ঘুমন্ত বাবাকে পিটিয়ে ও ছুরিকাঘাতে খুন

0
88

উপজেলা প্রতিনিধি কালীগঞ্জ (গাজীপুর)

গাজীপুরের কালীগঞ্জে ছেলে নকিব হাসান হৃদয়ের (১৮) ছুরিকাঘাতে খুন হয়েছেন বাবা আব্দুল হাই (৬০)। এ ঘটনায় মা রাজিয়া সুলতানা (৫০) ও বড় ভাই হাসিবুর রহমান নিলয় আহত হয়েছেন।

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

রোববার সকালে উপজেলার তুমলিয়া ইউনিয়নের সোমবাজার এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। স্থানীয়দের সহযোগিতায় নকিবকে আটক করেছে পুলিশ।

নিহতের শ্যালক আব্দুল আলিম জানান, প্রতিদিনের মতো শনিবার রাতে খাওয়া-দাওয়া করে এক রুমে বাবা-মা ও অন্য রুমে দুই ভাই ঘুমিয়ে পড়ে। রোববার সকাল পৌনে ৬টায় নকিব ঘুমন্ত বাবাকে উপর্যপুরি ছুরিকাঘাত এবং মাথায় রড দিয়ে আঘাত করে। এ সময় মা টের পেয়ে বাধা দিলে মাকেও রড় দিয়ে আঘাত করে সে। মাকে বাঁচাতে বড় ভাই নিলয় এগিয়ে সেও আহত হয়। পরে স্থানীয়দের সহযোগিতায় আহত অবস্থায় আব্দুল হাইকে কালীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে জরুরি বিভাগের কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

তিনি আরও জানান, গত ৪/৫ বছর ধরে নকিব মানসিকভাবে বিকারগ্রস্ত। বড় ভাই নিলয় নরসিংদী সরকারি কলেজে স্নাতক শিক্ষার্থী।

স্থানীয়রা জানায়, ঘটনার পর নকিব ঘর আটকে ভেতরে অবস্থান করছিল এবং নিজের চুল নিজেই কাটা শুরু করে। সে যেন পালাতে না পারে সেজন্য স্থানীয়রা ঘরের দরজা বাইরে থেকে আটকে দেয়। পরে থানা পুলিশে খবর দেয়া হয়। এ সময় নকিব আত্মহত্যার চেষ্টা করলে পুলিশ দরজা ভেঙে তাকে উদ্ধার করে থানায় নিয়ে যায়।

কালীগঞ্জ থানার ওসি মো. আবুবকর মিয়া বলেন, মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য গাজীপুর শহীদ তাজউদ্দিন আহমেদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। কী কারণে নকিব বাবাকে খুন করেছে তা এখনও জানা যায়নি।

প্রকাশিত: ০১:১৯ পিএম, ০৯ ডিসেম্বর ২০১৮

ফেসবুকে মন্তব্য করুন
186 জন পড়েছেন