হাইমচরে তুচ্ছ ঘটনায় কন্ট্রাক্টর নুরু নিহত

সাহেদ হোসেন দিপু :
হাইমচরে তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে সৃষ্ঠ পারিবারিক কলহে প্রতিপক্ষের দল বেধে কুপিয়ে যখম হওয়া হাইমচরের ১ম শ্রেনীর পুরনো ঠিকাদার নুরুল ইসলাম গাজি ( নুরু কন্টাক্টার) (৭০) ঢাকা মেডিকেলে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ৪দিন পরে আজ ১০ জুন রবিবার সকাল ৯টায় ইন্তেকাল করেছেন ইন্নালিলাøহি…..রাজিউন।

নারী-পুরুষের যে কোনোা যৌন সমস্যার (যৌন দুর্বলতা, সন্তান না হওয়া, সহবাসে ব্যর্থতা, দ্রুত বীর্যপাত) সমাধানে ‘নাইট কিং’ ও ‘নাইট কিং গোল্ড’ কার্যকরী। বাংলাদেশের যে কোনো জেলা বা উপজেলায় কুরিয়ার সার্ভিসযোগে ‘নাইট কিং’ পেতে যোগাযোগ করুন : হাকীম মিজানুর রহমান, ইবনে সিনা হেলথ কেয়ার, যোগাযোগ করুন : (সকাল ১০টা থেকে রাত ০৮ টা (নামাজের সময় ব্যতীত) +88 01742057854, +88 01762240650, +88 01777988889
এছাড়াও শ্বেতী রোগ, ডায়াবেটিস, অশ্ব (গেজ, পাইলস, ফিস্টুলা), হার্টের ব্লকেজ, শ্বেতপ্রদর, রক্তপ্রদর ইত্যাদি রোগের চিকিৎসা দেয়া হয়।

নুরু কন্টাক্টার এর মৃত্যুর সংবাদ হাইমচরে ছড়িয়ে পড়লে তার পরিবারের শোকের ছায়া নেমে আসলেও হামলা ও জখমকারির আতœীয়রা ঐ বাড়িতে দেশীয় অস্ত্র নিয়ে মহড়া দেয়। খবর পেয়ে পুলিশ হামলাকারিদের ঘরথেকে দেশীয় অস্ত্র উদ্ধার করেছে। পরিস্থিতি থমথমে থাকায় ঐ বাড়িতে পুলিশ মোতায়েন রয়েছে।

ঘটনায় হাইমচর থানায় দায়েরকৃত এজহার ও প্রত্যক্ষ দর্শী সূত্র জানায় গত ৬ জুন বুধবার বেলা ১১টায় উপজেলার আলগী উত্তর ইউনিয়নের মহজমপুর গ্রামে নুরুল ইসলাম গাজি (নুরু কন্টাক্টার) এর বাড়িতে একই বংশের ফারুক গাজি পরিবারের সাথে তাল গাছের তালের কচি শাষ বিক্রিকে কেন্দ্র করে উভয় পরিবারের মধ্যে কথা কাটাকাটি হয়।

কথা কাটাটির একপর্যায়ে ফারুক গাজি, সোহাগ গাজি, সুমন গাজি, মানিক গাজি, সিরাজ গাজি, আবুল বাশার গাজি গংরা দা’ ছুরি ও দেশীয় অস্ত্র নিয়ে নুরুল ইসলাম গাজির ঘরে হামলা করে তাকে উপর্যপুরি কুপিয়ে রক্তাক্ত যখম করে। হামলা ও কুপিয়ে যখমের সংবাদ পেয়ে নুরু কন্টাক্টার এর পুত্র সুজন গাজি তাকে উদ্ধার করে প্রথমে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসলে অবস্থার অবনতি হওয়ায় দ্রুত তাকে জেলা সদর হাসপাতালে প্রেরন করলে কর্তব্যরত চিকিৎসক রোগীর অবস্থা আশংকাজনক হওয়ায় ঐ দিনই ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরন করেন। ঢাকা মেডিকেল কলেজে বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকগন নুরু কন্টাক্টারকে গভীর পর্যাবেক্ষনে চিকিৎসা দিয়ে আসছিলেন। চিকিৎসাধীন অবস্থায় আজ রবিবার তিনি মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়েন।

হামলা ও যখমের ঘটনায় ঐদিন নুরু কন্টাক্টারের পুত্র সুজন গাজি বাদী হয়ে হামলা ও জখমকারি ফারুক গাজি গংদের বিবাদী করে হাইমচর থানায় মামলা দায়ের করেন। যখমের ঘটনায় দায়েরকৃত মামলায় আসামীরা পলাতক থাকলেও একটি অশুভ মহলের প্ররোচনায় উপজেলা সদর সংলগ্ন স্থানীয় দাঙ্গাবাজ প্রকৃতির তাদের নিকট আতœীয় স্বজনরা ঘটনা ভিন্ন খাতে প্রবাহিত করার জন্য সন্ত্রাসী বাহিনী দিয়ে গাজি বাড়ি ও এলাকায় মহড়াসহ মামলা প্রত্যাহারের হুমকি ধমকি দিচ্ছে বলে অভিযোগ রয়েছে।

হামলায় জখমে নিহত নুরুল ইসলাম গাজি ওরপে নুরু কন্টাক্টার এর পুত্র মামলার বাদী গাজি সুজন অভিযোগ করেন তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে বুধবার ফারুক গাজি তার পুত্র, ভাইসহ আতœীয় স্বজনরা ধারালো অস্ত্র দিয়ে আমার বাবাকে কুপিয়ে জখম করে, আশংকাজনক অবস্থায় ৪দিন চিকিৎসাধীন থাকা অবস্থায় আজ ঢাকা মেডিকেলে আমার বাবা মৃত্যুবরন করেন। আমি বাবারসাথে চিকিৎসাধীন অবস্থায় থাকাকালিন সময়ে হামলাকারিদের আতœীয় সন্ত্রাসী জাকির সরদার সহ দাঙ্গাবাজ লোকরা আমার বাড়িতে মহরা দিচ্ছে এবং মোবাইল ফোনে আমাকে প্রান নাশের হুমকি দিচ্ছে। এমনকি আজ আমার বাবার মৃত্যুর সংবাদ পেয়ে যখন আতœীয় স্বজনরা কান্নাকাটি করছে ঠিক সে সময় ফারুক গাজির আতœীয় পরিচয়দান কারিরা আজও দা’ ছেনি নিয়ে আমাদের উপর চড়াও হয় যা এলাকাবাসী দেখেছে। পুলিশ তাদের কাছ থেকে আজও দেশীয় অস্ত্র উদ্ধার করেছে।

হাইমচর থানা অফিসার ইনচার্জ রনোজিত রায় বলেন, হামলায় জখম হওয়া ব্যক্তি নিহত হয়েছেন বলে আমরা জেনেছি, এবং ঐ বাড়িতে উত্তেজনা সৃষ্টি হলে আমি নিজে ঘটনাস্থলে এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রন করেছি। আসামীদের ঘর থেকে আজ একটি দেশীয় অস্ত্র উদ্ধার করা হয়েছে। অপ্রিতিকর ঘটনা এড়াতে এলাকায় পুলিশ মোতায়েন রয়েছে। ঘটনায় অভিযুক্ত আসামীদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

747 জন পড়েছেন

Recommended For You

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

অনুমতি ব্যতীত এই সাইটের কোনো সংবাদ, ছবি অন্য কোনো মাধ্যমে প্রকাশ আইনত দণ্ডনীয়