law and order

ফরিদগঞ্জে নেশার টাকা না দেয়ায় মা ও বোনকে হত্যার চেষ্টা, থানায় মায়ের অভিযোগ

ফরিদগঞ্জে মাদকসেবী সন্তানের বিরুদ্ধে মায়ের অভিযোগ

ফরিদগঞ্জ প্রতিনিধি :
চাঁদপুরের ফরিদগঞ্জে আব্দুর রহমান নামে এক মাদকসেবী সন্তানের বিরুদ্ধে থানায় লিখিত অভিযোগ করেছেন গর্ভধারিনী মা। উপজেলার গুপ্টী ইউনিয়নের দত্রা গ্রামের দাইন ভূঁইয়া বাড়ীর আব্দুল মান্নান ভূঁইয়ার ছেলে আব্দুর রহমান।

শনিবার সকালে থানায় লিখিত অভিযোগের আলোকে জানা যায়, নিজ গর্ভজাত সন্তান মাদক সেবী আবদুর রহমান (৩৫) দীর্ঘ দিন থেকে নেশার টাকার জন্য পিতা ও মাতার উপর অমানুসিক নির্যাতন কওে আসছে। আবার কখনো পৈত্রিক সম্পত্তির মাটি বিক্রী করে দেয়া এবং বাড়ীর বাগানের গাছ পালা বিক্রী করে টাকা দেয়ার জন্য চাপ প্রয়োগ করেও আসছিল সে। এছাড়া অন্য মাদক সেবীদের নিয়ে বসত ঘরে দিনরাত আড্ডা জমিয়ে মাদক সেবন করে। তার এই সব অপকর্মে কেহ বাধা দিতে আসলে তাকেই তার হাতে লাঞ্চিত হতে হয়। পিতা আ: মান্নান সন্তানের এই সব অপকর্মে অসুস্থ্য হয়ে পড়েন। একপর্যায়ে সে তার পিতা-মাতাকে সমস্ত সম্পদ তার নামে লিখে দেওয়ার জন্যও হুমকি দেয়। এরই ধারাবাহিকতায় গত ১৪ আগস্ট নেশার টাকা না দেয়ায় মা ও ছোট বোনকে কিল ঘুষি মেরে গলা চেপে হত্যার চেষ্টা করে এবং ধারালো অস্ত্রদিয়ে হত্যা করার চেষ্টা করে। অনেক কস্টে মা ও ছোট বোন একটি কক্ষে দরজা বন্ধ করে আত্মগোপন করে রক্ষা পান। এ সময় মাদক সেবী আবদুর রহমান ঘরে আগুন লাগিয়ে দেয়ার চেষ্টাও করে। তার ছোট ভাই এতে বাঁধা দিলে তাকেও মারধর করে আহত করে।

একপর্যায়ে সন্তানের অত্যাচার সইতে না পেরে ও ভয়ে অসুস্থ্য স্বামীকে রেখে মা সাফিয়া বেগম পালিয়ে মেয়ের বাড়ীতে ঢাকায় চলে যান। সন্তানের এই সকল কর্মকান্ডে মা ও পরিবারের সকলের আতংকে দিন কাটছে। যে কোন সময় এই মাদক সেবী সন্তানের দ্বারা বড় ধরনের দূর্ঘটনার সম্ভাবনা বিরাজ করছে। তাই নিরুপায় হয়ে মাদক সেবাী সন্তানের বিরুদ্ধে থানায় লিখিত অভিযোগ করেন মা সাফিয়া বেগম।

আপডেট : বাংলাদেশ সময় ২৫ আগস্ট ২০১৮ শনিবার

চাঁদপুর রিপোর্ট : এমআরআর

নিয়মিত আপডেট পেতে আমাদের ফেইসবুক পেইজে লাইক দিন এবং শেয়ার করুন …

 

661 জন পড়েছেন
শেয়ার করুন

Leave a Reply