চাঁদপুরের ফরিদগঞ্জে বাসরঘরে নববধূর ছুরিকাঘাতে বর আহত

0
188

আনিছুর রহমান সুজন:
চাঁদপুরের ফরিদগঞ্জে বাসরঘরে নববঁধুর ছুরিকাঘাতে বর গুরুতর আহত হওয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে। সোমবার গভীর রাতে উপজেলার গুপ্টি পশ্চিম ইউনিয়নের লাউতলী গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। গুরুতর আহত অবস্থায় বর দেলোয়ার বর্তমানে কুমিল্লার একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে বলে জানা গেছে। সংবাদ পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গেলেও বর ও নববঁধুর পক্ষে কাউকে খুজে পায়নি।

এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, উপজেলার পুর্ব লাউতলী গ্রামের ছিডু মিজির বাড়ীর মৃত হারুনুর রশীদের ছেলে দেলোয়ার হোসেনের সাথে একই উপজেলার চরমান্দারী ভুঁইয়া বাড়ীর ফিরোজ আলমের মেয়ে শ্যামলী আক্তারের সাথে ২৫জানুয়ারী পারিবারিকভাবে ইসলামী শরিয়াহ মোতাবেক বিয়ে হয়।

নারী-পুরুষের যে কোনোা যৌন সমস্যার (যৌন দুর্বলতা, সন্তান না হওয়া, সহবাসে ব্যর্থতা, দ্রুত বীর্যপাত) সমাধানে ‘নাইট কিং’ ও ‘নাইট কিং গোল্ড’ কার্যকরী। বাংলাদেশের যে কোনো জেলা বা উপজেলায় কুরিয়ার সার্ভিসযোগে ‘নাইট কিং’ পেতে যোগাযোগ করুন : হাকীম মিজানুর রহমান, ইবনে সিনা হেলথ কেয়ার, যোগাযোগ করুন : (সকাল ১০টা থেকে রাত ০৮ টা (নামাজের সময় ব্যতীত) +88 01742057854, +88 01762240650, +88 01777988889
এছাড়াও শ্বেতী রোগ, ডায়াবেটিস, অশ্ব (গেজ, পাইলস, ফিস্টুলা), হার্টের ব্লকেজ, শ্বেতপ্রদর, রক্তপ্রদর ইত্যাদি রোগের চিকিৎসা দেয়া হয়।
http://picasion.com/

ওই দিন গভীর রাত ২টার দিকে নব দম্পতির বাসরঘর থেকে বর দেলোয়ার হোসেনের আত্মচিৎকার শুনে তার স্বজনরা ঘরে ঢুকে তাকে রক্তাক্ত ও গুরুতর আহত অবস্থায় দেখতে পায়। দ্রুত তাকে উদ্ধার করে স্থানীয় ভাবে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে কুমিল্লায় নিয়ে যায়। বর্তমানে দেলোয়ার হোসেন কুমিল্লার একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে বলে তার স্বজনরা জানান।

স্থানীয় লোকজন জানায়, নববধু শ্যামলী আক্তার তার স্বামী দেলোয়ার হোসেনকে ছুরিকাঘাত করেছে তাদের ধারনা ।

বর দেলোয়ারের বোন রুনা বেগম জানায়, ভাই দেলোয়ারের চিৎকার শুনে বাসর ঘরে ঢুকে ভাইকে রক্তাক্ত অবস্থায় দেখতে পান। কিভাবে সে আহত হয়েছে তা জানেন না তিনি।

এলাকায় গিয়ে দেখা গেছে, বাসর ঘর এবং বাইরে বউ ভাতের জন্য তৈরিকৃত প্যান্ডেল এবড়ো থেবড়ো অবস্থায় পড়ে রয়েছে।

স্থানীয় ইউপি সদস্য মাসুদ আলম ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, আমি রাতেই ঘটনাটি শুনেছি। ঘটনার পর পর আহত দেলোয়ারকে হাসপাতালে নিয়ে যায় তার স্বজনরা। এ ঘটনাটি ধামা চাপা দিতে একটি চক্র উঠে পড়ে লেগেছে।

এই ব্যাপারে ফরিদগঞ্জ থানার ইনচার্জ মোহাম্মদ হারুনুর রশীদ চৌধুরী জানান, সংবাদ পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠিয়েছি। তবে অদ্যবদি কোন পক্ষই থানায় অভিযোগ করেনি।

প্রকাশিত : ২৬ ফেব্রুয়ারি ২০১৯ খ্রিস্টাব্দ, মঙ্গলবার

ফেসবুকে মন্তব্য করুন
550 জন পড়েছেন
http://picasion.com/