হস্তমৈথুন দৃশ্য নিয়ে মুখ খুললেন কিয়ারা

0
3349

বিনোদন ডেস্ক
প্রযোজক করণ জোহরের ‘লাস্ট স্টোরিস’ এর প্রেক্ষাপট নিয়ে শুরু থেকেই চলছিল সমালোচনা।

কীভাবে প্রকাশ্যে ‘হস্তমৈথুনের’ দৃশ্যে অভিনয় করলেন কিয়ারা,তা নিয়েও শুরু হয়েছে কটূক্তি। শুরুতে এড়িয়ে গেলেও এবার বিতর্কিত দৃশ্য নিয়ে মুখ খুললেন অভিনেত্রী কিয়ারা আদবানি।

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

এক সাক্ষাৎকারের কিয়ারা বলেন, ‘সিনেমায় চুম্বনের দৃশ্য নিয়ে যেমন বিতর্ক ভাঙতে শুরু করেছে, ঠিক তেমনই ‘যৌনতা’ নিয়েও মানুষের সমালোচনা কাটতে শুরু হয়েছে। মানুষ এখন অনেক বেশি শিক্ষিত। তারা যৌনতা নিয়েও ট্যাবু ভাঙতে শুরু করেছে।

শুধু তাই নয়, ভালবাসার বহিঃপ্রকাশ হলো যৌনতা। তাই যৌনতা নিয়ে এত খুতখুতে ভাব থাকা উচিত নয় বলেও মন্তব্য করেন বলিউড অভিনেত্রী।

কিয়ারা আরও বলেন,‘লাস্ট স্টোরিস’-এর ‘হস্তমৈথুন’ দৃশ্যে অভিনয় করতে গিয়ে করণের টিপস মেনে চলেছেন তিনি। এই দৃশ্য দেখে যেন একদম সত্যি বলে মনে হয় পর্দায় সেই চেষ্টাই করতে হবে বলে জানিয়েছিলেন পরি

নারী-পুরুষের যে কোনোা যৌন সমস্যার (যৌন দুর্বলতা, সন্তান না হওয়া, সহবাসে ব্যর্থতা, দ্রুত বীর্যপাত) সমাধানে ‘নাইট কিং’ ও ‘নাইট কিং গোল্ড’ কার্যকরী। বাংলাদেশের যে কোনো জেলা বা উপজেলায় কুরিয়ার সার্ভিসযোগে ‘নাইট কিং’ পেতে যোগাযোগ করুন : হাকীম মিজানুর রহমান, ইবনে সিনা হেলথ কেয়ার, যোগাযোগ করুন : (সকাল ১০টা থেকে রাত ০৮ টা (নামাজের সময় ব্যতীত) +88 01742057854, +88 01762240650, +88 01777988889 এছাড়াও শ্বেতী রোগ, ডায়াবেটিস, অশ্ব (গেজ, পাইলস, ফিস্টুলা), হার্টের ব্লকেজ, শ্বেতপ্রদর, রক্তপ্রদর ইত্যাদি রোগের চিকিৎসা দেয়া হয়।

চালক। করণের নির্দেশ মেনেই শেষ পর্যন্ত ‘হস্তমৈথুন’ ও ‘চরম মুহূর্তের’ দৃশ্যে অভিনয় করেছেন বলে আরও জানান এই বলিউড অভিনেত্রী।

মহিলাদের হস্তমৈথুন নিয়ে বিস্ময়কর সাতটি তথ্য

হস্তমৈথুন শব্দ পড়েই নাক শিঁটকোন কিম্বা লজ্জায় মুখ লাল হয়ে যায় ৷ এরকম হওয়ার অবশ্য কিছু নেই ৷ ন্যাশানাল সার্ভে অফ সেক্সসুয়াল হেলথ অ্যান্ড বিহেভিয়ারের রিসার্চ অনুযায়ি প্রতিটা মানুষ জীবনে কখনও না কখনও হস্তমৈথুন করেছেন ৷

২৫ থেকে ২৯ বছরের ৭.৯ শতাংশ মহিলা সপ্তাহে একাধিকবার হস্তমৈথুন করেন৷

হস্তমৈথুনের একাধিক সুপ্রভাব রয়েছে জীবনে ৷ মহিলাদের মেনস্ট্রুয়েশনের সময় ক্র্যাম্প থেকে কোমরের যন্ত্রনা অনেকটা কম করে যদি হস্তমৈথুনে অভ্যস্ত হন মহিলা ৷

