মৌলভীবাজারের কুলাউড়ায় ভয়াবহ ট্রেন দুর্ঘটনায় নিহত ৬ : আহত দুই শতাধিক

চাঁদপুর রিপোর্ট ডেস্ক :

মৌলভীবাজারের কুলাউড়ায় ট্রেন দুর্ঘটনায় গুরুতর আহত ৯ জনকে সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে এবং এ পর্যন্ত ৬ জন নিহত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে।

রোববার রাত সাড়ে তিনটা পর্যন্ত ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে তাদের ভর্তি করা হয়। এদের মধ্যে ৭ জনের অবস্থা আশংকাজনক। এছাড়া দুর্ঘটনায় আহত অন্যদের মৌলভীবাজার সদর হাসপাতাল ও কুলাউড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেয়া হয়েছে।

নারী-পুরুষের যে কোনোা যৌন সমস্যার (যৌন দুর্বলতা, সন্তান না হওয়া, সহবাসে ব্যর্থতা, দ্রুত বীর্যপাত, মেহ-প্রমেহ) সমাধানে ‘নাইট কিং’ ও ‘নাইট কিং গোল্ড’ কার্যকরী। বাংলাদেশের যে কোনো জেলা বা উপজেলায় কুরিয়ার সার্ভিসযোগে ‘নাইট কিং’ পেতে যোগাযোগ করুন :
হাকীম মিজানুর রহমান
ইবনে সিনা হেলথ কেয়ার, যোগাযোগ করুন : (সকাল ১০টা থেকে রাত ০৮ টা (নামাজের সময় ব্যতীত) +88 01762240650, +88 01777988889
এছাড়াও শ্বেতী রোগ, ডায়াবেটিস, অশ্ব (গেজ, পাইলস, ফিস্টুলা), ব্লকেজ, শ্বেতপ্রদর, রক্তপ্রদর ইত্যাদি রোগের চিকিৎসা দেয়া হয়।

গুরুতর অবস্থায় রোগীদের হাসপাতালে ভর্তি হওয়ার খবর শুনে ছুটে আসেন ওসমানী হাসপাতালে বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক ও সিলেটের সিভল সার্জন হিমাংশু লাল রায়। তিনি বলেন, এ পর্যন্ত ৯ জনকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। তাদের চিকিৎসা চলছে। আহতদের চিকিৎসা সেবা দেয়ার জন্য আমরা প্রস্তুত। নার্স চিকিৎসক পর্যাপ্ত পরিমাণ আছেন।

তিনি বলেন, ওসমানী হাসপাতালে ভর্তি হওয়া নয়জনের মধ্যে দুজনের অবস্থা আশংকামুক্ত। বাকিদের অবস্থা গুরুতর। তাদের চিকিৎসা চলছে।

রোববার রাত ৩টার দিকে ৪৬-বিজিবি শ্রীমঙ্গলের সহকারী পরিচালক মোহাম্মদ শাহ জাহান আলীর নেতৃত্বে ৩০ জনের বিজিবি টিম ট্রেন দুর্ঘটনায় হতাহতদের উদ্ধার অভিযানে অংশ নেয়। শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত উদ্ধার অভিযান চালাচ্ছে বিজিবির সদস্যরা।

উদ্ধার অভিযানে অংশ নেয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করে ৪৬-বিজিবি শ্রীমঙ্গলের সহকারী পরিচালক মোহাম্মদ শাহ জাহান আলী বলেন, আমরা দুর্ঘটনার খবর শুনে পুলিশ ও দমকল বাহিনীর সদস্যদের সহযোগিতার জন্য ৩০-৪০ জনের একটি টিম উদ্ধার অভিযানে অংশ নিয়েছি। আহতদের উদ্ধার করে হাসপাতালে পাঠানো হচ্ছে।

এর আগে সিলেট ও মৌলভীবাজার দমকল বাহিনীর ১২টি ইউনিট উদ্ধারকাজে অংশ নেয়। তাদের সহযোগিতায় কাজ করছে রেলওয়ে ও পুলিশের একাধিক দল। ট্রেনের ছয়টি বগি নদীতে ছিটকে পড়ার ঘটনায় এ পর্যন্ত ৬ জনের লাশ উদ্ধারের কথা জানিয়েছে পুলিশ। এদের মধ্যে তিনজন নারী ও তিনজন পুরুষ। এ ঘটনায় আহত হয়েছে দুই শতাধিক যাত্রী।

