পাওনা টাকার জন্য যুবককে শেকলে বেঁধে মারধর, গ্রেফতার ২

0
59

নিজস্ব প্রতিবেদক চট্টগ্রাম :

পাওনা টাকা আদায়ের জন্য চট্টগ্রাম নগরের ফিরিঙ্গি বাজার এলাকায় কালাচাঁদ দাশ (৩৫) নামের এক যুবককে শেকলে বেঁধে নির্মমভাবে মারধরের অভিযোগে দুই ব্যক্তিকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

বৃহস্পতিবার (৩১ জানুয়ারি) দিবাগত রাতে লইট্টাঘাটা থেকে ওই যুবককে উদ্ধারের পাশাপাশি আসামিদের গ্রেফতার করা হয়।

নারী-পুরুষের যে কোনোা যৌন সমস্যার (যৌন দুর্বলতা, সন্তান না হওয়া, সহবাসে ব্যর্থতা, দ্রুত বীর্যপাত) সমাধানে ‘নাইট কিং’ ও ‘নাইট কিং গোল্ড’ কার্যকরী। বাংলাদেশের যে কোনো জেলা বা উপজেলায় কুরিয়ার সার্ভিসযোগে ‘নাইট কিং’ পেতে যোগাযোগ করুন : হাকীম মিজানুর রহমান, ইবনে সিনা হেলথ কেয়ার, যোগাযোগ করুন : (সকাল ১০টা থেকে রাত ০৮ টা (নামাজের সময় ব্যতীত) +88 01742057854, +88 01762240650, +88 01777988889
এছাড়াও শ্বেতী রোগ, ডায়াবেটিস, অশ্ব (গেজ, পাইলস, ফিস্টুলা), হার্টের ব্লকেজ, শ্বেতপ্রদর, রক্তপ্রদর ইত্যাদি রোগের চিকিৎসা দেয়া হয়।

উদ্ধার কালাচাঁদ দাশ বাঁশখালী উপজেলার বাণীগ্রাম হংসপাড়া এলাকার বিধুভূষণ দাশের ছেলে। পেশায় তিনি একজন পরিবহন শ্রমিক।

এ ছাড়া গ্রেফতাররা হলেন-লক্ষ্মীপুর জেলার রামগতি চরআলগী এলাকার ছাবেদুল হকের ছেলে মাইন উদ্দিন (৫৭) ও কর্ণফুলীর শিকলবাহা এলাকার আবদুল মোমিনের ছেলে মো. রফিক আহমদ (৫৫)।

কোতোয়ারি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ মহসীন বলেন, ‘কাজের সুবাদে কালাচাঁদ দাশের কাছ থেকে ৪৫ হাজার টাকা পাওনা ছিলেন মাইন উদ্দিন ও রফিক আহমদ। সেই পাওনা টাকা আদায়ের জন্য গতকাল কালাচাঁদ দাশকে ডেকে এনে শেকল দিয়ে বেঁধে রাখে মাইন উদ্দিন ও রফিক আহমদ। এ সময় তাকে মারধর করা হয়। রাতে কোতোয়ালি থানা পুলিশের টহল টিম খবর পেয়ে কালাচাঁদ দাশকে উদ্ধার করে।’

এ ঘটনায় মাইন উদ্দিন ও রফিক আহমদকে গ্রেফতার করা হয়েছে। নির্যাতনের অভিযোগে তাদের বিরুদ্ধে মামলা করেছেন কালাচাঁদ দাশ-জানান ওসি।

প্রকাশিত: ০৪:৩৩ পিএম, ০১ ফেব্রুয়ারি ২০১৯

ফেসবুকে মন্তব্য করুন
210 জন পড়েছেন