ফেনীতে ২ ছাত্রীর শরীরে হাত, ২ শিক্ষক বরখাস্ত

0
96

 

চাঁদপুর রিপোর্ট ডেস্ক :
ফেনীর দাগনভূঞা উপজেলায় ছাত্রীর শরীরে হাত দেয়ার ঘটনায় দুই শিক্ষককে বরখাস্ত করেছে পরিচালনা কমিটি। বৃহস্পতিবার বিকেলে উপজেলার দেবরামপুর গ্রামের হাজি জালাল আহাম্মদ ইবতেদায়ি মাদরাসার পরিচালনা কমিটির জরুরি সভায় এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়।

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

মাদরাসার পরিচালনা কমিটির কোষাধ্যক্ষ মো. আইয়ুব আলী বলেন, দুই মাস আগে ওই মাদরাসার দুই ছাত্রীর শরীরে হাত দেয় সহকারী শিক্ষক আবদুর রহমান। বিষয়টি অভিভাবকরা প্রধান শিক্ষক হারুনুর রশীদকে জানালেও কোনো ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়নি।

নারী-পুরুষের যে কোনোা যৌন সমস্যার (যৌন দুর্বলতা, সন্তান না হওয়া, সহবাসে ব্যর্থতা, দ্রুত বীর্যপাত) সমাধানে ‘নাইট কিং’ ও ‘নাইট কিং গোল্ড’ কার্যকরী। বাংলাদেশের যে কোনো জেলা বা উপজেলায় কুরিয়ার সার্ভিসযোগে ‘নাইট কিং’ পেতে যোগাযোগ করুন : হাকীম মিজানুর রহমান, ইবনে সিনা হেলথ কেয়ার, যোগাযোগ করুন : (সকাল ১০টা থেকে রাত ০৮ টা (নামাজের সময় ব্যতীত) +88 01742057854, +88 01762240650, +88 01777988889
এছাড়াও শ্বেতী রোগ, ডায়াবেটিস, অশ্ব (গেজ, পাইলস, ফিস্টুলা), হার্টের ব্লকেজ, শ্বেতপ্রদর, রক্তপ্রদর ইত্যাদি রোগের চিকিৎসা দেয়া হয়।

বৃহস্পতিবার বিকেলে মাদরাসা প্রাঙ্গণে পরিচালনা কমিটির সভাপতি ইউপি সদস্য আহাম্মদ উল্যা, সহ-সভাপতি আবদুর রাজ্জাক, সাধারণ সম্পাদক আবদুল কুদ্দুছসহ এলাকার গণ্যমান্য ব্যক্তিরা সালিশ বৈঠকে বসেন। সেখানে অভিযুক্ত সহকারী শিক্ষক আবদুর রহমানের বিরুদ্ধে ঘটনার সত্যতা পাওয়া যায়। ফলে অভিযুক্ত শিক্ষককে বরখাস্ত করা হয়। পাশাপাশি প্রধান শিক্ষক হারুনুর রশীদকে কর্তব্যে অবহেলা করায় বরখাস্ত করা হয়েছে।

তবে সহকারী শিক্ষক আবদুর রহমান এ অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, বেত না থাকায় ওই ছাত্রীদের হাত দিয়ে মেরেছি। অন্য কোনো উদ্দেশ্যে তাদের গায়ে হাত দেয়া হয়নি।

এ বিষয়ে দাগনভূঞা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. সাইফুল ইসলাম ভূঁঞা বলেন, বিষয়টি সম্পর্কে আমি কিছুই জানি না।

প্রকাশিত : ০২ এপ্রিল ২০১৯ খ্রিস্টাব্দ, বৃহস্পতিবার : ০৪:২৩ পিএম

চাঁদপুর রিপোর্ট-এমআরআর

ফেসবুকে মন্তব্য করুন
119 জন পড়েছেন