চাঁদপুরে চিকিৎসার নামে প্রতিবন্ধি শিশু ধর্ষণ, পল্লী চিকিৎসক অসীম কুমার আটক

মোঃ কামরুজ্জামান সেন্টু, বিশেষ প্রতিনিধি :
চাঁদপুরের শাহরাস্তি পৌরসভার সোনাপুর গ্রামের এক প্রতিবন্ধি শিশুকে (১৭) ধর্ষণের দায়ে অসীম কুমার মজুমদার (৪৫) নামের এক পল্লী চিকিৎসককে আটক করেছে পুলিশ। ২৮ অক্টোবর সন্ধ্যায় উপজেলার মেহের উত্তর ইউপির শাহরাস্তি বাজারস্থ চেম্বার হতে তাকে আটক করা হয়েছে।

শিশুটির মা মানছুরা বেগম ও মামলার এজাহার সূত্রে জানা যায়, ওই ইউপির ৯নং ওয়ার্ডের শেক্কুনি গ্রামের নেপাল চন্দ্র মজুমদারের পুত্র পল্লী চিকিৎসক অসীম প্রতিবন্ধি শিশুটিকে চিকিৎসার নামে গত ১৫ জুন ২০১৮ইং সকাল ৮টা হতে টানা ৭দিন একই সময়ে ধর্ষণ করে। পরবর্তীতে মেয়েটি গর্ভবতী হয়ে পড়লে পরিবারের লোকদের বিষয়টি নজরে আসে। শিশুটির মা মানছুরা বেগম তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করলে সে ওই পল্লী চিকিৎসক অসীম চিকিৎসার নামে তাকে একাধিকবার ধর্ষণের ঘটনাগুলো অবহিত করে। তার মা বিষয়টি অবগত হয়ে তার আত্মীয় স্বজনদের সাথে পরামর্শ করে। তাদের পরিবারটি অসহায় ও অস্বচ্ছল হওয়ায় গোপনে অন্যত্র একজন সেবিকার মাধ্যমে প্রতিবন্ধি শিশুটির সমস্যা সমাধান করে। পরে বিষয়টি নিয়ে পরিবারের লোকজন পল্লী চিকিৎসক অসীমকে জিজ্ঞাসাবাদ করতে গেলে সে বিষয়টি এড়িয়ে গিয়ে তার বিরুদ্ধে মিথ্যা অপবাদ দেয়া হচ্ছে বলে জানায়। এক পর্যায়ে ঘটনাটি চারদিকে চাঊর হলে মানছুরা বেগম বাদি হয়ে শাহরাস্তি মডেল থানায় পল্লী চিকিৎসক অসীম কুমার মজুমদারকে অভিযুক্ত করে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইন এবং ইচ্ছার বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ এনে একটি মামলা দায়ের করে। যার নং-১৮, তাং-২৮/১০/১৮ইং। ওই মামলার প্রেক্ষিতে গতকাল রোববার সন্ধ্যায় থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোঃ শাহ আলমের নির্দেশনায় উপ-পরিদর্শক (এসআই) মোঃ নজরুল ইসলাম, সহকারী উপ-পরিদর্শক (এএসআই) অর্জুণ চন্দ্র রায় সঙ্গীয় ফোর্স অভিযুক্ত অসীমকে আটক করে থানায় নিয়ে আসে।

মানছুরা বেগম আরো জানান, বিগত ৪ মাস পূর্বে ওই পল্লী চিকিৎসকের সাথে আমাদের বাড়ির পাশ^বর্তি রাস্তায় দেখা হয়। আমার মেয়ে একজন বুদ্ধিপ্রতিবন্ধি। অসীম ডাক্তার চিকিৎসার পাশাপাশি কবিরাজিও করেন বলে জানান। তিনি আমার মেয়ের চিকিৎসার মাধ্যমে ভাল করার কথা বলে তার চেম্বার যেতে বলে। পরবর্তীতে ৭দিন তার চেম্বারে আমার মেয়েকে নিয়ে যাই। আমাকে চেম্বারের সামনে বসিয়ে রেখে মেয়েকে নিয়ে ভিতরে ঝাড়-ফুঁক করার নামে প্রতিদিন এক ঘন্টা চিকিৎসা দেন। বেশ ক’দিন পর মেয়ের শারিরিক সমস্যা দেখা দেয়ায় তার কাছ থেকে দেয়া তথ্যে জানতে পারি চিকিৎসার নামে অসীম ডাক্তার আমার মেয়েকে বেশ ক’বার ধর্ষণ করেছেন।

শাহরাস্তি থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোঃ শাহ আলম জানান, অভিযুক্ত অসীম কুমারকে আটক করা হয়েছে। তার বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে। ভিকটিমের ডাক্তারি পরীক্ষার ব্যবস্থা নেয়া হবে।

আপডেট : বাংলাদেশ সময় : ১০:৫৮ এএম, ২৯ অক্টোবর ২০১৮ খ্রি.সোমবার

চাঁদপুর রিপোর্ট : এমআরআর

নিয়মিত আপডেট পেতে আমাদের ফেইসবুক পেইজে লাইক দিন এবং শেয়ার করুন …

 

691 জন পড়েছেন

Recommended For You

অনুমতি ব্যতীত এই সাইটের কোনো সংবাদ, ছবি অন্য কোনো মাধ্যমে প্রকাশ আইনত দণ্ডনীয়