গাইবান্ধায় শ্বশুরবাড়ির সামনে নতুন জামাইয়ের গলাকাটা লাশ, বউ-শাশুড়ি আটক

0
60

 

চাঁদপুর রিপোর্ট ডেস্ক :

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

গাইবান্ধার পলাশবাড়ী উপজেলায় শ্বশুরবাড়ির সামনে থেকে নতুন জামাই মনিরুল ইসলামের (২৫) গলাকাটা মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। এঘটনায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য মনিরুলের স্ত্রী এবং তার শাশুড়িকে আটক করা হয়েছে।

মঙ্গলবার (১৭ এপ্রিল) রাত ২টার দিকে উপজেলার কিশোরগাড়ী ইউনিয়নের উত্তর ঝাপর গ্রাম থেকে তার মরদেহটি উদ্ধার করে পুলিশ। নিহত মনিরুল ওই ইউনিয়নের কাশিয়াবাড়ী গ্রামের আসাদুল ইসলামের ছেলে।

নারী-পুরুষের যে কোনোা যৌন সমস্যার (যৌন দুর্বলতা, সন্তান না হওয়া, সহবাসে ব্যর্থতা, দ্রুত বীর্যপাত) সমাধানে ‘নাইট কিং’ ও ‘নাইট কিং গোল্ড’ কার্যকরী। বাংলাদেশের যে কোনো জেলা বা উপজেলায় কুরিয়ার সার্ভিসযোগে ‘নাইট কিং’ পেতে যোগাযোগ করুন : হাকীম মিজানুর রহমান, ইবনে সিনা হেলথ কেয়ার, যোগাযোগ করুন : (সকাল ১০টা থেকে রাত ০৮ টা (নামাজের সময় ব্যতীত) +88 01742057854, +88 01762240650, +88 01777988889
এছাড়াও শ্বেতী রোগ, ডায়াবেটিস, অশ্ব (গেজ, পাইলস, ফিস্টুলা), হার্টের ব্লকেজ, শ্বেতপ্রদর, রক্তপ্রদর ইত্যাদি রোগের চিকিৎসা দেয়া হয়।

এদিকে শ্বশুর বাড়ির লোকজনের দাবি, পারিবারিক কলহের জের ধরে মনিরুল নিজেই গলাকেটে তার গলাকেটে আত্মহত্যা করেছেন।

এবিষয়ে পলাশবাড়ী থানার ওসি হিপজুর আলম মুন্সি জানান, চার মাস আগে তন্নির সঙ্গে মনিরুলের বিয়ে হয়। রাতে মনিরুল উত্তরঝাপর গ্রামে তার শ্বশুর বাড়িতে ছিলেন। রাতে শ্বশুর তারা মিয়ার বাড়ির সামনে মনিরুলের গলাকাটা মরদেহ দেখতে পান স্থানীয়রা। পরে তারা পুলিশে খবর দেন। পুলিশ নিহতের মৃতদেহ উদ্ধার করেছে।

তবে প্রাথমিকভাবে একে হত্যাকাণ্ড বলে ধারণা করা হচ্ছে। জিজ্ঞাসাবাদের জন্য মনিরুলের স্ত্রী ও শাশুড়িকে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ চলছে। এ ঘটনার পর থেকে শ্বশুর তারা মিয়া পলাতক রয়েছেন বলেও জানান ওসি।

প্রকাশিত : ১৭ এপ্রিল ২০১৯ খ্রিস্টাব্দ, বুধবার : ১১:১৫ এএম

চাঁদপুর রিপোর্ট-এমআরআর

ফেসবুকে মন্তব্য করুন
64 জন পড়েছেন