আপত্তিকর ভিডিও প্রকাশের ভয় দেখিয়ে প্রবাসীর স্ত্রীর কাছে ৫০ লাখ টাকা দাবি

প্রবাসীর স্ত্রীর অভিযোগে চিকিৎসক আটক

0
69
আটক পার্থ কীর্তনিয়া

 

জেলা প্রতিনিধি মাদারীপুর
মাদারীপুরের রাজৈর উপজেলায় আপত্তিকর ভিডিও প্রকাশের ভয় দেখিয়ে এক প্রবাসীর স্ত্রীর কাছে ৫০ লাখ টাকার দাবির অভিযোগে পার্থ কীর্তনিয়া (৪০) নামে এক চিকিৎসককে আটক করেছে র‌্যাব।

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

বুধবার বিকেলে উপজেলার টেকেরহাট বন্দরের ইউ এস মডেল হাসপাতাল থেকে তাকে আটক করা হয়।

আটক রাপার্থ কীর্তনিয়া জৈর উপজেলার বৌলগ্রামের সুভাষ কীর্তনিয়ার ছেলে।

নারী-পুরুষের যে কোনোা যৌন সমস্যার (যৌন দুর্বলতা, সন্তান না হওয়া, সহবাসে ব্যর্থতা, দ্রুত বীর্যপাত) সমাধানে ‘নাইট কিং’ ও ‘নাইট কিং গোল্ড’ কার্যকরী। বাংলাদেশের যে কোনো জেলা বা উপজেলায় কুরিয়ার সার্ভিসযোগে ‘নাইট কিং’ পেতে যোগাযোগ করুন : হাকীম মিজানুর রহমান, ইবনে সিনা হেলথ কেয়ার, যোগাযোগ করুন : (সকাল ১০টা থেকে রাত ০৮ টা (নামাজের সময় ব্যতীত) +88 01742057854, +88 01762240650, +88 01777988889
এছাড়াও শ্বেতী রোগ, ডায়াবেটিস, অশ্ব (গেজ, পাইলস, ফিস্টুলা), হার্টের ব্লকেজ, শ্বেতপ্রদর, রক্তপ্রদর ইত্যাদি রোগের চিকিৎসা দেয়া হয়।

র‌্যাব-৮ মাদারীপুর ক্যাম্পের কোম্পানি কমান্ডার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার রইছ উদ্দিন জানান, পার্থ কীর্তনিয়া ডিপ্লোমা ইন মেডিকেল ফ্যাকাল্টি (ডিএমএফ) পাস করে টেকেরহাট বন্দরের ইউ এস মডেল হাসপাতালে ডাক্তারি করতেন।

তিনি গোপালগঞ্জ জেলার মুকসুদপুর উপজেলার এক প্রবাসীর স্ত্রীর সঙ্গে মোবাইলের মাধ্যমে প্রেম এবং দৈহিক সম্পর্ক গড়ে তোলেন। কৌশলে মোবাইলে দৈহিক সম্পর্কের ভিডিও ধারণ করেন পার্থ কীর্তনিয়া।

পরে সেই ভিডিও দেখিয়ে ওই গৃহবধূর কাছ থেকে বিভিন্ন সময়ে পাঁচ লাখ টাকা নিয়েছেন। সর্বশেষ ৫০ লাখ টাকা দাবি করলে ওই গৃহবধূ উপায় না পেয়ে মাদারীপুর র‌্যাব ক্যাম্পে লিখিত অভিযোগ করেন।

তিনি আরও জানান, সেই অভিযোগের ভিত্তিতে পার্থ কীর্তনিয়াকে বুধবার বিকেল ৪টার দিকে ইউএস মডেল হাসপাতাল থেকে গ্রেফতার করা হয়।

প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে তিনি সবই স্বীকার করেছেন। এছাড়াও তিনি ইমোতে বিভিন্ন সময় ওই গৃহবধূকে অশ্লীল ছবি পাঠিয়েছেন তারও প্রমাণ পাওয়া গেছে।

প্রকাশিত: ১২:১১ পিএম, ১১ এপ্রিল ২০১৯

ফেসবুকে মন্তব্য করুন
164 জন পড়েছেন