আমি গরিব মানুষ বলে কি নির্বাচন করতে পারব না?

0
52

চাঁদপুর রিপোর্ট ডেস্ক :

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

বৈষম্যমূলক আচরণের অভিযোগ এনে নির্বাচন কমিশন (ইসি) সচিব হেলালুদ্দীন আহমদের পদত্যাগ দাবি করেছেন বগুড়া-৪ (কাহালু-নন্দীগ্রাম) আসনের স্বতন্ত্র প্রার্থী আশরাফুল ইসলাম আলম ওরফে হিরো আলম।

গতকাল বুধবার (১৯ ডিসেম্বর) রাতে তিনি গণমাধ্যমের সামনে এ দাবি তুলে ধরেন।

হিরো আলম বলেন, ইসি সচিব আমাকে ইনসাল্ট (অপমান) করে কথা বলেছে। বৈষম্যমূলক আচরণ প্রকাশ করেছেন। আমি অবশ্যই তার বিরুদ্ধে অবস্থান নিয়ে নির্বাচন কমিশনে নালিশ করব।

তিনি বলেন, সব মানুষই নির্বাচন করার অধিকার রাখে। আমি গরিব মানুষ বলে কি নির্বাচন করতে পারব না? সচিবরা হচ্ছেন রাষ্ট্রের চাকর। জনগণের টাকায় তাদের বেতন হয়। জনগণের সঙ্গে আদব নিয়ে কথা বলা দরকার।

হিরো আলম অভিযোগ করে বলেন, একজন সচিব এমপি প্রার্থীর সঙ্গে তুই-তোমারি করে কথা বলতে পারেন না। তিনি আমারে ইনসাল্ট (অপমান) করে কথা বলেছেন। আমি সচিবের কথার নিন্দা জানাই এবং তার পদত্যাগ দাবি করছি।

এর আগে, দুপুরে এক সভায় ইসি সচিব হেলালুদ্দীন আহমদ বলেন, হিরো আলম পর্যন্ত ইসিকে হাইকোর্ট দেখায়। সেও বলে যে নির্বাচন কমিশনকে আমরা হাইকোর্ট দেখিয়ে ছাড়ছি।

হিরো আলম বগুড়া-৪ আসনে প্রথমে জাতীয় পার্টির মনোনয়ন চেয়েছিলেন। কিন্তু পার্টির মনোনয়ন না পেয়ে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে মনোনয়নপত্র জমা দেন। কিন্তু ভোটারদের জাল স্বাক্ষরের অভিযোগে তার মনোনয়টি বাতিল করা হয় বলে জানান রিটার্নিং কর্মকর্তা। পরে নির্বাচন কমিশনে আপিল করেও মনোনয়ন ফেরত পাননি। এরপর হাইকোর্ট গিয়ে মনোনয়নপত্র ফেরত পান হিরো আলম।

আদেশের পর তাৎক্ষণিক প্রতিক্রিয়ায় হিরো আলম সাংবাদিকদের বলেন, ‘আমি এখন খুব খুশি। হাইকোর্টে যে ন্যায় বিচার পাওয়া যায়, তা প্রমাণ হলো। ইসি যে বলছিল আমার ভোটার তালিকা ভুয়া, তা আজ মিথ্যা প্রমাণ হয়েছে। ইসিকে হাইকোর্ট দেখিয়ে দিলাম।

প্রকাশিত : ২০ ডিসেম্বর ২০১৮ খ্রি. বৃহস্পতিবার

ফেসবুকে মন্তব্য করুন
295 জন পড়েছেন