চাঁদপুরে ধানের শীষ প্রার্থী মানিকের এজেন্ট আটক, দফায় দফায় সংঘর্ষ

0
302

 

চাঁদপুর রিপোর্ট ডেস্ক :

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

চাঁদপুর শহরে ধানের শীষের প্রাথী মানিকের প্রধান নিবাচনী এজেন্ট ও জেলা বিএনপি’র সিনিয়র যুগ্ম আহ্বায়ক অ্যাড. সলিম উল্লাহ সেলিমকে আটক করেছে পুলিশ।

এ ঘটনার জের ধরে বিএনপি আওয়ামী-লীগের দুই গ্রুপের সংঘর্ষে বিএনপি প্রার্থীর বাড়ির সামনে রণক্ষেত্রে পরিণত হয়েছে। হামলায় ভাংচুর করা হয়েছে বিএনপি প্রার্থীর বাড়ির প্রধান ফটক।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, দুপুর ২টার দিকে বিএনপির একটি মিছিল শহরের নতুন বাজার এলাকার দিকে৷ ধানের শীষের প্রার্থীর বাড়ির দিকে যাওয়ার সময় আওয়ামী লীগ প্রাথীর বাড়ির পাশ থেকে ইটপাটকেল ছুড়লে দুই পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ বেধে যায়।

প্রায় ঘণ্টাব্যাপী চলা সংঘর্ষে শহরের নতুনবাজার এলাকা রণক্ষেত্রে পরিণত হয়। পরে পুলিশ র‌্যাব ও বিজিবি এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। সংঘর্ষে আহতদের অনেকে চাঁদপুর জেনারেল হাসপাতাল ও অন্যন্য স্থানে চিকিৎসা নিয়েছে ।

এর আগে সকালে চাঁদপুর-৩ আসনের ঐক্যফ্রন্ট প্রার্থী শেখ ফরিদ আহমেদ মানিকের নির্বাচনী প্রধান এজেন্ট সলিম উল্লা সেলিমকে আটক করে পুলিশ ।

তাকে ছাড়িয়ে নিতে থানায় অবস্থান নেন শেখ ফরিদ আহমেদ মানিক। খবর পেয়ে থানার সামনে বিএনপির শত শত নেতা কর্মীর অবস্থান নেয়। পরে সবাইকে নিয়ে নিজ বাসভবনে ফেরার পথে এই সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত আটক ও হতাহরে সংখ্যা জানা যায়নি।

সোমবার (২৪ ডিসেম্বর) সকাল ১০টায় শহরের মুনিরা ভবন থেকে গণসংযোগে বের হন ধানের শীষ প্রতীকের প্রাথী শেখ ফরিদ আহমেদ মানিক। কিছুদূর যাওয়ার পর চাঁদপুর মডেল থানার অসির নেতৃত্বে পুলিশ ও বিজিবি সদস্যরা তাদের ঘিরে ধরে।

লিশ সেখান থেকে আহ্বায়ক অ্যাড. সলিম উল্লাহ সেলিমকে জরুরী কথা আছে বলে থানার নেয়ার চেষ্টা করে। এ সময় ধানের শীষ প্রতীকের প্রাথী শেখ ফরিদ আহমেদ মানিক তার গণসংযোগেে বাধা না দিতে পুলিশকে অনুরোধ জানায়।

পরে শেখ ফরিদ আহমেদ মানিক ও অ্যাড. সলিম উল্লাহ সেলিম পুলিশের সাথে থানায় যেতে বাধ্য হন।

এদিকে আটকের পর ধানের শীষ প্রার্থীর বাড়ির সামে বিএনপি ও আয়ামীলীগ কর্মীদের মাঝে সংঘর্ষ ঘটে। এতে দু’পক্ষের একাধিক নেতাকর্মী আহত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে।

প্রকাশিত : ২৪ ডিসেম্বর ২০১৮ খ্রি. সোমবার

ফেসবুকে মন্তব্য করুন
159 জন পড়েছেন