স্বামী-সন্তান দরকার নাই, আমি আরিফুলকে চাই

0
162

গাজীপুরের শ্রীপুর উপজেলার শৈলাট গ্রামে বিয়ের দাবিতে ২০ বছর বয়সী প্রেমিকের বাড়িতে অনশনে বসেছেন ৩৫ বছর বয়সী এক নারী।

নারী-পুরুষের যে কোনোা যৌন সমস্যার (যৌন দুর্বলতা, সন্তান না হওয়া, সহবাসে ব্যর্থতা, দ্রুত বীর্যপাত) সমাধানে ‘নাইট কিং’ ও ‘নাইট কিং গোল্ড’ কার্যকরী। বাংলাদেশের যে কোনো জেলা বা উপজেলায় কুরিয়ার সার্ভিসযোগে ‘নাইট কিং’ পেতে যোগাযোগ করুন : হাকীম মিজানুর রহমান, ইবনে সিনা হেলথ কেয়ার, যোগাযোগ করুন : (সকাল ১০টা থেকে রাত ০৮ টা (নামাজের সময় ব্যতীত) +88 01742057854, +88 01762240650, +88 01777988889
এছাড়াও শ্বেতী রোগ, ডায়াবেটিস, অশ্ব (গেজ, পাইলস, ফিস্টুলা), হার্টের ব্লকেজ, শ্বেতপ্রদর, রক্তপ্রদর ইত্যাদি রোগের চিকিৎসা দেয়া হয়।

স্বামী-সন্তান রেখে গত বুধবার বিকেল থেকে প্রেমিকের বাড়িতে অনশন শুরু করলে প্রেমিক পালিয়ে যায়। তিনদিন ধরে ওই নারী অনশন করলেও এ বিষয়ে কিছু জানে না বলে জানিয়েছে পুলিশ।

http://picasion.com/

অনশনে বসা জোসনা আকতার শৈলাট গ্রামের শ্যামল মিয়ার স্ত্রী এবং দুই সন্তানের জননী। ফেসবুকে পরিচয়ের সূত্র ধরে জোসনার সঙ্গে একই এলাকার ফারুক মন্ডলের ছেলে আরিফুল ইসলামের প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। দেড় বছর ধরে তাদের মধ্যে সম্পর্ক চলে আসছে।

অনশনকারী নারী ও প্রেমিকের পরিবার সূত্রে জানা যায়, গত বুধবার প্রেমিকের বাড়িতে এসে অবস্থান নেন জোসনা। আরিফুল ইসলামের সঙ্গে তার দীর্ঘদিনের প্রেমের সম্পর্ক জানিয়ে বিয়ের দাবি জানান তিনি। জোসনার অনশনের খবর পেয়ে প্রেমিক আরিফুল পালিয়ে যান।

এদিকে, জোসনার সংসারে স্বামী-সন্তান থাকায় এবং উভয়ের বয়সের কথা বিবেচনা করে তাকে বুঝিয়ে বাড়িতে পাঠানোর চেষ্টা করছেন স্থানীয়রা। কিন্তু বিয়ের দাবিতে অনড় জোসনা।

জোসনা আকতার বলেন, দেড় বছর ধরে আরিফুল ইসলামের সঙ্গে আমার প্রেমের সম্পর্ক। বিয়ের আশ্বাস দিয়ে একাধিকবার আমার সঙ্গে শারীরিক সম্পর্ক করেছে আরিফুল। স্বামী ও দুই কন্যাসন্তান রেখে প্রেমিক আরিফুলকে বিয়ের জন্যই আমি ঘর ছেড়েছি। আরিফুল আমাকে বিয়ে না করলে তার বাড়ি ছেড়ে যাব না। আমার স্বামী-সন্তান দরকার নেই, আমি শুধু আরিফুলকে চাই।

বিষয়টি নিশ্চিত করে গাজীপুর ইউনিয়ন পরিষদের ২নং ওয়ার্ডের সদস্য সাইফুল ইসলাম বাচ্চু বলেন, খবর পেয়ে আমি ওই বাড়ি যাই। ওই নারীকে অনেক বুঝিয়েছি। দুইজনের বয়স ও স্বামী-সন্তানের কথা বিবেচনা করে জোসনাকে তার বাড়ি যেতে বলেছি। কিন্তু কোনোভাবেই জোসনা রাজি হচ্ছে না। বিয়ের দাবিতে অনড় জোসনা।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে মাওনা পুলিশ ফাঁড়ির উপ-পরিদর্শক রফিকুল ইসলাম বলেন, এখন পর্যন্ত কেউ বিষয়টি পুলিশকে জানায়নি। অভিযোগ পেলে ব্যবস্থা নেবে পুলিশ।

আপডেট : বাংলাদেশ সময় ৩০ সেপ্টেম্বর ২০১৮  খ্রি. রোববার

চাঁদপুর রিপোর্ট : এমআরআর

নিয়মিত আপডেট পেতে আমাদের ফেইসবুক পেইজে লাইক দিন এবং শেয়ার করুন …

ফেসবুকে মন্তব্য করুন
747 জন পড়েছেন
http://picasion.com/