রোববার রাত ১২টার দিকে কুলাউড়ার বরমচাল স্টেশনের পাশে বনশাইল নামক স্থানে সেতু ভেঙে সিলেট থেকে ঢাকাগামী উপবন এক্সপ্রেসের ৪টি বগি ছিটকে পড়ে। লাইনচ্যুত হয় আরও কয়েকটি বগি। রাতে সিলেট স্টেশন থেকে যাত্রী নিয়ে ঢাকার উদ্দেশে ওই ট্রেনটি ছেড়ে যায়।

কুলাউড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) উয়ারদৌস হাসান জানান, পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিস হতাহতদের উদ্ধারে কাজ করছে। ট্রেনের অন্য যাত্রীদেরও নিরাপদ স্থানে পৌঁছে দেয়ার কাজ করা হচ্ছে। ইতোমধ্যে উদ্ধার কাজে যোগ দিয়েছে বিজিবি।

মৌলভীবাজারের কুলাউড়ায় সেতু ভেঙে ভয়াবহ ট্রেন দুর্ঘটনায় হতাহতদের উদ্ধার কাজে দমকল বাহিনী ও পুলিশের পাশাপাশি বর্ডার গার্ড বাংলাদেশের (বিজিবি) সদস্যরাও যোগ দিয়েছে। রোববার রাত ৩টার দিকে ৪৬-বিজিবি শ্রীমঙ্গলের সহকারী পরিচালক মোহাম্মদ শাহ জাহান আলীর নেতৃত্বে ৩০ জনের বিজিবি টিম উদ্ধার অভিযানে অংশ নেয়।

রোববার রাত ১২টার দিকে কুলাউড়ার বরমচাল স্টেশনের পাশে সিলেট থেকে ঢাকাগামী উপবন এক্সপ্রেসের বগি ছিটকে পড়ে। শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত উদ্ধার অভিযান চালিয়ে যাচ্ছে বিজিবি সদস্যরা।

অভিযানে অংশ নেয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করে ৪৬-বিজিবি শ্রীমঙ্গলের সহকারী পরিচালক মোহাম্মদ শাহ জাহান আলী জাগো নিউজকে বলেন, আমরা দুর্ঘটনার খবর পেয়ে পুলিশ ও দমকল বাহিনীর সদস্যদের সহযোগিতার জন্য ৩০-৪০ জনের একটি টিম উদ্ধার অভিযানে অংশ নিয়েছি। আহতদের উদ্ধার করে বিভিন্ন হাসপাতালে পাঠানো হচ্ছে।

এর আগে সিলেট ও মৌলভীবাজার দমকল বাহিনীর ১২টি ইউনিট উদ্ধার কাজে অংশ নেয়। তাদের সহযোগিতায় কাজ করছে রেলওয়ে পুলিশ এবং বিজিবির একাধিক দল।

ট্রেনের ৬টি বগি নদীতে ছিটকে পড়ার ঘটনায় এ পর্যন্ত ৬ জনের মরদেহ উদ্ধারের কথা জানিয়েছে পুলিশ। আহত হয়েছে শতাধিক। রোববার রাত দুইটায় মৌলভীবাজার জেলার পুলিশ সুপার মো. শাহজালাল ঘটনাস্থল থেকে ৬ জনের মরদেহ উদ্ধারের তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

কুলাউড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) উয়ারদৌস হাসান জানান, পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিস হতাহতদের উদ্ধারে কাজ করছে। ট্রেনের অন্য যাত্রীদেরও নিরাপদ স্থানে পৌঁছে দেয়ার কাজ করা হচ্ছে। ইতোমধ্যে উদ্ধারকাজে বিজিবি অংশ নিয়েছে।

ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স সিলেটের সহকারী পরিচালক মুজিবুর রহমান বলেন, হতাহতদের উদ্ধার সিলেটের ফেঞ্চুগঞ্জ, দক্ষিণ সুরমা ও সিলেট সদর দফতর থেকে দমকল বাহিনীর একাধিক ইউনিট উদ্ধার তৎপরতায় যোগ দিয়েছে। উদ্ধার অভিযান চলছে।

