চাঁদপুরের শাহরাস্তিতে দুর্বৃত্তদের অত্যাচারে অতিষ্ঠ একটি পরিবার

শাহরাস্তি ব্যুারো :
চাঁদপুর জেলার শাহরাস্তিতে দূর্বৃত্তদের অত্যাচারে অতিষ্ঠ একটি পরিবার জীবনযাপন করছে। উপজেলার রায়শ্রী দক্ষিণ ইউনিয়নের নাহারা গ্রামের আবদুল মমিন চেয়ারম্যানের জামাইর বাড়িতে এ ঘটানাটি ঘটে।

ভুক্তভোগী ফটিক খিরা সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষিকা রৌশনারা আক্তার জানায়, “আমার ২ ছেলে ১ মেয়ে, স্বামী- মোঃ আমির হোসেন (সৌদি প্রবাসী)। বর্তমানে আমার স্বামী বাড়িতে না থাকায় এলাকার কিছু খারাপ প্রকৃতির লোক আমার বাড়িতে দীর্ঘদিন যাবৎ বিভিন্ন ভাবে এবং বিভিন্ন কায়দায় আমার উপর অত্যাচার করে আসছে। যেমন আমি যখন স্কুলে দায়িত্বরত অবস্থায় থাকি এবং রাতের বেলায় ঘুমন্ত অবস্থায় থাকি তখন ওই ব্যাক্তিরা আমার বাড়িতে এসে বিভিন্ন গাছপালা কেটে ফেলে। বসত ঘরের আশেপাশে বৈদ্যুতিক লাইট ভেঙ্গে চুরমার করে দেয়। সেপ্টি টাংকি ভেঙ্গে ফেলে। আলাদা শৌচাগারের দরজা লক ভেঙ্গে ফেলে, এছাড়া ও বাড়ির আঙ্গিনায় ছোট ছোট শাকসবজির গাছ বিষাক্ত ঔষধ দিয়ে গাছ মেরে ফেলে এবং গত ঈদুল-আযহার কোরবানির গরু গোয়াল ঘরে থাকা অবস্থায় গরুর দড়ি খুলে দিলে গরু অন্যথায় চলে যায়। এই নিয়ে আমি অত্যাচারের মধ্য দিয়ে বসবাস করে আসছি। ঘটনাটি এলাকার গণ্যমান্য ব্যক্তিদেরকে অবহিত করলে বৈঠকের সিদ্ধান্ত হয়। বৈঠকে এই ধরনের অত্যাচার কে বা কারা করছে তার কোনো প্রমাণ না থাকায় কাউকে কোনো কিছু করতে পারছেনা। গণ্যমান্য ব্যক্তিরা ঘটনাটি কে করছে এ নিয়ে হুশিয়ার করে দিলে তা কয়েকদিন বন্ধ থাকে। কিন্তু কিছুদিন চলতে থাকলে পুনরায় আবার আগের ন্যায় অত্যাচার শুরু হয়। স্থানীয় পুলিশ ফাঁড়িতে অভিযোগ করলে তদন্ত কর্মকতা ঘটনাটি তদন্ত করে কিন্তু এ অত্যাচারের ঘটনাটি উদ্ঘাটন না করায় আমি শারীরিক প্রতিবন্ধী ও আমার দুই ছেলে বুদ্ধি প্রতিবন্ধী নিয়ে আমি জীবন-যাপন করছি। তাই স্থানীয় প্রশাসনের কাছে দুর্বৃত্তদের অত্যাচার থেকে মুক্তি পাওয়া সহ সুবিচার কামনা করছি।”

আপডেট : বাংলাদেশ সময় : ০১:০১ পিএম, ১০ নভেম্বর ২০১৮ খ্রি.শনিবার

চাঁদপুর রিপোর্ট : এমআরআর

নিয়মিত আপডেট পেতে আমাদের ফেইসবুক পেইজে লাইক দিন এবং শেয়ার করুন …

531 জন পড়েছেন

Recommended For You

অনুমতি ব্যতীত এই সাইটের কোনো সংবাদ, ছবি অন্য কোনো মাধ্যমে প্রকাশ আইনত দণ্ডনীয়