বর্ষা এলেই হাঁটু জল থাকে

0
28

মতলব পৌরসভার মোবারকর্দী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে বর্ষা এলেই হাঁটু জল থাকে

ফজলে রাব্বী ইয়ামিন:

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

চাঁদপুরের মতলব পৌরসভার মোবারকর্দী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের মাঠটি বর্ষা এলেই হাঁটু জল থাকে। এতে বিদ্যালয়ে শিক্ষার্থীরা শরীরচর্চা ও খেলাধুলা থেকে বঞ্চিত। মূল সড়ক থেকে বিদ্যালয় যাওয়ার পথটিও সরু হওয়ায় চরম দুর্ভোগে পড়েন শিক্ষক ও শিক্ষার্থীরা।

জানা যায়, ১৯৯১ সালে স্থাপিত হওয়া বিদ্যালয়টি ২০১৩ সালে এসে সরকারিকরন হয়। বর্তমানে বিদ্যালয়ে ১শত ৬০জন শিক্ষার্থীর বিপরীতে শিক্ষক রয়েছেন পাঁচ জন। প্রতিষ্ঠা লগ্ন থেকেই বিদ্যালয়ের খেলার মাঠটি নিচু হওয়ায় বর্ষা মৌসুমে বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা খেলাধুলা থেকে বঞ্চিত হচ্ছে। হচ্ছে না জাতীয় সংগীত পরিবেশনও। দূর থেকে দেখে মনে হয় এটি মোবারকর্দী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের মাঠ নয় যেন কোন এক পুকুর। বিদ্যালয়ের চতুর্পাশে শুধু পানি আর পানি।

সরেজমিনে গিয়ে দেখা গেছে, বিদ্যালয়ে আসা শিক্ষার্থীরা খেলাধুলা করতে না পেরে বারান্দায় দাঁড়িয়ে রয়েছে। পঞ্চম শ্রেণির একাধিক শিক্ষার্থীর সাথে আলাপ করলে তারা বলে,‘ এ সময় পানি এসে মাঠ তলিয়ে থাকে। তাই তারা পিটি ও খেলাধুলা করতে পারেনা।’ বিদ্যালয়ে উপস্থিত কয়েকজন অভিভাবক বলেন, ছেলে-মেয়েরা বিদ্যালয় এসে ছুটা-ছুটি করে অনেকে পানি পড়ে জামা-কাপড় নষ্ট করে কøাস না করেই বাড়িতে ফিরে যায়। বিদ্যালয়ের মাঠে আশপাশের নোংরা ও আবর্জনাসহ পানি প্রবেশ করায় মারাত্মক স্বাস্থ্য ঝুঁকিতে শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা।

বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো.আবু জাফর মোহাম্মদ আলী বলেন, প্রতিষ্ঠানটির উন্নয়ন করার জন্য নিরলসভাবে চেষ্টা অব্যাহত রয়েছে। তবে কর্তৃপক্ষ সুদৃষ্টি দিলে মাঠটির উন্নয়ন করা সম্ভব বলে জানান তিনি।

বিদ্যালয়ের সভাপতি কাজী মো.ইউসূফ বলেন, মাঠটি সংস্কার কাজ না হওয়ায় বর্ষাকালে হাঁটু পানিতে ডুবে যায় মাঠসহ বিদ্যালয়ের চতুর্পাশ। মাঠটি উচুঁ করার ব্যবস্থা করলে এই দুর্ভোগ থেকে পরিত্রাণ পাওয়া সম্ভব বলে জানান তিনি।

ফেসবুকে মন্তব্য করুন
678 জন পড়েছেন