কুলাউড়ায় ট্রেন দুর্ঘটনা: ৪ সদস্যের তদন্ত কমিটি

মৌলভীবাজারের কুলাউড়ায় আন্তঃনগর উপবন এক্সপ্রেস ট্রেন দুর্ঘটনায় চার সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করেছে রেলওয়ে কর্তৃপক্ষ।

সোমবার (২৪ জুন) সকাল সাড়ে ৯টার দিকে ঘটনাস্থল পরিদর্শন শেষে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন রেলপথ মন্ত্রণালয়ের সচিব মো. মোফাজ্জেল হোসেন।

তিনি জানান, রেলওয়ে পূর্বাঞ্চলের প্রধান যান্ত্রিক প্রকৌশলী মো. মিজানুর রহমানকে প্রধান করে চার সদস্যবিশিষ্ট এ তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। কমিটিকে তিনদিনের মধ্যে প্রতিবেদন দিতে বলা হয়েছে।

স্লিপারে ‘লুজ’ কানেকশন থেকেই ট্রেন দুর্ঘটনা

আন্তঃনগর উপবন এক্সপ্রেস। রাত ১০ টায় সিলেট থেকে ঢাকার উদ্দেশে ছাড়ে ট্রেনটি। প্রতিদিনের মতো রোববারও (২৩ জুন) রাতে সিলেট ছেড়ে যায় গন্তব্যের উদ্দেশে।

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার একটি সেতু ভেঙে পড়ায় ৫দিন ধরে বন্ধ সড়ক পথ। তাই রেলপথই ছিল মানুষের ভরসা। ফলে এদিন ট্রেনে ছিল যাত্রীদের ভিড়। আসন সংকট দেখা দেওয়াতে অসংখ্য যাত্রী দাঁড়িয়ে যেতে হয়।

সিলেট ছাড়ার পর পরবর্তী স্টেশন মাইজগাঁও বিরতি নিয়ে পারম্ভিক স্টেশন কুলাউড়া জংশনে থামার কথা ছিল ট্রেনটি।

পথে লোকাল স্টেশন বরমচাল ছেড়ে চা বাগান থেকে নেমে আসা মনছড়া রেল সেতু অতিক্রম করতে গিয়েই ঘটে দুর্ঘটনা। ১৭ বগি নিয়ে চলাচল করা উপবন এক্সপ্রেসের পেছনের অংশ লাইনচ্যুত হয়ে আছড়ে পড়ে সেতুর উপর।

টেনটির ভারে ভেঙে পড়ে মনছড়া রেল সেতু। দুর্ঘটনায় পেছনের গার্ডের ব্যবহৃত বগিটি ছড়ার পানিতে পড়ে যায়, ২টি জমিনে উল্টে যায় ও ৩টি বগি লাইনচ্যুত হয়। অন্যগুলো রেল লাইনের উপরেই থেকে যায়।

এতে ঘটনাস্থলে নারীসহ ৩ জন যাত্রী মারা যান। পরবর্তীতে নিহতের সংখ্যা দাঁড়ায় ৬ জনে। দুর্ঘটনায় আহত হয়েছেন দুই শতাধিক যাত্রী। স্থানীয়রা তাৎক্ষণিক আহতদের অনেককে উদ্ধার করে নিযে যান বিভিন্ন হাসপাতালে। খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিসের ১০টি ইউনিট ঘটনাস্থলে উদ্ধার কাজ শুরু করে। পাশাপাশি উদ্ধার কাজে ১০টি অ্যাম্বুলেন্সে ব্যবহার করে আহতদের কুলাউড়া স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সসহ আশপাশের বিভিন্ন হাসপাতালে নেওয়া হয়।

