শিশুটির ওপর বর্বর নির্যাতন চালাতেন অভিনেত্রী শাহেনী

0
36

ফেনীতে প্রিয়াঙ্কা আক্তার নামে ৫ বছরের এক শিশুকে বর্বর নির্যাতনের অভিযোগে অভিনেত্রী শাহানা আক্তার শাহেনীকে আটক করেছে পুলিশ।

নারী-পুরুষের যে কোনোা যৌন সমস্যার (যৌন দুর্বলতা, সন্তান না হওয়া, সহবাসে ব্যর্থতা, দ্রুত বীর্যপাত) সমাধানে ‘নাইট কিং’ ও ‘নাইট কিং গোল্ড’ কার্যকরী। বাংলাদেশের যে কোনো জেলা বা উপজেলায় কুরিয়ার সার্ভিসযোগে ‘নাইট কিং’ পেতে যোগাযোগ করুন : হাকীম মিজানুর রহমান, ইবনে সিনা হেলথ কেয়ার, যোগাযোগ করুন : (সকাল ১০টা থেকে রাত ০৮ টা (নামাজের সময় ব্যতীত) +88 01777988889
এছাড়াও শ্বেতী রোগ, ডায়াবেটিস, অশ্ব (গেজ, পাইলস, ফিস্টুলা), হার্টের ব্লকেজ, শ্বেতপ্রদর, রক্তপ্রদর ইত্যাদি রোগের চিকিৎসা দেয়া হয়।

মঙ্গলবার রাতে ফেনী সদর উপজেলার কয়েকটি স্থানে অভিযান চালিয়ে তাকে আটক করা হয়।

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানায়, পিতা-মাতাহীন প্রিয়াঙ্কা আক্তারকে পালক মেয়ে হিসেবে নিজের কাছে রাখেন এক সময়ের বাংলা সিনেমার অভিনেত্রী শাহানা আক্তার শাহেনী। শাহেনী ঢাকায় অবস্থান করলেও নিয়মিত যাতায়াত করতেন।

কিছুদিন আগে প্রিয়াঙ্কাসহ উপজেলার শর্শদি ইউনিয়নের গজারিয়া কান্দি গ্রামের নিজ বাড়িতে আসেন শাহেনী। পালক মেয়ে বললেও শাহেনী প্রিয়াঙ্কাকে দিয়ে ঘরের সব কাজ করাতেন বলে স্থানীয়রা জানান।

প্রতিবেশী জোহরা আক্তার জানান, মঙ্গলবার বিকেলে শাহেনীর বাড়িতে কান্নার শব্দ শুনে স্বামীকে নিয়ে তিনি সেখানে যান। ক্ষত-বিক্ষত প্রিয়াঙ্কাকে উদ্ধার করে তারা প্রথমে স্থানীয় স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ও পরে আধুনিক ফেনী সদর হাসপাতালে ভর্তি করান।

প্রিয়াঙ্কার বরাত দিয়ে তিনি আরো জানান, সোমবার রাতে শাহেনী লাঠি দিয়ে পেটানোর পর তার শরীর ঝলসে দেয়। পরে তাকে আটকে রেখে বেরিয়ে যায়। এভাবে প্রায়ই তার ওপর নির্যাতন করতো বলে জানায় শিশুটি।

ফেনী সদর হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার (আরএমও) নাজমুল হাসান বলেন, শিশুটির শারীরিক অবস্থা ভালো না। শরীরের বিভিন্ন জায়গা ঝলসে যাওয়ায় ওর কিডনি ঝুঁকিতে রয়েছে। উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকা অথবা চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজে নেয়া দরকার।

পুলিশ সুপার এসএম জাহাঙ্গীর আলম সরকার শাহেনীকে আটকের সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, পরবর্তীতে বিস্তারিত জানানো হবে।

আপডেট : বাংলাদেশ সময় : ১১:৪৪ এএম, ২৪ অক্টোবর ২০১৮ খ্রি.বুধবার

চাঁদপুর রিপোর্ট : এমআরআর

নিয়মিত আপডেট পেতে আমাদের ফেইসবুক পেইজে লাইক দিন এবং শেয়ার করুন …

 

ফেসবুকে মন্তব্য করুন
322 জন পড়েছেন