লক্ষ্মীপুরে পাঁচ মাসের মাথায় ৭ সন্তানের জন্ম

0
68
ফাইল ছবি

 

জেলা প্রতিনিধি লক্ষ্মীপুর
লক্ষ্মীপুরে গর্ভধারণের পাঁচ মাসের মাথায় নাজমা আক্তার (১৮) নামে এক প্রসূতি মা একসঙ্গে সাত সন্তানের জন্ম দিয়েছেন। এরমধ্যে চারটি ছেলে ও তিনটি মেয়ে। নির্দিষ্ট সময়ের আগে প্রসব হওয়ায় বাচ্চাগুলোর চোখ ফোটেনি। মা সুস্থ থাকলেও, তারা ঝুঁকিতে রয়েছে।

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

শুক্রবার রাত পৌনে ১০টার দিকে লক্ষ্মীপুরের বেসরকারি একটি (সিটি হসপিটাল) হাসপাতালে ওই সাত সন্তানের জন্ম দেন প্রসূতি মা। তিনি সদর উপজেলার লাহারকান্দি গ্রামের পাটওয়ারী বাড়ির মো. রাজুর স্ত্রী।

নারী-পুরুষের যে কোনোা যৌন সমস্যার (যৌন দুর্বলতা, সন্তান না হওয়া, সহবাসে ব্যর্থতা, দ্রুত বীর্যপাত) সমাধানে ‘নাইট কিং’ ও ‘নাইট কিং গোল্ড’ কার্যকরী। বাংলাদেশের যে কোনো জেলা বা উপজেলায় কুরিয়ার সার্ভিসযোগে ‘নাইট কিং’ পেতে যোগাযোগ করুন : হাকীম মিজানুর রহমান, ইবনে সিনা হেলথ কেয়ার, যোগাযোগ করুন : (সকাল ১০টা থেকে রাত ০৮ টা (নামাজের সময় ব্যতীত) +88 01742057854, +88 01762240650, +88 01777988889
এছাড়াও শ্বেতী রোগ, ডায়াবেটিস, অশ্ব (গেজ, পাইলস, ফিস্টুলা), হার্টের ব্লকেজ, শ্বেতপ্রদর, রক্তপ্রদর ইত্যাদি রোগের চিকিৎসা দেয়া হয়।

হাসপাতালের ব্যবস্থাপক ওমর ফারুক ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, রাত ৯টা ২০ মিনিটের দিকে জরুরি অবস্থায় নাজমাকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। ২৫ মিনিট পরই তিনি সাতটি সন্তানের জন্ম দেন। মাসহ সবাই বেঁচে আছে। তবে বাচ্চাগুলো অসুস্থ।

হাসপাতাল সূত্র জানায়, মাত্র পাঁচ মাসের মাথায় নাজমার বাচ্চা প্রসব হয়েছে। একসঙ্গে সাত বাচ্চার প্রসব অনেক ঝুঁকি ছিল। তবে মা সুস্থ থাকলেও বাচ্চাগুলো ঝুঁকিতে আছে। তাদের এখনো চোখ ফোটেনি। অবস্থাও আশঙ্কাজনক।

হাসপাতালের কর্তব্যরত চিকিৎসক মো. আবদুল্লাহ নওশের বলেন, বাচ্চাদের সুস্থ করে তোলার জন্য চিকিৎসা চলছে। তবে ঝুঁকি থেকেই যাচ্ছে। উন্নত চিকিৎসার জন্য তাদের দ্রুত ঢাকা মেডিকেল কলেজের শিশু বিভাগে নিয়ে যাওয়ার পরামর্শ দেয়া হয়েছে।

প্রকাশিত: ০১:০২ এএম, ১৩ এপ্রিল ২০১৯

ফেসবুকে মন্তব্য করুন
198 জন পড়েছেন