এমন ভয়াবহ দুর্ঘটনা কিভাবে ঘটলো? সে বিষয়টি নিয়ে জনমনে প্রশ্ন দেখা দিয়েছে। তবে সংশ্লিষ্টরা জানিয়েছেন, রেল ব্রিজটি অনেক পুরোনো। গাড়ি সেতু অতিক্রম করার সময় কোথাও স্লিপারে লুজ কানেকশন থাকার কারণে রেল সরে গিয়ে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক রেলওয়ে কুলাউড়ার উদ্ধারকারী দলের দুই সদস্য এমন তথ্য নিশ্চিত করেন।

তারা বলেন, ট্রেনের পেছনের দিক থেকে ৬ নম্বর বগিটি লাইনচ্যুত হতেই সংযোগস্থলের হুকগুলো ভেঙে একটি বগি অন্যগুলোকে ধাক্কা দিলে ভয়াবহ দুর্ঘটনা ঘটে। আর ট্রেনটির ভারে সেতুও বেঁকে গেছে। এ ঘটনার পর থেকে সিলেটের সঙ্গে রেল যোগাযোগ বন্ধ রয়েছে।

ভোর ৫টার দিকে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক উদ্ধারকারী দলের এক সদস্য জানান, রেলওয়ের শতাধিক কর্মী হতাহতদের উদ্ধারের পর ভোর ৫টা পর্যন্ত সামনের ৭টি বগি তারা উদ্ধার করেছেন। অন্য বগিগুলো উদ্ধারে সক্ষমতা তাদের নেই। তাই আখাউড়া থেকে উদ্ধারকারী ট্রেন আনা হবে।

ট্রেনের বগি লাইনচ্যুত হওয়ার বিষয়ে কুলাউড়া জিআরপি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবদুল মালেক  জানান, প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে স্লিপার সরে গিয়ে এ দুর্ঘটনা ঘটতে পারে।

ভোরেই ঘটনাস্থলে ছুটে যান রেল সচিব মোফাজ্জেল হোসাইন। তখন চার সদস্যের একটি তদন্ত কমিটি করা হয়।

মৌলভীবাজারের পুলিশ সুপার (এসপি) মো. শাহজালাল ঘটনাস্থলে থেকে বলেন, এখন পর্যন্ত ৬ মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে বলে জানতে পেরেছি। উদ্ধার কাজ এখনো চলছে।

ফায়ার সার্ভিসের কুলাউড়ার স্টেশন অফিসার (এসও) উপেন কুমার সিংহ বাংলানিউজকে বলেন, আমরা ঘটনাস্থল থেকে ৩ জনের মরদেহ উদ্ধার করেছি। আরেকজন কুলাউড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে মারা যান। তবে ছয় জন নিহতের খবর জানতে পেরেছেন তিনি।

কুলাউড়া স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে মেডিকেল অফিসার ডা. নূরুল হক জানান, এখন পর্যন্ত এ হাসপাতালে নারীসহ ৪ জনের মরদেহ আনা হয়েছে। আহতাবস্থায় ভর্তি রয়েছে আরও ৬০ জন।

সিলেটের এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের জরুরি বিভাগের কর্তব্যরত চিকিৎসক জানান, ট্রেন দুর্ঘটনায় আহতদের দু’জনকে তারা চিকিৎসা দিয়েছেন। এর মধ্যে একজন প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়েছেন, অন্যজন ভর্তি রয়েছেন।

এদিকে, দুর্ঘটনা পর সুযোগ সন্ধ্যানী কিছু লোক অন্ধকারের মধ্যে যাত্রীদের মালামাল চুরি করছে বলে দাবি করেছেন কুলাউড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) উয়ারদৌস হাসান। তাছাড়া দুর্ঘটনার পর উৎসুক জনতা উদ্ধারের পরিবর্তে ফেসবুক লাইভ করতে গিয়ে উদ্ধার কাজে ব্যাঘাত ঘটিয়েছেন। যে কারণে ফেসবুক লাইভকারীদের সরাতে পুলিশকে মাইকিং করতে হয়।

প্রকাশিত : ২৪ জুন ২০১৯ খ্রিস্টাব্দ, সোমবার

চাঁদপুর রিপোর্ট-এমআরআর

326 জন পড়েছেন

Recommended For You

অনুমতি ব্যতীত এই সাইটের কোনো সংবাদ, ছবি অন্য কোনো মাধ্যমে প্রকাশ আইনত দণ্ডনীয়