প্রেমিক জুটির আত্মহত্যার চেষ্টা, অবশেষে হাসপাতালেই বিয়ে

0
326

 

আন্তর্জাতিক ডেস্ক :
ভারতের তেলেঙ্গানা রাজ্যে এক তরুণী প্রেমিকের সঙ্গে পরিবার বিয়ে দেবে না আশঙ্কায় বিষপান করে। হাসপাতালে প্রেমিকাকে মৃত্যুর সঙ্গে লড়াই করতে দেখে প্রেমিকও সেখানেই বিষপান করে আত্মহত্যার চেষ্টা করে।

নারী-পুরুষের যে কোনোা যৌন সমস্যার (যৌন দুর্বলতা, সন্তান না হওয়া, সহবাসে ব্যর্থতা, দ্রুত বীর্যপাত) সমাধানে ‘নাইট কিং’ ও ‘নাইট কিং গোল্ড’ কার্যকরী। বাংলাদেশের যে কোনো জেলা বা উপজেলায় কুরিয়ার সার্ভিসযোগে ‘নাইট কিং’ পেতে যোগাযোগ করুন : হাকীম মিজানুর রহমান, ইবনে সিনা হেলথ কেয়ার, যোগাযোগ করুন : (সকাল ১০টা থেকে রাত ০৮ টা (নামাজের সময় ব্যতীত) +88 01742057854, +88 01762240650, +88 01777988889
এছাড়াও শ্বেতী রোগ, ডায়াবেটিস, অশ্ব (গেজ, পাইলস, ফিস্টুলা), হার্টের ব্লকেজ, শ্বেতপ্রদর, রক্তপ্রদর ইত্যাদি রোগের চিকিৎসা দেয়া হয়।
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

তেলেঙ্গানার ভিকারাবাদে মঙ্গলবার এই ঘটনার পর উভয়ের পরিবার হাসপাতালেই তাদের বিয়ের আয়োজন করে বলে শুক্রবার জানায় এনডিটিভি।

বিয়ের ছবিতে হাসপাতালের বিছানায় বধূ সাজে ২০ বছরের রেশমির নাকে তখনও অক্সিজেনের নল পরানো। আর বর নওয়াজ হুইলচেয়ারে বসা, চোখেমুখে তীব্র যন্ত্রণার ছাপ।

নওয়াজ দূরসম্পর্কের ভাই হওয়ায় পরিবার তার সঙ্গে বিয়ে দেবে না বলে আশঙ্কায় ছিল রেশমি। এরমধ্যে পরিবার তার বিয়ের তোড়জোড় শুরু করলে আর কোনো উপায় নেই ভেবে প্রাণ ত্যাগের সিদ্ধান্ত নেয় রেশমি।

রেশমির এক আত্মীয়া বলেন, “এটা সত্যি যে আমরা তার বিয়ের জন্য পাত্র খুঁজতে শুরু করেছিলাম, কিন্তু সে কখনোই নওয়াজের কথা আমাদের বলেনি। আগে জানলে আমরা কখনোই এ ঘটনা ঘটতে দিতাম না।”

এ ঘটনায় কোনো মামলা হয়নি বলে জানান ভিকারাবাদ জেলা পুলিশ প্রধান অন্নপূর্ণা।

“তারা নিজেরাই সমঝোতার মাধ্যমে সব কিছু ঠিক করে নিয়েছে।”

রেশমি-নওয়াজের জীবন এখনও ঝুঁকিমুক্ত না হলেও তারা এখন ভালোবাসার পরীক্ষায় সফল জুটি।

প্রকাশিত : ১৩ জানুয়ারি ২০১৯ খ্রি.

ফেসবুকে মন্তব্য করুন
349 জন পড়েছেন