‘উন্নয়নের ছোঁয়া থেকে এ বিদ্যালয়টিও বাদ যাবে না’

0
27

শাহরাস্তির হাটপাড় শহীদ ছিদ্দিক স্মৃতি সপ্রাবি’র বার্ষিক ক্রীড়া ও সাংস্কৃতিক প্রতিযোগিতার পুরস্কার বিতরণ

অতীতের কোন সরকারের পক্ষে প্রাথমিক শিক্ষার মানোন্নয়নে কাজ করা সম্ভব হয়নি যা হয়েছে আওয়ামী লীগ সরকার আমলে

——————- উপজেলা চেয়ারম্যান কামরুজ্জামান মিন্টু

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

মো. কামরুজ্জামান সেন্টু :
বাংলাদেশের ইতিহাসে অতীতের কোনও সরকারের পক্ষে প্রাথমিক শিক্ষার মানোন্নয়নে যে সকল কাজ বা উদ্যোগ গ্রহণ করা সম্ভব হয়নি বর্তমান ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ সরকার আমলে তা সম্ভব হয়েছে। এটি সম্ভব হয়েছে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু কন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনার ঐকান্তিক প্রচেষ্টায়। শাহরাস্তি উপজেলায়ও এর ব্যতিক্রম হয়নি। প্রাথমিক শিক্ষার মান্নোয়নে শিক্ষার সঠিক পরিবেশ, নতুন ভবন, সরকার ঘোষিত বছরের প্রথম দিন নতুন বই সহ নানাবিধ উন্নয়ন কর্মকান্ড সঠিক ভাবে সম্পন্ন করা সম্ভব হয়েছে আমাদের প্রাণপ্রিয় অভিভাবক মুক্তিযুদ্ধের কিংবদন্তি ১নং সেক্টর কমান্ডার ও সাবেক স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী মেজর (অব.) রফিকুল ইসলাম বীর উত্তম মহোদয়ের প্রাণপণ চেষ্টায়। উন্নয়নের ছোঁয়া থেকে এ বিদ্যালয়টিও বাদ যাবে না। আগামীতে এ বিদ্যালয়ের নতুন ভবন সহ সরকারি যে কোন সুবিধার জন্য আমরা সর্বাগ্রে চেষ্টা করবো। সেক্ষেত্রে বিদ্যালয়ের শিক্ষক, অভিভাবকদের সহযোগিতায় কোমলমতি শিক্ষার্থীরা মানসম্মত শিক্ষা গ্রহণের মাধ্যমে ভালো ফলাফল অর্জন করবে এমনটাই প্রত্যাশা।

বৃহস্পতিবার দুপুরে চাঁদপুরের শাহরাস্তির রায়শ্রী উত্তর ইউনিয়নের হাটপাড় শহীদ ছিদ্দিক স্মৃতি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের বার্ষিক ক্রীড়া ও সাংস্কৃতিক প্রতিযোগিতার পুরষ্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মোঃ কামরুজ্জামান মিন্টু উপরোক্ত কথাগুলো বলেন।

বিদ্যালয় পরিচালনা পর্ষদ সভাপতি মোঃ বদরুদ্দোজা পাটোয়ারী ফারুকের সভাপতিত্বে এতে বিশেষ অতিথি ছিলেন উপজেলা সহকারী শিক্ষা কর্মকর্তা মোহাম্মদ খাজা মাইনুদ্দিন, ফটিকখিরা এসএ বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মোঃ রফিকুল ইসলাম, রায়শ্রি উত্তর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও প্যানেল চেয়ারম্যান মোঃ নিজাম উদ্দিন মিজান, উপজেলা যুবলীগের যুগ্ম আহ্বায়ক মাহফুজুল কবীর প্রমুখ।

প্রকাশিত : ১৫ মার্চ ২০১৯ খ্রিস্টাব্দ, শুক্রবার

ফেসবুকে মন্তব্য করুন
148 জন পড়েছেন