742057854, +88 01762240650, +88 01777988889 এছাড়াও শ্বেতী রোগ, ডায়াবেটিস, অশ্ব (গেজ, পাইলস, ফিস্টুলা), হার্টের ব্লকেজ, শ্বেতপ্রদর, রক্তপ্রদর ইত্যাদি রোগের চিকিৎসা দেয়া হয়।

উত্তর : একজন মুসলিম পূর্ণ বয়স্ক সুস্থ মস্তিস্কের পুরুষ যে কোন সময় স্ত্রীকে তালাক দিতে পারেন। কিন্তু সে মুখে বা লিখে যেভাবে তালাক দিক না কেন দেশের প্রচলিত আইন অনুযায়ী তালাক সাথে সাথে কার্যকর হবে না।

প্রশ্ন: স্ত্রী কি স্বামীকে তালাক দিতে পারে ?
উত্তর : একজন স্ত্র্রী যখন ইচ্ছা তখন স্বামীকে তালাক দিতে পারেন না। মুসলিম আইনে স্বামীকে তালাক দেয়ার ক্ষেত্রে স্ত্রী সীমিত অধিকার ভোগ করেন। নিম্নলিখিত যে কোন উপায়ে একজন স্ত্রী স্বামীকে তালাক দিতে পারেন:

ক. স্ত্রী আদালতের মাধ্যমে বিচ্ছেদ ঘটাতে পারে

খ. তালাক-ই-তৌফিজ-এর মাধ্যমে বিচ্ছেদ ঘটাতে পারে

গ. খুলা’র মাধ্যমে বিচ্ছেদ ঘটাতে পারে, এছাড়া

ঘ. স্বামী-স্ত্রী দুজনই মুবারতের মাধ্যমে বিচ্ছেদ ঘটাতে পারে।
প্রশ্ন: হিল্লা বিয়ে কি ?

উত্তর : প্রাচীন সমাজে স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে তালাক হয়ে গেলে তারা আবার বিয়ে করতে চাইলে মধ্যবর্তীসময়ে স্ত্রীকে আরেকটি বিয়ে করতে হত। এই দ্বিতীয় বিয়ের ব্যাক্তি (স্বামী) স্ত্রীকে তালাক দিলে বা মারা গেলে স্ত্রী পুনরায় প্রথম স্বামীকে বিয়ে করতে পারত। এই মধ্যবর্তীকালীন বিয়েকে ‘হিল্লা’ বিয়ে বলে। তবে বর্তমানে হিল্লা বিয়েকে বাংলাদেশের প্রচলিত আইনে নিষিদ্ধ করা হয়েছে।

প্রশ্ন : বিয়ে-বিচ্ছেদ বা তালাকের ক্ষেত্রে সিটি কর্পোরেশন এর মেয়র, পৌরসভা এর মেয়র এবং চেয়ারম্যানের কি কোন দায়িত্ব আছে ?
উত্তর : বিয়ে-বিচ্ছেদ বা তালাকের ক্ষেত্রে সিটি কর্পোরেশন এর মেয়র, পৌরসভা এর মেয়র এবং চেয়ারম্যান উভয় পক্ষকে ডেকে শালিসের ব্যবস্থা করতে পারেন।

প্রশ্ন : এক্ষেত্রে কাজী কি দায়িত্ব পালন করতে পারেন ?
উত্তর : কাজীর দায়িত্বগুলো হলো :
জন্ম ও বিবাহের মতো তালাকও রেজিষ্ট্রি করতে হয়।নিকাহ নিবন্ধক কাজী তার এখতিয়ারভূক্ত এলাকার মধ্যে আবেদনপত্রের ভিত্তিতে তালাক রেজিষ্ট্রি করবেন।তালাক রেজিস্ট্রির জন্য নিকাহ নিবন্ধক ২০০ টাকা ফি নিবেন (এই ফি সময়ে সময়ে সরকারী প্রজ্ঞাপন দ্বারা পরিবর্তন করা হয়)।যে ব্যক্তি তালাক কার্যকর করেছে সে রেজিস্ট্রির জন্য আবেদন করবে এবং ফি দেবে।উক্ত দুই পক্ষের মধ্যে সত্যি তালাক কার্যকর হয়েছিল কিনা তা নিকাহ নিবন্ধক পরীক্ষা করে দেখবেন।

ফেসবুকে মন্তব্য করুন
835 জন পড়েছেন
http://picasion.com/