চাঁদপুরের মতলবে শেষ মুহূর্তে জমে উঠেছে কোরবানির পশুরহাট

0
26

আপডেট : বাংলাদেশ সময় ১৯ আগস্ট ২০১৮ রোববার

মতলবে শেষ মুহূর্তে জমে উঠেছে কোরবানির পশুরহাট :
সন্তুষ্ট খামারি ও গরু ব্যবসায়ীরা

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

সফিকুল ইসলাম রানা :
শেষ মুহুর্তে জমে উঠেছে মতলব উত্তর উপজেলার কোরবানি পশুর হাট। প্রতিদিনই উপজেলার কয়েকটি বাজারে হাট বসছে। কোরবানির ঈদকে সামনে রেখে বিভিন্ন জাতের গরু-ছাগলের ব্যাপক সমাগম ঘটেছে। বিগত বছরের তুলনায় দাম বেশি হওয়ায় সন্তুষ্ট খামারি ও গরু ব্যবসায়ীরা।

মতলব উত্তর উপজেলার ছেংগারচর, কালিপুর, সঠাকি, পাঠানবাজার, বেলতলি, কালির বাজার, দুর্গাপুর, নন্দলালপুর, নিশ্চিন্তপুর, সুজাতপুর, সাহেব বাজার, আমতলা, গজরা, নতুনবাজার, আমিরাবাদ, এখলাশপুর, মোহনপুরসহ ছোট-বড় সকল বাজারেই বসছে কোরবানি গরুর হাট।

এবারের ঈদের হাট গুলোতে ছোট ও মাঝারি আকারের গরুর চাহিদা থাকলেও দাম ভালো নেই বড় গরুর। গরু-ছাগলের দাম গত বছরের তুলনায় বেশি লক্ষ করা যাচ্ছে। এতে সন্তষ্ট খামারী ও গরু ব্যবসায়ীরা। ক্রেতাদের সাধ ও সাধ্যের সমন্বয় ঘটিয়ে ধর্মীয় কাজটি সম্পন্ন করতে পশু কিনছেন। বেচাকেনাও হচ্ছে হরদমে। এবার বিদেশী গরু কম আসছে বাতাসে উড়ায় আগেভাগেই গরু কিনতে চাচ্ছেন ত্রেতারা। শেষ মুর্হুত পর্যন্ত গরু না পাওয়া আশংকায় আগভোগে কেনা।

এ উপজেলার বাজার গুলোতে ছাগলের পাশাপাশি ভেরা দেখা যায় না। হাটে সবচেয়ে বেশি আমদানি হয়েছে দেশী গরু। উপজেলায় গরুর খামার কম থাকায় চাহিদা পুরনে গরুর হাট গুলোতে এবার বিভিন্ন এলাকা থেকে বেশি গরু আসছে। বিদেশী গরু কিনতে আগ্রহী ত্রেতারা অগ্রহী কম।

হাটে গুলোতে কোরবানি গরু গুলো ৪০ থেকে শুরু করে আড়াই লক্ষ টাকা পর্যন্ত দাম চাইছেন বিক্রেতারা । এখন পর্যন্ত সর্বোচ্চ ১ লক্ষ ৮০ হাজার টাকার গরু বিক্রি হয়েছে। দেখা যায় ৬০ থেকে ৯০ হাজার টাকার গরু বেশি বিক্রি হচ্ছে।

গরু কিনতে আসা উপজেলার হানির পাড় গ্রামের লাল মিয়া জানান, গত বছরের তুলনায় এবার কোরবানি পশুর দাম কিছুটা চড়া।

গো-খামারি সফিকুল ইসলাম জানান, খৈল, ভূসি, খুদ, কুঁড়া, খড়সহ গো-খাদ্যের মূল্য বৃদ্ধি। খাবারের দাম বাড়লেও সে তুলনায় গরুর দাম বাড়েনি। খরচ তুলে লাভ অনেক কস্ট কর। লাভ মুখ দেখা অনেকটা অনিশ্চিত।

গরু ব্যবসায়ী আইয়ুব আলী জানান, এবার মোকামেই গরুর দাম বেশি। যা দিয়া কিন্না আনছি কিনুন্নারা তাও কয় না।

 

চাঁদপুর রিপোর্ট : এমআরআর

নিয়মিত আপডেট পেতে আমাদের ফেইসবুক পেইজে লাইক দিন এবং শেয়ার করুন …

 

ফেসবুকে মন্তব্য করুন
508 জন পড়েছেন