প্রেম করে বিয়ে : ফরিদগঞ্জে ব্যবসায়ীকে হয়রানির অভিযোগ

0
65

ফরিদগঞ্জ প্রতিনিধি:
প্রেম করে বিয়ে পরে এনিয়ে পরবর্তীতে সৃষ্ট ঘটনায় জড়িয়ে মিথ্যা মামলা দিয়ে ফরিদগঞ্জে এক ব্যবসায়ীকে হয়রানির অভিযোগ উঠেছে।

ওই মামলায় তাকে এখন আদালতে নিয়মিত হাজিরা দিতে হচ্ছে। এই ব্যবসায়ী উপজেলা সদরের আঁিখ এন্টার প্রাইজের মালিক নাম এম টুটুল পাটওয়ারী।

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

তিনি জানান, ‘তার ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে কর্মরত ফারুকুল ইসলামের ছেলে রিফাতুল ইসলামের সাথে তাঁর বাড়ির মৃত ছৈয়দ আহাম্মদের মেয়ে চায়না আক্তারের সাথে প্রণয় ঘটিত সর্ম্পকের জের ধরে বিয়ে হয়।

নারী-পুরুষের যে কোনোা যৌন সমস্যার (যৌন দুর্বলতা, সন্তান না হওয়া, সহবাসে ব্যর্থতা, দ্রুত বীর্যপাত, মেহ-প্রমেহ) সমাধানে ‘নাইট কিং’ ও ‘নাইট কিং গোল্ড’ কার্যকরী। বাংলাদেশের যে কোনো জেলা বা উপজেলায় কুরিয়ার সার্ভিসযোগে ‘নাইট কিং’ পেতে যোগাযোগ করুন :
হাকীম মিজানুর রহমান
ইবনে সিনা হেলথ কেয়ার, যোগাযোগ করুন : (সকাল ১০টা থেকে রাত ০৮ টা (নামাজের সময় ব্যতীত) +88 01762240650, +88 01777988889
এছাড়াও শ্বেতী রোগ, ডায়াবেটিস, অশ্ব (গেজ, পাইলস, ফিস্টুলা), ব্লকেজ, শ্বেতপ্রদর, রক্তপ্রদর ইত্যাদি রোগের চিকিৎসা দেয়া হয়।

পরবর্তীতে তাদের মধ্যে সৃষ্ট ঝামেলার এক পর্যায়ে রিফাতুল ইসলাম রিমন নিরুদ্দেশ হয়। বিষয়টি নিয়ে উভয় পরিবারের মধ্যে দ্বন্ধের সৃষ্টি হয়। এক পক্ষ আমার দোকানের কর্মচারীর ছেলে এবং অপর পক্ষ আমার বাড়ির লোকজন। আমি চেষ্টা করেছিলাম বিষয়টি মিমাংসার।

কিন্তু পরবর্তীতে তা আর হয়নি। এরই মধ্যে আমার কর্মচারী ফারুকুল ইসলাম আমার হিসাব না বুঝিয়ে দিয়ে কাজ ছেড়ে দেয়। যার কারণে আমি আর্থিক ভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হই। এমনকি তাদের দুই পরিবারের মধ্যে সৃষ্ট ঘটনাকে কেন্দ্র করে আদালতে দায়েরকৃত মামলায়ও আমাকে আসামী করা হয়।

সর্বশেষ গত ১৩ জুন চায়না আক্তার ফরিদগঞ্জ প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে দুই পক্ষের মধ্যকার সৃষ্ট সমস্যার বিষয়টি নিশ্চিত করে। ফলে আমি কোন প্রকার ঘটনার সাথে যুক্ত না থাকলে অযথা হয়রানি করার জন্য আমাকে মামলায় ফাঁসানো হয়েছে ’।

 

প্রকাশিত : ১৪ জুন ২০১৯ খ্রিস্টাব্দ, শুক্রবার

চাঁদপুর রিপোর্ট-এমআরআর

ফেসবুকে মন্তব্য করুন
95 জন পড়েছেন