ধর্ষিতা কিশোরীর দেহ কুয়া থেকে উদ্ধার করতেই বের হল আরও কঙ্কাল!

0
277

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

চাঁদপুর রিপোর্ট ডেস্ক :

এক ১৪ বছরের তরুণীর দেহ উদ্ধারে ঘিরে রীতিমত শোরগোল পড়ে গিয়েছিল দক্ষিণ ভারতের তেলেঙ্গেনা রাজ্যের হাজিপুর গ্রামে। গোটা গ্রাম খোঁজাখুঁজির পর শেষ গ্রামের এক কুয়া থেকে উদ্ধার করা হয় কিশোরীর দেহ।

আর দেহটি উদ্ধার হতেই রক্তহিম করা কয়েকটি ঘটনাবলী প্রকাশ্যে আসে। গ্রামের একটি পরিত্যক্ত কুয়া থেকে কিশোরীর দেহ উদ্ধার হতেই বোঝা যায়, তাকে কেউ ধর্ষণ করেছিল। পোস্টমর্টেম রিপোর্টও তেমনটাই জানিয়েছে।

নারী-পুরুষের যে কোনোা যৌন সমস্যার (যৌন দুর্বলতা, সন্তান না হওয়া, সহবাসে ব্যর্থতা, দ্রুত বীর্যপাত) সমাধানে ‘নাইট কিং’ ও ‘নাইট কিং গোল্ড’ কার্যকরী। বাংলাদেশের যে কোনো জেলা বা উপজেলায় কুরিয়ার সার্ভিসযোগে ‘নাইট কিং’ পেতে যোগাযোগ করুন : হাকীম মিজানুর রহমান, ইবনে সিনা হেলথ কেয়ার, যোগাযোগ করুন : (সকাল ১০টা থেকে রাত ০৮ টা (নামাজের সময় ব্যতীত) +88 01742057854, +88 01762240650, +88 01777988889
এছাড়াও শ্বেতী রোগ, ডায়াবেটিস, অশ্ব (গেজ, পাইলস, ফিস্টুলা), হার্টের ব্লকেজ, শ্বেতপ্রদর, রক্তপ্রদর ইত্যাদি রোগের চিকিৎসা দেয়া হয়।

খানিক বাদে সেই কুয়া থেকে উদ্ধার হয় আরও একটি কঙ্কালের হাড়গোর। এরপরই গ্রাম জুড়ে চাঞ্চল্য তৈরি হয়। উদ্ধার হওয়া কঙ্কালের পোশাক দেখে চেনা য়ায় সেও গ্রামের ১৮ বছর বয়সী এক যুবতী, যাঁকে কয়েক মাস আগে থেকে খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে না।

এরপরই গ্রামবাসীদের বিভিন্ন সন্দেহ দানা বাঁধে। এক সম্ভাব্য অভিযুক্তের বাড়ি গিয়ে শুরু হয় ভাঙচুর। পরে পুলিশ তদন্তে নামলে জানা যায়, ওই ব্যক্তি গ্রামের তিন কিশোরী ও এক মহিলাকে ধর্ষণের পরে খুন করে কুয়ায় ফেলেছিল এক যুবক।

গত কয়েক মাস ধরে এই ঘটনাগুলো ঘটানোর পর অবশেষে ওই অভিযুক্ত ব্যক্তিকে যুবককে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

প্রকাশিত : ০১ এপ্রিল ২০১৯ খ্রিস্টাব্দ, বুধবার : ০৭:৫৭ পিএম

চাঁদপুর রিপোর্ট-এমআরআর

 

ফেসবুকে মন্তব্য করুন
175 জন পড়েছেন