অবাঞ্ছিত প্রেগনেন্সি রোধে ৫ উপায়

0
596

 

চাঁদপুর রিপোর্ট ডেস্ক :

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

অবাঞ্চিত প্রেগনেন্সি রোধ করেত কনট্রাসেপটিভ মেথড কমন। আগে যে কনট্রাসেপশন ব্যহার করা হত সেগুলিতে প্রোজেস্টেরনের মাত্রা অত্যন্ত বেশি থাকত। ফলে পার্শ্বপ্রতিক্রিয়ার সম্ভাবনাও থাকত বেশি। ওজন বাড়া, মুড সুইং-সহ নানা সমস্যা দেখা দিত। তবে আধুনিক কনট্রাসেপশনে প্রোজেস্টেরনের মাত্রা নিয়ন্ত্রিত থাকে বলে ওজন বাড়ার সমস্যাও কম দেখা দেয়।

তাই যারা এই মূহূর্তে সন্তান চাইছেন না ও যাদের হাইপারটেনশান, লিভার সমস্যা বা মাইগ্রনের সমস্যা নেই, তাদের পক্ষে ওরাল কনট্রাসেপটিভ পিল কিন্তু বেশ কার্যকারী।

কন্ডোম : কন্ডোম জাতীয় কনট্রাসেপশন ব্যবহার করতে পারেন। এছাড়া কন্ডোম জন্মরোধের পাশাপাশি যৌন রোগ প্রতিরোধও সাহায্য করে। তবে অনেকের যৌনমিলনের সময় ল্যাটেক্স বা রবারের কন্ডোম ব্যবহার করলে জালা, যন্ত্রনা বা ব্যাথা হতে পারে। সেক্ষেত্রে অন্য কন্ডোম ব্যবহার করুন। তাছাড়া আজকাল মেয়েদেরও কন্ডোম বাজারে চলে এসেছ। যা তুলনামূলক ভাবে দামে একটু বেশি। তবে একের অধিকবার ব্যবহার করা যায়।

ইনট্রাইউটেরাইন : ইনট্রাইউটেরাইন কনট্রাসেপটিভ (কপার টি) তারাই ব্যবহার করেন, যাদের একটি বা দুটি সন্তান হয়ে গিয়েছে। তবে কপার টি তুলনামূলক ভাবে নারী শরীরের পক্ষে কম ক্ষতিকর। কিন্তু যোনি পথের বাইরে তার চিহ্ন থেকে যায়।

gif maker

তাহলেও গর্ভনিরোধক হিসাবে নারী শরীরের পক্ষ্যে কপার টি সবথেকে সেফ। অবস্থান গত সুবিধার জন্য কপার টি মহিলাদের প্রথম পছন্দরের জন্ম নিরোধক হওয়া উচিত কিন্তু নেক মেয়েদের কপার টি’তে অস্বস্তি হয় বলে তারা এটা পছন্দ করেন না। কারণ এটা যোণি ছিদ্র পথে একটি বাঁধা হিসাবে থাকে। অনেকের ক্ষেত্রেই এলার্জি জনিত সমস্যাও দেখা যায়। তাই আপনার গর্ভ নিরোধক ব্যবহারের আগে ডাক্তারের পরামর্শ নেওয়া উচিত।

নেটএন বা ডিপোপ্রোভেরা : নেটএন বা ডিপোপ্রোভেরার মতো হরমোন জনিত গর্ভ নিরোধক রয়েছে কিন্তু এসবের অনেক পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া রয়েছে। নেটএন বা ডিপোপ্রোভেরা হরমোনাল টাবলেট বা ইনজেকশানটি প্রতিস্থাপন করা হয় মেয়েদের শরীরে। তবে মেল কন্ডোম ছাড়াও পুরুষদের জন্য বিকিল্প কোন স্বাস্থ্যসন্মত ব্যবস্থা নেই।

মাইরিয়া : এটি একবার ব্যবহার করলে মোটামুটি পাঁচবছর পর্যন্ত প্রেগনেন্সি আসে না। তবে এর ফলে মাঝে মধ্যে অনিয়মিত পিরিয়ডস হতে পারে সেক্ষেত্রে অনেক মহিলারাই ভাবতে পারেন তিনি বোধ হয় প্রেগনেন্ট হয়ে গেলেন। তবে সঠিক কাউনন্সেলিংয়ের মাধ্যমে এই ভয় ভীতি কাটিয়ে ওঠা সম্ভব।

প্রকাশিত : ২৪ এপ্রিল ২০১৯ খ্রিস্টাব্দ, বুধবার : ১২:৫৫ পিএম

চাঁদপুর রিপোর্ট-এমআরআর

 

ফেসবুকে মন্তব্য করুন
395 জন পড়েছেন