অভিনেতা সালেহ আহমেদ আর নেই

0
56

 

বিনোদন প্রতিবেদক
দীর্ঘদিন ধরেই বার্ধক্যজনিত অসুখে ভুগছিলেন নন্দিত অভিনেতা সালেহ আহমেদ। মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়ে অবশেষে আজ তিনি পরপারে পাড়ি জমালেন। ইন্নালিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন।

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

বুধবার দুপুর ২টা ৩৩ মিনিটে রাজধানীর অ্যাপোলো হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মুত্যুবরণ করেছেন তিনি। তার মামাতো ভাই অভিনেতা আহসানুল হক মিনু এই তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

নারী-পুরুষের যে কোনোা যৌন সমস্যার (যৌন দুর্বলতা, সন্তান না হওয়া, সহবাসে ব্যর্থতা, দ্রুত বীর্যপাত) সমাধানে ‘নাইট কিং’ ও ‘নাইট কিং গোল্ড’ কার্যকরী। বাংলাদেশের যে কোনো জেলা বা উপজেলায় কুরিয়ার সার্ভিসযোগে ‘নাইট কিং’ পেতে যোগাযোগ করুন : হাকীম মিজানুর রহমান, ইবনে সিনা হেলথ কেয়ার, যোগাযোগ করুন : (সকাল ১০টা থেকে রাত ০৮ টা (নামাজের সময় ব্যতীত) +88 01742057854, +88 01762240650, +88 01777988889
এছাড়াও শ্বেতী রোগ, ডায়াবেটিস, অশ্ব (গেজ, পাইলস, ফিস্টুলা), হার্টের ব্লকেজ, শ্বেতপ্রদর, রক্তপ্রদর ইত্যাদি রোগের চিকিৎসা দেয়া হয়।

বার্ধক্যজনিত নানা রোগে আক্রান্ত হয়ে দীর্ঘদিন ধরে অসুস্থ হয়ে আছেন এই অভিনেতা। সপ্তাহ খানেক আগে গুরুতর অসুস্থ হয়ে আবারও অ্যাপোলো হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন অভিনেতা সালেহ আহমেদ।

প্রায় ৫ বছর ধরে অ্যাপোলো হাসপাতালে নিয়মিত চিকিৎসা নেন। তবে ক্রমেই ৮৩ বছর বয়সী এই অভিনেতার শারীরিক অবস্থার অবনতি ঘটেছে। অবশেষে হঠাৎ শরীর বেশি খারাপ হওয়ায় সপ্তাহ খানেক আগে তাকে অ্যাপোলেতে ভর্তি করা হয়। সেখানেই চিকিৎসা চলাকালীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়।

প্রসঙ্গত, বগুড়ার সারিয়াকান্দিতে সালেহ আহমেদের জন্ম। জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল অধিদফতরে চাকরির পাশাপাশি ময়মনসিংহে অমরাবতী নাটমঞ্চের সঙ্গে যুক্ত ছিলেন এই অভিনেতা। স্বাধীনতার আগে বিটিভিতে তিনি নিয়মিত অভিনয় করতেন।

১৯৯১ সালে অবসরে যাওয়ার পর হুমায়ূন আহমেদের নাটকে ও চলচ্চিত্রে অভিনয় শুরু করেন। ধারাবাহিক ‘অয়োময়’ নাটক এবং ‘আগুনের পরশমণি’ চলচ্চিত্রের মাধ্যমে অভিনয় জগতে তার দাপুটে পদচারণা শুরু হয়। এরপর অসংখ্য টিভি নাটক এবং চলচ্চিত্রে অভিনয় করেছেন তিনি। স্বীকৃতি হিসেবে পেয়েছেন স্বাধীনতা পদক।

প্রকাশিত: ০২:৫৩ পিএম, ২৪ এপ্রিল ২০১৯

ফেসবুকে মন্তব্য করুন
187 জন পড়েছেন