হাইমচরের মেঘনায় নিখোঁজের ২ দিন পর পুলিশ সদস্যের মৃতদেহ উদ্ধার

0
232

সাহেদ হোসেন দিপু, হাইমচর প্রতিনিধি :
চাঁদপুর জেলার হাইমচরের মেঘনায় জেলেদের সাথে সংঘর্ষে নিখোঁজ পুলিশ সদস্য মোশারফের মৃতদেহ ভাসমান অবস্থায় উদ্ধার করেছে হাইমচর থানা পুলিশ।

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

গতকাল বেলা ১১টায় বরিশাল জেলার হিজলা উপজেলায় মিলন চেয়ারম্যান আড়ত সংলগ্ন মেঘনায় একটি মৃতদেহ ভাসতে দেখে হাইমচর থানা পুলিশকে খবর দেয় স্থানীয় জনগণ। পরে পুলিশ সেখানে গিয়ে নিখোঁজ পুলিশ সদস্য মোশারফের মৃতদেহ হিসেবে চিহ্নিত করেন এবং মৃতদেহটি উদ্ধার করে প্রথমে হাইমচর থানায় ও পরবর্তীতে ময়নাতদন্তের জন্য চাঁদপুর জেনারেল হাসপাতালে প্রেরণ করেন। মৃতদেহটি হাইমচর থানায় নিয়ে আসলে সহকর্মীদের চিৎকারে আকাশ বাতাশ ভারী হয়ে উঠে।

উল্লেখ্য, শুক্রবার মধ্য রাতে হাইমচর থানা পুলিশের একটি দল ওয়ারেন্টভুক্ত আসামী ধরার উদ্দেশ্যে মেঘনা পাড়ি দিয়ে ওপারে যাওয়ার চেষ্টা করলে প্রতিমধ্যে মতলব উত্তর উপজেলার মহনপুরের জাটকা শিকারী একদল জেলে সংঘবদ্ধভাবে পুলিশের উপর অতর্কীত হামলা চালায়। সেখানে পুলিশ পাঁচ রাউন্ড গুলি বর্ষণ করে সবাইকে নিয়ে নিরাপদে ফিরতে পারলেও ট্রলার থেকে পরে নদীতে তলিয়ে যাওয়া পুলিশ কনস্টেবল মোশারফ হোসেন জনিকে উদ্ধার করেতে পারেনি। দীর্ঘ ২দিন পর গতকাল রবিবার বেলা ১২ টায় মোশারফের মৃতদেহটি বিবস্ত্র অবস্থায় বরিশালের হিজলায় ভাসমান অবস্থায় পাওয়া যায়।

কনস্টেবল মোশারফ হোসেনের গ্রামের বাড়ি চট্টগ্রামের সীতাকুন্ড থানার বারকুন্ড এলাকায়। এক পুত্র সন্তানের জনক মোশারফের স্ত্রী শামীমা বর্তমানে হাইমচর থানায় পুলিশ সদস্য হিসেবে কর্মরত রয়েছে। ৫ ভাই ২ বোনের মধ্যে মোশারফ সবার ছোট।

প্রকাশিত : ২৮ এপ্রিল ২০১৯ খ্রিস্টাব্দ, রোববার : ০২:৪২ পিএম

চাঁদপুর রিপোর্ট-এমআরআর

ফেসবুকে মন্তব্য করুন
197 জন পড়েছেন