তৃণমূলের প্রচারে অংশ নিয়ে বিজেপি’র তোপের মুখে ফেরদৌস

0
17

চাঁদপুর রিপোর্ট ডেস্কঃ
পশ্চিমবঙ্গের শাসক দল তৃণমূল কংগ্রেসের হয়ে নির্বাচনী প্রচারণায় অংশ নিয়েছেন দুই বাংলার জনপ্রিয় অভিনেতা ফেরদৌস। আর এতেই ক্ষেপেছে বিজেপি’র স্থানীয় নেতৃত্ব। এমনকি এ ঘটনায় নির্বাচন কমিশনের দ্বারস্থও হয়েছে দলটি।
ভারতীয় সংবাদমাধ্যমগুলোর প্রতিবেদন থেকে এমনটাই জানা যায়।
লোকসভা নির্বাচনে পশ্চিমবঙ্গ রাজ্যের উত্তর দিনাজপুরের রায়গঞ্জে তৃণমূল কংগ্রেসের প্রার্থী কানহাইয়ালাল আগরওয়ালের সমর্থনে প্রচারে অংশ নেন ফেরদৌসসহ টালিউডের একাধিক তারকা।
সংবাদমাধ্যমগুলোর প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, উত্তর দিনাজপুরে মুসলিম ভোটার প্রায় ৫১ শতাংশ। সেখানকার নির্বাচনে মুসলিমরাই বড় পার্থক্য তৈরি করে দিতে পারে। এজন্যই নাকি বাংলাদেশের অভিনেতাকে প্রচারে নামানো হয়েছে। প্রচারণায় ফেরদৌসের সঙ্গে আরও ছিলেন ওপার বাংলার জনপ্রিয় অভিনেতা অঙ্কুশ ও অভিনেত্রী পায়েল।
তৃণমূলের নির্বাচনী প্রতীক ঘাসফুলে ভোট দিতে উপস্থিত তৃণমূল সমর্থকদের প্রতি আহ্বান জানান ফেরদৌস। তার আহ্বানকে সোল্লাসে স্বাগত জানান তৃণমূলের সমর্থকরা।
এদিকে ফেরদৌসের নির্বাচনী প্রচারণায় অংশ নেয়ার ভিডিও নির্বাচন কমিশনে দাখিল করে তৃণমূলের বিরুদ্ধে নির্বাচনী আচরণবিধি লঙ্ঘনের অভিযোগ তুলেছে বিজেপি। পাশের দেশ থেকে জনপ্রিয় অভিনেতাকে নিয়ে প্রচারে নামানোয় তৃণমূলের দিকে অভিযোগের তীর ছুড়েছে বিজেপি।
বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ কটাক্ষ করে বলেন, কিভাবে ভারতের একটি রাজনৈতিক দলের প্রচারে বিদেশি নাগরিক আসতে পারেন! আগে কখনও এমনটা দেখিনি। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় আইন-কানুন মানেন না। ভোটার কম পড়লে রোহিঙ্গাদের ডেকে আনছেন, আবার সিবিআইকে গ্রেফতার করছেন। কাল হয়তো ইমরান খানকেও (পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী) প্রচারে ডাকবে তৃণমূল।
তিনি আরও দাবি করেন, তৃণমূল ভয় পেয়েছে বলেই বিদেশি অভিনেতাকে নির্বাচনী প্রচারে নামিয়েছে।
এদিকে বিজেপি’র অভিযোগের জবাবে আত্মপক্ষ সমর্থন করে তৃণমূল নেতা মদন মিত্র বলেন, ১৯৭১ সালে বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধের সময় আমরা সাহায্য করেছিলাম। ফেরদৌসকে প্রচারে এনে আমরা ভুল কিছু করিনি।

প্রকাশিত : ১৭ এপ্রিল ২০১৯ খ্রিস্টাব্দ, বুধবার

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

চাঁদপুর রিপোর্ট-এমকেজেড

ফেসবুকে মন্তব্য করুন
138 জন পড়েছেন