পঞ্চগড়ে প্রধান শিক্ষক কতৃক ছাত্রী শ্লীলতাহানীর অভিযোগে থানায় মামলা

0
29

এন এ রবিউল হাসান লিটন, পঞ্চগড় প্রতিনিধিঃ

পঞ্চগড়ের দেবীগঞ্জ উপজেলার টেপ্রীগঞ্জ ইউনিয়নে প্রধান শিক্ষক কতৃক ৫ম শ্রেণীর এক ছাত্রী শ্লীলতাহানীর অভিযোগে দেবীগঞ্জ থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে।

নারী-পুরুষের যে কোনোা যৌন সমস্যার (যৌন দুর্বলতা, সন্তান না হওয়া, সহবাসে ব্যর্থতা, দ্রুত বীর্যপাত) সমাধানে ‘নাইট কিং’ ও ‘নাইট কিং গোল্ড’ কার্যকরী। বাংলাদেশের যে কোনো জেলা বা উপজেলায় কুরিয়ার সার্ভিসযোগে ‘নাইট কিং’ পেতে যোগাযোগ করুন : হাকীম মিজানুর রহমান, ইবনে সিনা হেলথ কেয়ার, যোগাযোগ করুন : (সকাল ১০টা থেকে রাত ০৮ টা (নামাজের সময় ব্যতীত) 01777988889 অথবা
01762240650
এছাড়াও শ্বেতী রোগ, ডায়াবেটিস, অশ্ব (গেজ, পাইলস, ফিস্টুলা), হার্টের ব্লকেজ, শ্বেতপ্রদর, রক্তপ্রদর ইত্যাদি রোগের চিকিৎসা দেয়া হয়।
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

ঘটনায় প্রকাশ, দেবীগঞ্জ উপজেলার টেপরীগঞ্জ ইউনিয়নের চতুরাডাঙ্গি কালিদহ পাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ছাত্র ছাত্রীদের ৩০ মে বুধবার বিশেষ ক্লাস চলা কালে প্রধান শিক্ষক মোজাকখারুল ইসলাম বিদ্যালয়ের ৫ম শ্রেণীর ছাত্রীকে পাশের কক্ষে নিয়ে জোর পুর্বক শ্লীলতা হানি ঘটায়, সে সময় ছাত্রী চিৎকার করলে এ+ ও বৃত্তি পাইয়ে দিতে চায় ঐ শিক্ষক। কোনো মতে ছাত্রী শিক্ষকের কক্ষ থেকে বের হয়ে বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের এবং পরে বাবা-মাকে ঘটনার বিষয় জানায়।

ঘটনার দিন রাতে স্থানীয় ইউপি সদস্যের স্বামী এ শামসুল আলম মিলন সহ কিছু ব্যক্তি গ্রাম্য শালিসে শিক্ষক মোজাকখারুল ইসলামকে ২ লক্ষ ২৫ হাজার টাকা জরিমানা করে। যা মেয়ে পক্ষ মেনে নেয়নি। এ নিয়ে এলাকায় ক্ষোভ সৃষ্টি হলে উপজেলা নির্বাহী অফিসার,উপজেলা শিক্ষা অফিসার ও দেবীগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ পুলিশ ফোর্স সহ শ্লীলতাহানির শিকার ছাত্রীসহ তার মা বাবাকে উদ্ধার করে দেবীগঞ্জ থানায় নিয়ে যায়।

প্রধান শিক্ষক মোজাখারুল ইসলামের বাড়ী ভাউলাগঞ্জ ভূজারী পাড়ায়। সে ব্যক্তি হিসেবে লম্পট প্রকৃতির মেয়েদের দিকে খারাপ নজরে দেখতো, পূর্বে আরো এরকম ঘটনা ঘটিয়েছে বলে স্থানিয়রা জানিয়েছে।

এলাকা বাসীর অবিলম্বে শ্লীলতাহানির অভিযুক্ত প্রধান শিক্ষককে চাকুরী থেকে বহিস্কার এবং গ্রেফতার করে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবী জানিয়েছে। এ ব্যাপারে দেবীগঞ্জ উপজেলা শিক্ষা অফিসার ঘটনার বিষয়টি নিশ্চিত করেন। দেবীগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ আমিনুল ইসলাম বলেন, থানা নির্বাহী অফিসারের হস্ত ক্ষেপে শ্লীলতাহানির শিকার ছাত্রীকে উদ্ধার করা হয়েছে, এবং থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে।

ফেসবুকে মন্তব্য করুন
314 জন পড়েছেন