চাঁদপুরের হাইমচরে ৪র্থ শ্রেণির ছাত্রীর ওপর হামলা

0
22

আপডেট : ৭ আগস্ট ২০১৮ খ্রি. মঙ্গলবার , ১২:৩৪ পিএম

সাহেদ হোসেন দিপু, হাইমচর প্রতিনিধি :
চাঁদপুর জেলার হাইমচর উপজেলার ৫৭নং দক্ষিণ কমলাপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ৪র্থ শ্রেণির ছাত্রীর ওপর পাশ্ববর্তী মান্নান মাঝির হামলায় গুরুতর আহত হয়েছে।

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

আহত শিক্ষার্থীকে তার অভিভাবকরা স্থানীয় লোকজন উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসার জন্যে নিয়ে আসে। আহত শিক্ষার্থী বর্তমানে হাইমচর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিৎিসাধীন অবস্থায় রয়েছে। এ ঘটনাকে কেন্দ্র করে থানায় মামলার প্রস্তুতি চলছে।

গতকাল ৬ আগস্ট ২০১৮ খ্রি. সোমবার বিদ্যালয়ে পরীক্ষা চলাকালীন সময়ে ওই শিক্ষার্থী টিউবঅয়েল থেকে পানি পান করতে গেলে মান্নান পেছন থেকে তার ওপর হামলা চালায়।

ঘটনার বিবরণে জানা যায়, কমলাপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ৪র্থ শ্রেণির ছাত্রী কমলাপুর গ্রামের দেলোয়ার ঢালীর মেয়ে লাবনী আক্তার (১০) পানি পান করার উদ্দেশ্যে টিউবঅয়েলে গেলে তার উপর স্থানীয় মাদক সেবী মান্নান মাঝি পেছন থেকে তাকে আঘাত করে। এতে লাবনী চিৎকার দিলে বিদ্যালয়ের শিক্ষক শিক্ষার্থীরা এগিয়ে আসলে মান্নান ঘটনাস্থল থেকে পালিয়ে যায়।

এ ব্যাপারে আহত শিক্ষার্থী লাবনী জানান, আমি পানি খাওয়ার জন্য কলে গেলে মান্নান আমার উপর পেছন থেকে লাথি, কিল-ঘুষি মারতে থাকে। আমার চিৎকার শুনে লোকজন এগিয়ে আসলে মান্নান পালিয়ে যায়। আমাকে মারলে মাটিতে পড়ে যাই। আমাকে শিক্ষকরা তুলে নিয়ে বাড়িতে পাঠিয়ে দেন। বাড়িতে গিয়ে অসুস্থ হয়ে পড়লে আমার পরিবার আমাকে চিকিৎসার জন্য হাসপাতালে নিয়ে আসে।

বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক শিফরার কাছে জানতে চাইলে তিনি চাঁদপুর রিপোর্টকে জানান, আমি ঘটনাটি দেখিনি। তার চিৎকার শুনে এগিয়ে গেলে তার কাছ থেকে শুনতে পাই। স্থানীয় লোকজনদের ডেকে এনে মান্নানকে খোঁজার চেষ্টা করলে তাকে পাওয়া যায়নি। এ বিষয়ে ম্যানেজিং কমিটির সাথে সভা ডেকে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি আবদুস সালাম চাঁদপুর রিপোর্টকে জানান, এ ছেলেটি পূর্বেও এ বিদ্যালয়ের এক ছাত্রীর উপর হামলা চালিয়েছিল। আজ (গতকাল) আবার ৪র্থ শ্রেণির ছাত্রী লাবনীর উপর হামলা করার ঘটনা শুনতে পেরেছি। আর যাতে এ ধরনের ঘটনা না ঘটাতে পারে তার বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

উপজেলা সহকারি শিক্ষা অফিসার মো. আহসানুজ্জামান লুলু চাঁদপুর রিপোর্টকে জানান, বিষয়টি আমি জানতে পেরেছি। তাৎক্ষণিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষককে ওই শিক্ষার্থীর চিকিৎসার ব্যবস্থা গ্রহণ করার জন্য নির্দেশ প্রদান করেছি। বখাটে মান্নানের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহন করার জন্য নির্দেশনা দিয়েছি।

ফেসবুকে মন্তব্য করুন
230 জন পড়েছেন