চাঁদপুরে মাদক কারবারীদের হামলায় বাবা-ছেলে আহত

শিক্ষা প্রতিষ্ঠান প্রাঙ্গণে মাদকের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করায়

0
75

স্টাফ রিপোটার :
চাঁদপুর সদর উপজেলার ৪নং শাহমাহমুদপুর ইউনিয়নের শিক্ষা প্রতিষ্ঠান প্রাঙ্গণে মাদক সেবনে বাধা দেওয়ায় বাবা ও ছেলেকে কুপিয়ে রক্তাক্ত জখম করেছে এলাকার চিহ্নিত মাদক কারবারী ও একদল বখাটে যুবক।

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

এ ঘটনায় তাৎক্ষণিক এলাকাবাসী একত্রিত হয়ে মাদক কারবারীদেরকে ধাওয়া দিয়ে তাদের উপর পাল্টা আক্রমণ করে।

ডায়াবেটিস প্রতিরোধ ও প্রতিকারে সম্পূর্ণ পার্শ্বপ্রতিক্রিয়ামুক্ত ভেষজ ঔষধ পেতে যোগাযাগ করুন- হাকীম মিজানুর রহমান : 0162-240650, 01777988889, ইবনে সিনা হেলথ কেয়ার, চাঁদপুর। যোগাযোগ : সকাল দশটা হতে রাত দশটা। নামাজের সময় ব্যতীত। এছাড়াও যৌন সমস্যা, শ্বেতী রোগ, ডায়াবেটিস, অশ্ব (গেজ, পাইলস, ফিস্টুলা), হার্টের ব্লকেজ, শ্বেতপ্রদর, রক্তপ্রদর ইত্যাদি রোগের চিকিৎসা দেয়া হয়।

ঘটনার বিবরনে জানা যায়, গত বৃহষ্পতিবার (৬ জুন) পবিত্র ঈদুল ফিতরের পরের দিন দুপুর ২টার সময় ৪নং শাহমাহমুদপুর ইউনিয়নের ঐতিহ্যবাহী শিক্ষা প্রতিষ্ঠান মহামায়া হানাফিয়া উচ্চ বিদ্যালয়ের মাঠে এলাকার কিছু চিহ্নিত মাদক কারবারী ও বখাটেরা প্রকাশ্যে মাদক সেবনকালে বিদ্যালয়ের পেছনে পাটওয়ারী বাড়ীর মোঃ আক্তারুজ্জামান পাটওয়ারীর বড় ছেলে মোঃ নুরুজ্জামান পলাশ বাড়ী থেকে বিদ্যালয় মাঠের উপর দিয়ে আসার সময় এমন পরিস্থিতি দেখে বাঁধা দিলে বখাটেরা গালমন্দ করে চলে যায়।

এর এক ঘন্টা পর দুপুর ৩টার সময় মাদক কারবারীরা দেশীয় ও চাইনিজ অস্ত্র নিয়ে একদল মাদক কারবারী ও বখাটেরা নুরুজ্জামান পলাশের উপর আক্রমন করে কুপিয়ে রক্তাক্ত জখম করে। এসময় নুরুজ্জামান পলাশের ডাক চিৎকারে তার বাবা মোঃ আক্তারুজ্জামান পাটওয়ারী এগিয়ে এলে তাকেও লাঠি এবং লোহার রড দিয়ে পিটিয়ে শরীরের বিভিন্ন স্থানে মারাত্মক জখম করেছে। পরিস্থিতি ভয়াবহ দেখে এলাকাবাসী একত্রিত হয়ে সন্ত্রাসীদের উপর পাল্টা আক্রমন করে দু’জনকে পিটিয়ে আহত করে।

এসময় স্থানীয়রা চাঁদপুর মডেল থানায় খবর দিলে এসআই সাদেকুর রহমান সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে ঘটনাস্থলে এসে তাদের কাছ থেকে অস্ত্র উদ্ধার করে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনেন। আহতদের দ্রæত উদ্ধার করে ২৫০ শয্যা চাঁদপুর সদর হাসপাতালে ভর্তি করান। কর্তব্যরত চিকিৎসক আহতদের প্রাথমিক শেষে নুরুজ্জামান পলাশের অবস্থা অবনতি দেখে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রেফার করেন এবং তার পিতা আক্তারুজ্জামান পাটওয়ারী চাঁদপুর সদর হাসপাতালে ভর্তি রয়েছেন।

এ ঘটনায় আক্তারুজ্জামান পাটওয়ারীর ছোট ভাই ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাবেক সাধারন সম্পাদক মোঃ সামছুজ্জামান পাটওয়ারী বাদী হয়ে চাঁদপুর সদর উপজেলার ৪নং শাহমাহমুদপুর ইউনিয়নের ৭নং ওয়ার্ড লোধেরগাঁও গ্রামের এমদাদ বেপারীর ছেলে রিয়াজ বেপারী, ছাদেক বেপারীর ছেলে টুটুল বেপারী, একই এলাকার মেহেদী বেপারী, মিজান মিজির ছেলে রাজু মিজি, আক্তার মিয়ার ছেলে এমরান মিয়া সহ অজ্ঞাত আরো ১০ জনকে আসামী করে চাঁদপুর সদর মডেল থানায় মামলা দায়ের করেন। মামলা নং-১৪, তারিখ ০৭/০৬/১৯ইং।

এলাকাবাসী চাঁদপুর সদর মডেল থানাকে অবহিত করলে অফিসার ইনচার্জ মোঃ নাসিম উদ্দিন এর নির্দেশে ঘটনাস্থল পরিদর্শনকারী কর্মকর্তা এসআই সাদেকুর রহমান জানান, আমি সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ এনে আসামীদের বাড়ী তল্লাশী করার সময় ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সাধারন সম্পাদক মেহেদী হাসান বেপারী রাজনৈতিকভাবে প্রভাব খাটানোর চেষ্টা করেন। চাঁদপুর সদর মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ নাসিম উদ্দিন জানান, মাদকের বিরুদ্ধে পুলিশ কঠোর স্বোচ্ছার। তারই ধারাবাহিকতায় মহামায়া হানাফিয়া উচ্চ বিদ্যালয় প্রাঙ্গণের এমন ঘটনায় তাৎক্ষনিক রেড এলার্ট জারি করা হয়েছে এবং আসামীদের গ্রেফতারের জন্য পুলিশি প্রদক্ষেপ অব্যাহত রয়েছে।

এলাকাবাসীর সাথে কথা বলে জানা যায়, এ ইউনিয়নের কিছু চিহ্নিত মাদক কারবারীরা অত্র এলাকার তরুন ও যুব সমাজকে ধ্বংসের পথে নিয়ে যাচ্ছে। অবিলম্বে এসব মাদক কারবারী ও সন্ত্রাসীদের দ্রæত গ্রেফতার করে আইনের আওতায় এনে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি করেন এবং উঠতি বয়সের ছেলেদের সুপথে আনতে সকলের সহযোগিতা কামনা করেন। সেই সাথে বাংলাদেশ পুলিশের মহাপরিদর্শক (আইজিপি) ড. মোহাম্মদ জাবেদ পাটোয়ারীর নিজ ইউনিয়ন হিসেবে মাদকের বিরুদ্ধে জিরো ট্লারেন্স ঘোষণা করতে পুলিশ প্রশাসনের জোরালো ভূমিকা গুরুত্বপূর্ণ।

 

প্রকাশিত : ০৯ জুন ২০১৯ খ্রিস্টাব্দ, রোববার

চাঁদপুর রিপোর্ট-এমআরআর

ফেসবুকে মন্তব্য করুন
127 জন পড়েছেন