252

গোপালগঞ্জে ছাত্রীর শ্লীলতাহানীর অভিযোগে শিক্ষক আটক

চাঁদপুর রিপোর্ট ডেস্কঃ
গোপালগঞ্জ সদর উপজেলার এক স্কুলছাত্রীর শ্লীলতাহানীর অভিযোগে ওই স্কুলের সহকারী শিক্ষক মিরাজ হোসেনকে আটক করেছে পুলিশ। এ ঘটনায় অভিযুক্ত ওই শিক্ষককে সাময়িকভাবে বরখাস্ত করেছে স্কুল কর্তৃপক্ষ।

বুধবার (০১ মে) দুপুরে গোপালগঞ্জ সদর থানার বৌলতলী তদন্ত কেন্দ্রের পুলিশ স্কুল থেকে ওই শিক্ষককে আটক করে।

Night King Sex Update
নারী-পুরুষের যে কোনোা যৌন সমস্যার (যৌন দুর্বলতা, সন্তান না হওয়া, সহবাসে ব্যর্থতা, দ্রুত বীর্যপাত) সমাধানে ‘নাইট কিং’ ও ‘নাইট কিং গোল্ড’ কার্যকরী। বাংলাদেশের যে কোনো জেলা বা উপজেলায় কুরিয়ার সার্ভিসযোগে ‘নাইট কিং’ পেতে যোগাযোগ করুন : হাকীম মিজানুর রহমান, ইবনে সিনা হেলথ কেয়ার, যোগাযোগ করুন : (সকাল ১০টা থেকে রাত ০৮ টা (নামাজের সময় ব্যতীত) +88 01742057854, +88 01762240650, +88 01777988889
এছাড়াও শ্বেতী রোগ, ডায়াবেটিস, অশ্ব (গেজ, পাইলস, ফিস্টুলা), হার্টের ব্লকেজ, শ্বেতপ্রদর, রক্তপ্রদর ইত্যাদি রোগের চিকিৎসা দেয়া হয়।

জানা গেছে, গত ২৪ এপ্রিল শ্রেণি কক্ষে ওই স্কুলের সহকারী শিক্ষক পরিমল বিশ্বাসের জন্মদিন পালন করা হয়। পরিমল বিশ্বাস তার জন্মদিনের কেক কেটে চলে যাওয়ার পর সহকারী শিক্ষক মিরাজ হোসেন ছাত্রীদের জোর করে কেক খাইয়ে দেয়া ও ছাত্রীদের সঙ্গে সেলফি তোলার একপর্যায়ে ওই ছাত্রীর শ্লীলতাহানী করে।

ওই ছাত্রীর অভিভাবকরা বিষয়টি স্কুল কর্তৃপক্ষকে মৌখিকভাবে জানালে কোন বিচার না পেয়ে স্কুলের প্রধান শিক্ষক ও সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) বরাবর গত ২৮ এপ্রিল লিখিত অভিযোগ দাখিল করেন।

এদিকে, লিখিত অভিযোগ পেয়ে স্কুল কর্তৃপক্ষ বিষয়টি নিয়ে এলাকার গণ্যমান্য ব্যক্তিদের নিয়ে ৩০ এপ্রিল এক জরুরি সভা করে বিষয়টি তদন্তের জন্য তিন সদস্যের কমিটি গঠন করেন। বুধবার এ বিষয়ে প্রতিবেদন দাখিলের সিদ্ধান্ত হয়।
বিষয়টির পরবর্তী সিদ্ধান্তের জন্য বুধবার স্কুল প্রাঙ্গণে স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিদের নিয়ে জরুরি সভা শুরু হয়। এসময়ে গোপালগঞ্জ সদর থানার বৌলতলী তদন্ত কেন্দ্রের পুলিশ স্কুল থেকে ওই শিক্ষককে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করে। এ সময় এ ঘটনায় সহায়তাকারী অপর শিক্ষক পালিয়ে যায়।

এ ব্যাপারে ওই স্কুলের পরিচালনা পরিষদের সভাপতি মো. কামরুল ইসলাম জানান, ওই শিক্ষকের বিরুদ্ধে অভিযোগ পেয়ে তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছিল। ম্যানেজিং কমিটিতে তদন্ত কমিটির সুপারিশ ও অন্যান্য দিক বিবেচনা করে অভিযুক্ত শিক্ষক মিরাজ হোসেনকে সাময়িকভাবে বরখাস্ত করা হয়েছে।

গোপালগঞ্জ থানার ওসি মো. মনিরুল ইসলাম জানান, সদর উপজেলার ওই স্কুলের এক ছাত্রীর শ্লীলতাহনীর অভিযোগে ওই স্কুলের সহকারী শিক্ষক মিরাজ হোসেনকে আটক করা হয়েছে। তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের সঙ্গে আলোচনা করে পরবর্তী ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

প্রকাশিত : ০১ মে ২০১৯ খ্রিস্টাব্দ, বুধবার

চাঁদপুর রিপোর্ট-এমকেজেড

400 জন পড়েছেন
শেয়ার করুন