সমকামী পুরুষদের হত্যা করতে গিয়ে ছদ্মবেশী গোয়েন্দাদের ফাঁদে বাংলাদেশি

চাঁদপুর রিপোর্ট ডেস্ক :

যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্কের বিখ্যাত পর্যটন কেন্দ্র টাইমস স্কয়ারে হামলা পরিকল্পনার অভিযোগে বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত এক অভিবাসীকে গ্রেফতার করেছে দেশটির আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারীবাহিনী।

এই অভিবাসী জঙ্গিগোষ্ঠী ইসলামিক স্টেটের (আইএস) প্রতি সমর্থন জানিয়েছিল।

নারী-পুরুষের যে কোনোা যৌন সমস্যার (যৌন দুর্বলতা, সন্তান না হওয়া, সহবাসে ব্যর্থতা, দ্রুত বীর্যপাত, মেহ-প্রমেহ) সমাধানে ‘নাইট কিং’ ও ‘নাইট কিং গোল্ড’ কার্যকরী। বাংলাদেশের যে কোনো জেলা বা উপজেলায় কুরিয়ার সার্ভিসযোগে ‘নাইট কিং’ পেতে যোগাযোগ করুন :
হাকীম মিজানুর রহমান
ইবনে সিনা হেলথ কেয়ার, যোগাযোগ করুন : (সকাল ১০টা থেকে রাত ০৮ টা (নামাজের সময় ব্যতীত) +88 01762240650, +88 01777988889
এছাড়াও শ্বেতী রোগ, ডায়াবেটিস, অশ্ব (গেজ, পাইলস, ফিস্টুলা), ব্লকেজ, শ্বেতপ্রদর, রক্তপ্রদর ইত্যাদি রোগের চিকিৎসা দেয়া হয়।

শুক্রবার তার বিরুদ্ধে আনা অভিযোগে বলা হয়েছে, মার্কিন কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থার ছদ্মবেশি তদন্ত কর্মকর্তাদের কাছ থেকে সিরিয়াল নাম্বার মুছে ফেলা আগ্নেয়াস্ত্র কিনতে চেয়েছিলেন গ্রেফতারকৃত ২২ বছর বয়সী আশিকুল আলম। হামলার জন্য জনপ্রিয় ম্যানহাটনকে বেছে নেয়ার কথাও জানিয়েছিলেন তিনি।

হামলা চালানোর আগে লাসিক সার্জারি করারও পরিকল্পনা করেছিলেন আশিকুল; যাতে হামলার সময় তাকে চশমা পরতে না হয়। গত জানুয়ারিতে পেনসিলভানিয়ার একটি শুটিং স্পটে গিয়ে মার্কিন এক ছদ্মবেশি অ্যাজেন্টকে আশিকুল বলেন, আমি লড়াই করে মরতে চাই।

যুক্তরাষ্ট্রের গ্রিনকার্ডধারী আশিকুলকে বৃহস্পতিবার ব্রুকলিন থেকে গ্রেফতার করা হয়। হামলার জন্য কেনা দুটি গ্লোক-১৯ পিস্তল কেনার সময় গ্রেফতার করা হয় তাকে। আদালতে দাখিল করা অভিযোগ বলা হয়েছে, ম্যানহাটনের টাইম স্কয়ারে একাই হামলা চালাতে চেয়েছিলেন বাংলাদেশি এই অভিবাসী।

ওই হামলার জন্য মার্কিন গোয়েন্দা সংস্থার ছদ্মবেশি অ্যাজেন্ট আশিকুল আলমকে অ্যাসল্ট রাইফেল ও অন্যান্য অস্ত্র কেনায় সহায়তা করেছিল। আশিকুল বলেছেন, তিনি সমকামী পুরুষদের গুলি করে হত্যা করতে চেয়েছিলেন।

সূত্র : এএফপি, রয়টার্স।

প্রকাশিত : ০৮ জুন ২০১৯ খ্রিস্টাব্দ, শনিবার : ০২:০৪ পিএম

চাঁদপুর রিপোর্ট-এমআরআর

269 জন পড়েছেন

Recommended For You

অনুমতি ব্যতীত এই সাইটের কোনো সংবাদ, ছবি অন্য কোনো মাধ্যমে প্রকাশ আইনত দণ্ডনীয়