হিন্দু হয়েও মুসলিম সেজে প্রতারণার দায়ে প্রেমিকের ঠাঁই হলো কারাগারে

0
46

চাঁদপুর রিপোর্ট ডেস্ক :
রং নাম্বারে পরিচয়। ৬ মাস ধরে প্রেম। ঈদ আনন্দে দেখাদেখি। দু’জনে বাড়ি থেকে বেরিয়ে আশ্রয় নেয় আবাসিক হোটেলে।

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

৩দিন পর জামাই আদরে প্রেমিকার বাড়িতে হাজির। তারপর হিন্দু হয়েও মুসলিম সেজে প্রতারণার দায়ে প্রেমিকের ঠাঁই হলো কারাগারে। এটি কোনো শর্ট ফিল্ম কিংবা চলচ্চিত্রের দৃশ্য নয়। এমন ঘটনা ঘটেছে চাঁদপুরের হাজীগঞ্জ উপজেলার বেলঘর গ্রামে। প্রেমিক এখন চাঁদপুর জেলহাজতে।

নারী-পুরুষের যে কোনোা যৌন সমস্যার (যৌন দুর্বলতা, সন্তান না হওয়া, সহবাসে ব্যর্থতা, দ্রুত বীর্যপাত, মেহ-প্রমেহ) সমাধানে ‘নাইট কিং’ ও ‘নাইট কিং গোল্ড’ কার্যকরী। বাংলাদেশের যে কোনো জেলা বা উপজেলায় কুরিয়ার সার্ভিসযোগে ‘নাইট কিং’ পেতে যোগাযোগ করুন :
হাকীম মিজানুর রহমান
ইবনে সিনা হেলথ কেয়ার, যোগাযোগ করুন : (সকাল ১০টা থেকে রাত ০৮ টা (নামাজের সময় ব্যতীত) +88 01762240650, +88 01777988889
এছাড়াও শ্বেতী রোগ, ডায়াবেটিস, অশ্ব (গেজ, পাইলস, ফিস্টুলা), ব্লকেজ, শ্বেতপ্রদর, রক্তপ্রদর ইত্যাদি রোগের চিকিৎসা দেয়া হয়।

সোমবার (১০ জুন) সকালে হাজীগঞ্জ থানা থেকে ওই প্রেমিককে ধর্ষণ ও প্রতারণার মামলায় চাঁদপুর আদালতে পাঠানো হয়েছে। আদালত তাকে জেল হাজতে পাঠিয়েছে।

হাজীগঞ্জ থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. আলমগীর হোসেন রনি বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, মুসলিম সেজে প্রেমের অভিনয় করা এবং আবাসিক হোটেলে থাকার দায়ে এটি ধর্ষণ ও প্রতারণা মামলা হিসেবে নেয়া হয়েছে।

রোববার ঘটনাটি জানাজানি হলে প্রেমিকার মা-বাবা থানা পুলিশের আশ্রয় নেয়। ওই রাতেই প্রেমিক ও প্রেমিকাকে আটক করে পুলিশ।

প্রতারক প্রেমিকের নাম পলাশ চন্দ্র দেবনাথ। সে কচুয়া উপজেলার চাঙ্গিনী গ্রামের শুকুমার রঞ্জন দেবনাথের ছেলে। এদিকে ১৯ বছর বয়সী ওই প্রেমিকা হাজীগঞ্জ উপজেলার বেলঘর বেপারি বাড়ির মজিবুর রহমানের মেয়ে।

প্রেমিকা বলেন, সে হিন্দু। সে তার পরিচয় গোপন করে আমার সঙ্গে প্রেমের অভিনয় করেছে। প্রতারণা করে সে আমকে ধর্ষণ করেছে।

প্রকাশিত : ১০ জুন ২০১৯ খ্রিস্টাব্দ, সোমবার

চাঁদপুর রিপোর্ট-এমআরআর

ফেসবুকে মন্তব্য করুন
123 জন পড়েছেন