bispan

‘বউ এনে দে’ বলে প্রথম স্ত্রীকে মারধর, তারপর বিষপান

চাঁদপুর রিপোর্ট ডেস্ক :

 লিটন বলেন, ‘এরপরে আর কিছু মনে নেই। জ্ঞান ফিরলে দেখি আমি হাসপাতালে ভর্তি।’

স্ত্রীকে নির্যাতন করে শাস্তির হাত থেকে রক্ষা পেতে থানার গেটে বিষপানে আত্মহত্যার চেষ্টা চালিয়েছে শাহাজান মোড়ল লিটন (৩৫) নামে একজন অটোরিকশাচালক।

গতকাল সোমবার রাতে যশোর কোতোয়ালি থানার সামনে এ ঘটনা ঘটে।

লিটন যশোরের ঝিকরগাছা উপজেলার নাভারণ এলাকার জহির মোড়লের ছেলে। তিনি প্রথম স্ত্রী রেকসোনাকে নিয়ে যশোর সদরের চাঁচড়া ইউনিয়নের ভাতুড়িয়া এলাকায় থাকতেন।

Night King Sex Update
নারী-পুরুষের যে কোনোা যৌন সমস্যার (যৌন দুর্বলতা, সন্তান না হওয়া, সহবাসে ব্যর্থতা, দ্রুত বীর্যপাত) সমাধানে ‘নাইট কিং’ ও ‘নাইট কিং গোল্ড’ কার্যকরী। বাংলাদেশের যে কোনো জেলা বা উপজেলায় কুরিয়ার সার্ভিসযোগে ‘নাইট কিং’ পেতে যোগাযোগ করুন : হাকীম মিজানুর রহমান, ইবনে সিনা হেলথ কেয়ার, যোগাযোগ করুন : (সকাল ১০টা থেকে রাত ০৮ টা (নামাজের সময় ব্যতীত) +88 01742057854, +88 01762240650, +88 01777988889
এছাড়াও শ্বেতী রোগ, ডায়াবেটিস, অশ্ব (গেজ, পাইলস, ফিস্টুলা), হার্টের ব্লকেজ, শ্বেতপ্রদর, রক্তপ্রদর ইত্যাদি রোগের চিকিৎসা দেয়া হয়।

আজ সকালে হাসপাতালে লিটনের প্রথম স্ত্রী রেকসোনা খাতুন সাংবাদিকদের জানান, তাদের সংসারে এক ছেলে ও দুই মেয়ে রয়েছে। শারীরিকভাবে অসুস্থ থাকার কারণে তিনি রাগ করে লিটনকে আরেকটি বিয়ে করতে বলেন। এই সুযোগে লিটন কয়েকজন নারীর সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে তোলেন। এর মধ্যে মণিরামপুর উপজেলার এক নারীর সঙ্গে তার দ্বিতীয় বিয়ে হয়। কয়েকদিন হলো দ্বিতীয় স্ত্রীর সঙ্গে তার ছাড়াছাড়ি হয়। এই ঘটনার জন্যে তাকে দায়ী করেন লিটন এবং সোমবার সকালে মারপিট করে। এ সময় লিটন তাকে বলেন, ‘তোর কারণে বউ চলে গেছে; তুই তাকে এনে দে।’

রেকসোনাকে মারপিট করায় ঘটনায় তার ভাই এবং প্রতিবেশীরা লিটনকে মারধর করে এবং তার বিরুদ্ধে নারী নির্যাতন মামলা দেওয়া হবে বলে ভয় দেখায়। এর জের ধরে লিটন নিজে মামলা থেকে রক্ষা পেতে অভিযোগ দিতে থানায় যান।

রেকসোনা আরও বলেন, ‘এরপরে কী হয়েছে জানি না। শুনেছি থানার গেটে সে বিষ খেয়েছে। খবর পেয়ে আজ মঙ্গলবার সকালে হাসপাতালে তাকে দেখতে এসেছি।’

এ বিষয়ে শাহাজান মোড়ল লিটন বলেন, “মানসিকভাবে খুব ভেঙে পড়েছি। মাথায় কোনো কাজ করছে না। আমি থানায় অভিযোগ দিতে গিয়েছিলাম। থানার ডিউটি অফিসার এসআই হাবিব সব কথা শুনে আমাকে বলেন, ‘আপনি অভিযোগ দিয়ে যান। খোঁজ খবর নিয়ে ব্যবস্থা নেব।’ তখন ভয় পেয়ে যাই। স্ত্রী আমার নামে নারী-শিশু মামলা দিয়ে জেলহাজতে পাঠাতে পারে। তখনই থানার বাইরে চলে আসি, আর পকেটে থাকা বোতল থেকে বিষ খাই। তখন মাথা ঘুরাতে থাকে। পুলিশ টের পেয়ে আমাকে গাড়িতে ওঠায়। এরপরে আর কিছু মনে নেই। জ্ঞান ফিরলে দেখি আমি হাসপাতালে ভর্তি।”

যশোর জেনারেল হাসপাতালের মেডিসিন ওয়ার্ডের চিকিৎসক নাইম শেখ বলেন, ‘বিষপানের রোগীর অবস্থা আসলে নির্দিষ্ট করে কিছু বলা যায় না। এক ঘণ্টা পরপর কাউন্সেলিং করতে হয়। তারপরেও তার অবস্থা এখন ভাল।’

কোতোয়ালি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) অপুর্ব হাসান বলেন, ‘লিটন তার প্রথম স্ত্রীকে দীর্ঘদিন ধরে নির্যাতন করেছেন। স্ত্রী মামলা দিয়ে তাকে জেলহাজতে পাঠাতে পারে, সেই ভয়ে তিনি বিষ পান করেছেন।’

অপুর্ব হাসান আরও বলেন, ‘এ বিষয়ে থানায় কেউ অভিযোগ দেয়নি। অভিযোগ দিলে পুলিশ আইনগত ব্যবস্থা সবসময়ই নিয়ে থাকে। তারপরেও পুলিশ বিষয়টি খতিয়ে দেখছে।’

345 জন পড়েছেন
শেয়ার করুন