ফাঁকা বাড়িতে ছাত্রীকে ধর্ষণ করল শিক্ষক, বলে দিলেন স্ত্রী

0
246

জেলা প্রতিনিধি নাটোর :
নাটোরে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব কলেজের এক ছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগে একই কলেজের ইসলামের ইতিহাস বিভাগের প্রভাষক আব্দুল জলিলকে বহিষ্কার করেছে কলেজ কর্তৃপক্ষ।

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

এর আগে কলেজের গভর্নিং বডি তাদের গঠিত তদন্ত কমিটির কাছ থেকে প্রতিবেদন পেয়ে ওই শিক্ষককে কারণ দর্শানোর নোটিশ দেন।

নারী-পুরুষের যে কোনোা যৌন সমস্যার (যৌন দুর্বলতা, সন্তান না হওয়া, সহবাসে ব্যর্থতা, দ্রুত বীর্যপাত) সমাধানে ‘নাইট কিং’ ও ‘নাইট কিং গোল্ড’ কার্যকরী। বাংলাদেশের যে কোনো জেলা বা উপজেলায় কুরিয়ার সার্ভিসযোগে ‘নাইট কিং’ পেতে যোগাযোগ করুন : হাকীম মিজানুর রহমান, ইবনে সিনা হেলথ কেয়ার, যোগাযোগ করুন : (সকাল ১০টা থেকে রাত ০৮ টা (নামাজের সময় ব্যতীত) +88 01762240650, +88 01777988889
এছাড়াও শ্বেতী রোগ, ডায়াবেটিস, অশ্ব (গেজ, পাইলস, ফিস্টুলা), হার্টের ব্লকেজ, শ্বেতপ্রদর, রক্তপ্রদর ইত্যাদি রোগের চিকিৎসা দেয়া হয়।

কিন্তু প্রাপ্ত জবাব ‘অসন্তোষজনক’ হওয়ায় শিক্ষক আব্দুল জলিলকে সাময়িক বহিষ্কারের সিদ্ধান্ত দেয় কলেজ কর্তৃপক্ষ। তার এ বহিষ্কারাদেশ আগামী ১৩ মে থেকে কার্যকর হবে।

১২ এপ্রিল নাটোর সদর উপজেলার বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব কলেজের ইসলামের ইতিহাসের শিক্ষক আব্দুল জলিলের স্ত্রী কলেজ অধ্যক্ষের কাছে স্বামীর বিরুদ্ধে ছাত্রী ধর্ষণের অভিযোগ করেন।

অভিযোগে বলা হয়, স্ত্রী অনুপস্থিতিতে স্বামী আব্দুল জলিল কলেজের এক ছাত্রীকে নিয়ে নাটোর শহরের উপশহর এলাকায় ভাড়া করা বাসায় যায়। সেখানে ওই ছাত্রীকে ধর্ষণ করলে ছাত্রীর চিৎকারে বাসার মালিক রক্তাক্ত অবস্থায় ছাত্রীটিকে উদ্ধার করেন। পরে অভিযোগপ্রাপ্তির পর কলেজ কর্তৃপক্ষ ৭ সদস্য বিশিষ্ট একটি তদন্ত কমিটি গঠন করে। তদন্তকালে ঘটনার সত্যতা পেয়ে প্রভাষক আব্দুল জলিলকে বহিষ্কারের সিদ্ধান্ত নেয়া হয়।

বিষয়টি নিশ্চিত করে কলেজের অধ্যক্ষ মৌসুমী পারভীন বলেন, নৈতিক স্খলনজনিত অপরাধ প্রমাণিত হওয়ায় শিক্ষক আব্দুল জলিলকে সাময়িক বহিষ্কার করা হয়েছে। কলেজের শৃঙ্খলা ও সুনাম অক্ষুণ্ন রাখার স্বার্থে তার বিরুদ্ধে এ পদক্ষেপ নেয়া হয়েছে।

প্রকাশিত : ১১ মে ২০১৯ খ্রিস্টাব্দ, শনিবার : 04:37 PM

চাঁদপুর রিপোর্ট-এমআরআর

ফেসবুকে মন্তব্য করুন
271 জন পড়েছেন