শাহরাস্তির ভোলদিঘি কামিল মাদ্রাসার অধ্যক্ষের বিরুদ্ধে শিক্ষিকার মামলার সিদ্ধান্ত

0
143

বিশেষ প্রতিনিধি :
গত ৯ এপ্রিল শাহরাস্তির ভোলদিঘি কামিল মাদ্রাসার অধ্যক্ষ মাওঃ দেলোয়ার হোসেন কর্তৃক শিক্ষিকা হাজেরা আক্তারকে অশ্লীল ভাষা ব্যবহার করার অভিযোগের সমাধান হয়নি।

১১ এপ্রিল এ বিষয়ে মাদ্রাসা পরিচালনা কমিটির বৈঠক হওয়ার কথা ছিল। কমিটির সভাপতি মোঃ দেলোয়ার হোসেনের অনুপস্থিতির কারণে উক্ত বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়নি বলে মাদ্রাসা কর্তৃপক্ষ অবহিত করেন।

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

আজ বিকেলে মাদ্রাসার অধ্যক্ষের কক্ষে ইউপি চেয়ারম্যান ও মাদ্রাসা পরিচালনা কমিটির সদস্য সফি আহাম্মেদ মিন্টু, সহ-সভাপতি মাওলানা আব্দুল মমিন ফারুকী, স্থানীয় ইউপি সদস্য মফিজুল ইসলাম সহ এ বিষয়ে আলোচনা করা হয়। এতে শিক্ষিকা হাজেরা বেগম জানান, ইতোপূর্বে অধ্যক্ষ এ ধরণের অনেক ঘটনা ঘটিয়েছেন কিন্ত কোন প্রতিকার পাওয়া যায়নি। তিনি সভাপতির দোহাই দিয়ে সময় পার করছেন। তাকে আর সময় দেয়া যায় না আমি আইনিভাবে মোকাবেলা করবো।

পরে হাজেরা বেগম উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভুমি) উম্মে হাবিবা মীরা’র কার্যালয়ে গিয়ে বিষয়টি অবহিত করেন। সহকারী কমিশনার তাকে ওই বিষয়ে যে কোন আইনি প্রদক্ষেপ নিতে এবং প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহনের আশ্বাস দেন।

মাদ্রাসার শিক্ষক অভিভাবক ও ছাত্রছাত্রীদের মাঝে ওই ঘটনায় তোলপাড় সৃষ্টি হয়েছে। শিক্ষকদের কারণে মাদ্রাসায় শিক্ষার পরিবেশ বিনস্ট হচ্ছে বলে অভিভাবকরা অভিযোগ করেন।

প্রকাশিত : ১১ এপ্রিল ২০১৯ খ্রিস্টাব্দ, বৃহস্পতিবার

চাঁদপুর রিপোর্ট-এমকেজেড

ফেসবুকে মন্তব্য করুন
204 জন পড়েছেন