‘বঙ্গবন্ধুর জন্ম না হলে আমরা স্বাধীন বাংলাদেশ পেতাম না’

0
4

১৫ আগস্ট জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে মিলাদ, মাহফিল ও আলোচনাসভা
‘বঙ্গবন্ধুর জন্ম না হলে আমরা স্বাধীন বাংলাদেশ পেতাম না’
……… সাবেক স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী মেজর (অব.) রফিকুল ইসলাম বীরউত্তম এমপি

মো. জামাল হোসেন :
‘জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্ম না হলে আজ আমরা স্বাধীন বাংলাদেশ পেতাম না। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ডাকে ১৯৭১ সালে ৭ই মার্চ ঢাকা রেসর্কোস ময়দানে বাংলার মানুষদেরকে একত্র করে যে ভাষণ দিয়েছিলেন এবং মুক্তিযুদ্ধে দেশের তরুণ নবীন-প্রবীণ যুদ্ধে অংশগ্রহণ করে বহু ত্যাগ তিতীক্ষার মাধ্যমে দীর্ঘ ৯ মাস যুদ্ধ করে এ দেশ স্বাধীন করেছে। কিন্তু পাক-হানাদার বাহিনী বঙ্গবন্ধুকে হত্যা করার সাহস পায়নি এবং দেশের কুচক্রী সন্ত্রাসী কতিপয় সেনাবাহিনীর হাতে নিমর্মভাবে সপরিবারে ১৯৭৫ সালে ১৫ আগস্ট কালোরাত্রিতে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে হত্যা করে। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে হত্যা করা না হলে, আজ আমরা বিশ্বে কাছে উন্নত স্বাধীন বাংলাদেশ হিসেবে পরিচিত থাকতো। ১৯৯৬ সালে আওয়ামী লীগ সরকার গঠন করে ইন্ডিমেন্টি অধ্যাদেশ বাতিল করে বঙ্গবন্ধু হত্যার বিচার জননেত্রী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সরকার রায় কার্যকারী করেছে।’

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

বঙ্গবন্ধু হত্যার যে সব ঘাতক এখনও পলাতক রয়েছে তাদেরকে দেশে এনে মৃত্যুর রায় কার্যকর করার জন্য প্রধানমন্ত্রীর প্রতি আহ্বান জানান সাবেক স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী মেজর (অব.) রফিকুল ইসলাম বীর উত্তম এমপি।

তিনি গতকাল ১৫ আগস্ট জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে মেহার ডিগ্রী কলেজ মিলনায়তনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ কথা বলেন।

তিনি আরও বলেন, তৎকালীন জিয়াউর রহমান ক্ষমতায় থাকাকালীন ইন্ডিমেন্টি অধ্যাদেশ জারি করে ঘাতকদেরকে বিশ্বের বিভিন্ন রাষ্ট্রে পাঠিয়ে দেয়। যার ফলে ঘাতকরা বিশ্বের বিভিন্ন রাষ্ট্রে পলাতক হিসেবে ঘুরে-বেড়াচ্ছে।

শাহরাস্তি পৌর মেয়র ও পৌর আওয়ামীলীগ সভাপতি হাজী আব্দুল লতিফ সভাপত্বিতে ও উপজেলা যুবলীগের আহ্বায়ক মঞ্জুরুল ইসলাম জুয়েলের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন শাহরাস্তি উপজেলা আওয়ামীলীগ সাধারণ সম্পাদক ও উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান প্রার্থী মোঃ কামরুজ্জামান মিন্টু, উপজেলা আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক চৌধুরী মোস্তফা কামাল, আওয়ামী লীগ নেতা ইঞ্জিঃ মুকবুল আহমেদ, আওয়ামীলীগ নেতা মোঃ দেলোয়ার হোসেন চৌধুরী, মেহার ডিগ্রী কলেজের অধ্যক্ষ মোঃ মিজানুর রহমান, পৌর আওয়ামীলীগ সিনিয়র যুগ্ম আহ্বায়ক আব্দুল্লাহ আল মামুন, সাবেক ছাত্রনেতা ও উপজেলা আওয়ামীলীগ নেতা মোঃ মুক্তার হোসেন মুক্তা ও উপজেলা আওয়ামীলীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক জেড.এম আনোয়ার।

অনুষ্ঠানে এ সময় উপস্থিত ছিলেন শাহরাস্তি পৌরসভার প্যানেল মেয়র মোঃ বাহার উদ্দিন বাহার, শাহ্রাস্তি প্রেসক্লাব সভাপতি কাজী হুমায়ন কবির চৌধুরী, চাঁদপুর জেলা সি.এনজি চালিত অটোরিক্সা মালিক সমিতির সভাপতি মোঃ আবুল হোসেন মজুমদার, টামটা উত্তর ইউপি চেয়ারম্যান ও উপজেলা যুবলীগ যুগ্ম আহ্বায়ক ওমর ফারুক দর্জি, পৌর আওয়ামীলীগের উন্নয়ন কমিটির আহ্বায়ক ও কাউন্সিলর নুর মোহাম্মদ মোল্লা, যুগ্ম আহ্বায়ক আব্দুল মান্নান বেপারী, কাউন্সিলর মোঃ শাহাবুদ্দিন ও প্রল্লাদ দে।

পৌর যুবলীগের আহ্বায়ক রেজাউল করিম বাবুল, যুগ্ম আহ্বায়ক ও কাউন্সিলর তুষার চৌধুরী, উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি মোঃ ইমদাদুল হক মিলন, সাধারণ সম্পাদক মোঃ সোহেল হোসেন, উপজেলা তাঁতীলীগের সভাপতি মোঃ মাসুদ আলম, সাধারণ সম্পাদক মোঃ মাইনুদ্দিন, পৌরসভার ১নং ওয়ার্ডের যুবলীগ যুগ্ম আহ্বায়ক মোঃ শাহজাহানসহ উপজেলার ১০টি ইউনিয়ন ও পৌরসভার আওয়ামীলীগ, যুবলীগ, ছাত্রলীগ, কৃষকলীগ, শ্রমিকলীগ, তাঁতীলীগসহ অঙ্গসংগঠনের নেতৃবৃন্দ।

অনুষ্ঠানে দোয়া ও মোনাজাত পরিচালনা করেন শাহরাস্তি উপজেলা হাসপাতাল সংলগ্ন শাহ মসজিদের ইমাম মাওঃ মোঃ ছলিম উল্লা সাহেব।

ফেসবুকে মন্তব্য করুন
285 জন পড়েছেন