মহিলাদের সার্ভিকাল সংক্রমন নিয়ন্ত্রেণে রাখতে সাহায্য করে হস্তমৈথুন ৷ যেহেতু হস্তমৈথুনের সময় মহিলা যৌনাঙ্গ খুলে যায় ফলে বিভিন্ন ফ্লুইড চলাচল অনেক স্বচ্ছন্দ হয় ৷ যা শরীরের ওই অংশে জমা হওয়া অশুদ্ধ জিনিস বাইরে বার করে দিতে পারে

হস্তমৈথুন দারুণ স্ট্রেসবাস্টার ৷ যেহেতু এই সময়ে মহিলাদের শরীরে খুশি উৎপাদনকারী হরমোন এন্ডোরফিন, ডোপামিন, সেরোটোনিন, অক্সিটোসিন প্রচুর পরিমাণে বার হয় ৷ আর তাই মেজাজ যায় শুধরে ৷

হস্তমৈথুন মানুষের আত্মবিশ্বাস বারিয়ে তোলে ৷ যার জন্য যৌনমিলনের সময়েও আত্মবিশ্বাস পান মহিলারা ৷ যার ফলে সেক্স লাইফও মসৃণ হয় ৷

মেনোপজ মহিলাদের জীবনের একটি গুরুত্বপূর্ণ অধ্যায় ৷ এই সময়ে মহিলা যৌনাঙ্গে কিছু পরিবর্তন হয় ফলে যৌন মিলন বেশ কষ্টকর হতে পারে ৷ তবে যদি হস্তমৈথুন হয় তাহলে রক্ত সঞ্চালন সঠিক থাকে, সঠিক থাকে যৌনাঙ্গে ফ্লুইডের পরিমাণও৷

মেনোপজ মহিলাদের জীবনের একটি গুরুত্বপূর্ণ অধ্যায় ৷ এই সময়ে মহিলা যৌনাঙ্গে কিছু পরিবর্তন হয় ফলে যৌন মিলন বেশ কষ্টকর হতে পারে ৷ তবে যদি হস্তমৈথুন হয় তাহলে রক্ত সঞ্চালন সঠিক থাকে, সঠিক থাকে যৌনাঙ্গে ফ্লুইডের পরিমাণও৷

ঘুম ভালো হয় ৷ হস্মৈথুনে মানসিক তৃপ্তি পাওয়া যায় পাশাপাশি শারীরিকভাবে বিভিন্ন ক্রিয়াকলাপের জেরে ক্লান্তি আসে ফলে অনিদ্রাকে পার্মানেনটলি বাই বাই করে দেওয়া যায় ৷

রক্ত সঞ্চালন দ্রুত হয়, হার্ট রেট ভালো থাকে ৷ পাশাপাশ ইউটেরাস পেলভিক ফ্লোর থেকে ওপরে উঠে যায় ৷ এর ফলে কোমরের পেশি শক্তিশালী হয় ৷ শক্তিশালী হয় কোমর ৷

তবে অত্যধিক কিছুরই ভালো নয় ৷ তাই নিয়ম করে যদি হস্তমৈথুন করা হয় তাহলে মন শরীর দুটিই ঝরঝরে থাকে এবং সৌন্দর্য ধরে রাখতে সাহায্য করে ৷

হস্তমৈথুন সম্পর্কিত এমন ১৭টি বিষয়, যা হয়তো আপনি জানেন না

হার্ভার্ড মেডিক্যাল স্কুলের গবেষণা অনুযায়ী, ৫০ বছর বয়সের পর নিয়মিত হস্তমৈথুন করলে প্রস্টেট ক্যান্সারের আশঙ্কা কমে।হস্তমৈথুন মানুষের স্বাভাবিক প্রবৃত্তি। নারী-পুরুষ উভয়েই হস্তমৈথুন করে। আসুন দেখে নেওয়া যাক, হস্তমৈথুন সম্পর্কিত এমন ১৭টি বিষয়, যা হয়তো আপনি জানেন না। সন্ধান দিচ্ছেন ব্রিটিশ সেক্সোলজিস্ট জ্যাসন সেঞ্জ।

