মতলব উত্তরে গ্রামবাসীর দুর্ভোগ আধা কিলোমিটার কাঁচা রাস্তা

0
29

মতলব উত্তরের নূরিয়া মাদ্রাসা-গালস্ স্কুল সড়ক
আদুরভিটি গ্রামবাসীর দুর্ভোগের কারণ মাত্র আধা কিলোমিটার কাঁচা রাস্তা

সফিকুল ইসলাম রানা :
মতলব উত্তর উপজেলার ছেংগারচর পৌরসভার নুরিয়া মাদ্রাসা হতে গালস্ স্কুল পর্যন্ত মাত্র আঁধা কিলোমিটার কাঁচা রাস্তা আদুরভিটি গ্রামবাসীর চরম দুর্ভোগের কারণ হয়ে হয়ে দাড়িয়েছে। পাকাকরণের জন্য এলাকাবাসী দীর্ঘদিন ধরে দাবি জানিয়ে আসলেও কোন লাভ হয়নি।

পৌর কর্তৃপক্ষ রাস্তাটি পাকাকরণের কোন উদ্যোগ নেয়নি বলে এলাকাবাসী জানিয়েছেন। বর্ষা মৌসুমে অতিরিক্ত কাঁদার কারনে আদুরভিটি গ্রামের লোকজনকে সীমাহীন দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে। আশেপাশের ৫/৬টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীদেরও কষ্টের কোনও শেষ থাকে না।

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

ভুক্তভোগী আদুরভিটি গ্রামের ফয়েজ আহমেদ ফকা চাঁদপুর রিপোর্টকে জানান, ছেংগারচর বাজারে আদুরভিটি গ্রামের কয়েক শ’ দোকানদার, কর্মচারী, ছাত্র-ছাত্রী ও আদুরভিটি গ্রামবাসী চলাচল করে। এ প্রায় আধা কিলোমিটার রাস্তা পাকা করা একান্ত জরুরী। সড়কের এই আধা কিলোমটার রাস্তা কাঁচা থাকায় বর্ষা মৌসুম ও একটু বৃষ্টিচতে চলাচলের অনুপযোগী হয়ে পড়ে।

সিদ্দিকা বেগম বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মনিরুল হক চাঁদপুর রিপোর্টকে পাটোয়ারী জানান, আদুরভিটিসহ আশেপাশের বেশ কয়েকটি গ্রামের মানুষ এ রাস্তা দিয়ে সকল সময়ে চলাচল করে। শিক্ষার্থীরা এই রাস্তা দিয়ে আদুরভিটি সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়, ছেংগারচর সরকারি মডেল উচ্চ বিদ্যালয়, ছেংগারচর সরকারি ডিগ্রি কলেজ, কয়েকটি কিন্ডার গার্টেন, মাদরাসা’সহ বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে যাতায়াত করে। কিন্তু বর্ষা মৌসুমে অতিরিক্ত কাঁদায় চলাচলের অযোগ্য হয়ে পড়ায় বহু কষ্টে পায়ে হেটে গন্তব্যে পৌছাতে হয়। কাঁদা-পানিতে পরিধেয় কাপড় নষ্ট হয়ে যাওয়ায় অনেক সময়ে গন্তব্যে না গিয়ে বাড়িতে ফিরে আসতে হয়।

ছেংগারচর বাজারের ব্যবসায়ী আলহাজ শেখ ফরিদ চাঁদপুর রিপোর্টকে জানান, রাস্তাটি অত্যান্ত জনগুরুত্বপূর্ণ। আদুরভিটিসহ বিভিন্ন এলাকার মানুষ রাস্তাটি দিয়ে চলাচল করে। তিনি চলতি অর্থবছরেই রাস্তাটি পাকাকরণের জন্য সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের নিকট জোর দাবি জানান।

প্রকাশিত : ২৮ ফেব্রুয়ারি ২০১৯ খ্রিস্টাব্দ, বৃহস্পতিবার

ফেসবুকে মন্তব্য করুন
201 জন পড়েছেন