হাজীগঞ্জে কৃষকের ধানের চারা উপড়ে বীজতলা দখলের চেষ্টা

0
35
হাজীগঞ্জের অলিপুরে ক্ষতিগ্রস্ত বীজতলা

নিজস্ব প্রতিবেদক :
হাজীগঞ্জে বোরো আবাদের ধানের চারা উপড়ে বীজতলা দখলের চেষ্টার অভিযোগ পাওয়া গেছে। গত ২৫ জানুয়ারি শুক্রবার উপজেলার ৫নং সদর ইউনিয়নের অলিপুর গ্রামে খবর পেয়ে ঘটনাস্থল গিয়ে পুলিশ দখলদারদের ধাওয়া দিলে পরিস্থিতি স্বাভাবিক হয়।

জানা যায়, ওই গ্রামের মিয়াজী বাড়ির মৃত আব্দুর রহমান মিজির ছেলে আব্দুস ছামাদ মিজি ১৯৯নং অলিপুর মৌজার সিএস ১৬৪নং খতিয়ানের দানপত্র দলিলমূলে ২৮ শতাংশ সম্পত্তি নিয়ে একই বাড়ির আঃ রাজ্জাক মিজি, রাশিদা বেগম, জাকির হোসেন ও অহিদা বেগম গংদের সাথে বিরোধ চলে আসছে। এই বিরোধকৃত সম্পত্তি নিয়ে হাজীগঞ্জ সিনিয়র সহকারী জজ আদালতে একটি নিষেধাজ্ঞা এবং একই আদালতে একটি উচ্ছেদ মোকাদ্দমা চলমান রয়েছে। যার মোকাদ্দমা নং ১১০/২০১৭ ও উচ্ছেদ মোকাদ্দমা নং ৬৬/২০১৭। বিজ্ঞ আদালতে মামলা চলমানবস্থায় আঃ রাজ্জাক গং বিরোধকৃত সম্পত্তি তাদের দখলে নিতে মরিয়া হয়ে উঠেছে।

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

তারই ধারাবাহিকতা গত শুক্রবার ভোর রাতে আঃ রাজ্জাক গং স্থানীয় যুবলীগ নেতাকে সঙ্গে নিয়ে ছামাদের বোরো আবাদের ধানের চারা তুলে মাটির নিচে ভরে উক্ত জমিতে বালু ফেলে দখলের চেষ্টা করে। এতে ছামাদের স্ত্রী পেয়ারা বেগম বাধা দিলে রাজ্জাকের সঙ্গবদ্ধ দল তাকে হুমক-ধমকি দিয়ে তাড়িয়ে দেয়। এতে পেয়ারা বেগম কোন উপায়ন্তর না পেয়ে তিনি স্মরনাপন্ন হন থানা পুলিশের।

হাজীগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ আলমগীর হোসেনের মহানুভবতা ঘটনাস্থলে ফোর্স পাঠিয়ে বালু না ফেলতে অভিযুক্তদের নির্দেশনা দিয়ে আসেন। ভূক্তভোগীদের অভিযোগ, আদালতে মামলা চলমান থাকাবস্থায় কোন অন্দর মহলের ইঙ্গিতে কিভাবে রাজ্জাক গং ফসলী জমি দখল করার এমন সাহস পায় ।

এ প্রসঙ্গে থানা অফিসার ইনচার্জ মোঃ আলমগীর হোসেনের মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, বিষয়টি জানার পর ঘটনাস্থলে ফোর্স পাঠিয়ে কাজ বন্ধ করেছি। এ ঘটনায় কৃষক পরিবারের পক্ষ থেকে মামলার প্রস্তুতি চলছে।

প্রকাশিত : ২৭ জানুয়ারি ২০১৯ খ্রিস্টাব্দ, রোববার

ফেসবুকে মন্তব্য করুন
156 জন পড়েছেন