অল্প বয়সে হস্তমৈথুন করলে স্বপ্নদোষ থেকে মুক্তি পাওয়া যায়। ভুক্তভোগী মাত্রই জানে, স্বপ্নদোষ একটি বিব্রতকর পরিস্থিতি।

সিডনি বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষকরা জানাচ্ছেন, নিয়মিত হস্তমৈথুন করলে অনিদ্রা থেকে রেহাই পাওয়া যায়।

হস্তমৈথুনের সময়ে পেনিস শক্ত বা ধারালো বস্তুর সঙ্গে ঘষা উচিত নয়। এর ফলে রক্তপাত যেমন হতে পারে, তেমনই পেনিসের পেশি ক্ষতিগ্রস্ত হয়ে ধ্বজভঙ্গ হওয়ার আশঙ্কা থাকে।

ন্যাশনাল সার্ভে অফ সেক্সুয়াল হেলফ অ্যান্ড বিহেভিয়ার বলছে, ১৭ বছর বয়সে পা দেওয়ার আগেই ৮০ শতাংশ ছেলে হস্তমৈথুনের অভিজ্ঞতা সঞ্চয় করে ফেলে। মেয়েদের ক্ষেত্রে এই হার ৫৮ শতাংশ। ১৮ বছর পেরিয়ে এই হার হয় পুরুষদের ক্ষেত্রে ৯২ শতাংশ ও মেয়েদের ক্ষেত্রে ৬২ শতাংশ।

ইংল্যান্ডে মহারানি ভিক্টোরিয়ার আমলে হস্তমৈথুনকে রোগ হিসাবে চিহ্নিত করা হয়েছিল। পরে অবশ্য প্রমাণিত হয়, এটি আসলে একটি জৈবিক প্রবৃত্তি, রোগ নয়।

বিভিন্ন সমীক্ষার দাবি, ৭০ শতাংশ পুরুষ আছে, যারা বিয়ের পরও নিয়মিত হস্তমৈথুন করে।

কিনসি ইন্সটিটিউটের সমীক্ষা অনুযায়ী, ৩৮ শতাংশ মানুষ হস্তমৈথুনের আগে পর্নোগ্রাফি দেখে।

২৮ মে আন্তর্জাতিক হস্তমৈথুন দিবস পালিত হয়। আগে ৭ মে পালিত হত। আর মে মাস হল আন্তর্জাতিক হস্তমৈথুন মাস!

হস্তমৈথুনের সময় ৫৩ শতাংশ মেয়ে সেক্স টয় ব্যবহার করে।

প্ল্যানড পেরেন্টহুড জানাচ্ছে, মেয়েরা নিয়মিত হস্তমৈথুন করলে মাসিকের সময় যন্ত্রণার অনুভূতি তুলনামূলক কম হয়।

হস্তমৈথুনের সপক্ষে সওয়াল করায় ১৯৯৪ সালে আমেরিকার সার্জেন জেনারেল ডা. জয়সেলিন এলডার্সের চাকরি গিয়েছিল। কারণ, তিনি বলেছিলেন, আমেরিকার সব স্কুলে বাচ্চাদের হস্তমৈথুন করা শেখাতে হবে।

৪৬ শতাংশ মহিলা হস্তমৈথুন শুরুর তিন মিনিটে অর্গাজমে পৌঁছে যায়।

৯০ শতাংশ পুরুষ হস্তমৈথুনের সময় নিজের গার্লফ্রেন্ড বা বউয়ের কথা না ভেবে অন্য মেয়ের কথা চিন্তা করে। সেই মেয়ে রাস্তার কোনও অপরিচিত মেয়ে যেমন হতে পারে, তেমনই পাড়ার বউদি, বন্ধুর গার্লফ্রেন্ড হতে পারে।

মেয়েরা হস্তমৈথুনের সময় গাজর, কলা, ডিলডো ইত্যাদি ব্যবহার করতে পছন্দ করে।

বেশি হস্তমৈথুন করলে ধ্বজভঙ্গ হয় না কিংবা শুক্রাণুর গুণমান হ্রাস পায় না।

প্রতি বছর সারা পৃথিবীতে ৭০ লক্ষ ফ্লেশলাইট বিক্রি হয়। প্রসঙ্গত, ফ্লেশলাইট হল কৃত্রিম যোনি।

প্রকাশিত : ১৭ ডিসেম্বর ২০১৮ খ্রি. সোমবার

ফেসবুকে মন্তব্য করুন
1,512 জন পড়েছেন