নদী ভাঙন ও জলাবদ্ধতা রোধে আগাম ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে

মেঘনা-ধনাগোদা বেড়িবাঁধ পরিদর্শনকালে পানি সম্পদ উপমন্ত্রী একেএম এনামুল হক শামীম

0
47

সফিকুল ইসলাম রানা :
বছর সারা দেশে নদী ভাঙন ও জলাবদ্ধতা রোধে আগাম ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন পানি সম্পদ মন্ত্রণালয়ের উপমন্ত্রী এ কে এম এনামুল হক শামীম।

শনিবার (১৫ জুন) চাঁদপুর-২ আসনের সংসদ সদস্য এডভোকেট আলহাজ¦ নুরুল আমিন রুহুল এর আমন্ত্রণে মতলব উত্তরে আসেন উপমন্ত্রী একেএম এনামুল হক শামীম।

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

মতলব উত্তরে মেঘনা-ধনাগোদা সেচ প্রকল্প ও নদী শাসন প্রকল্পের প্রস্তাবিত বিভিন্ন প্রকল্প পরিদর্শনকালে জবাবে তিনি এসব কথা বলেন।

ডায়াবেটিস প্রতিরোধ ও প্রতিকারে সম্পূর্ণ পার্শ্বপ্রতিক্রিয়ামুক্ত ভেষজ ঔষধ পেতে যোগাযাগ করুন- হাকীম মিজানুর রহমান : 0162-240650, 01777988889, ইবনে সিনা হেলথ কেয়ার, চাঁদপুর। যোগাযোগ : সকাল দশটা হতে রাত দশটা। নামাজের সময় ব্যতীত। এছাড়াও যৌন সমস্যা, শ্বেতী রোগ, ডায়াবেটিস, অশ্ব (গেজ, পাইলস, ফিস্টুলা), হার্টের ব্লকেজ, শ্বেতপ্রদর, রক্তপ্রদর ইত্যাদি রোগের চিকিৎসা দেয়া হয়।

মন্ত্রী আরো বলেন, বর্ষা ও বন্যাকে সামনে রেখে সারাদেশে ৬৫টি এলাকা চিহ্নিত করা হয়েছে। ইতোমধ্যে ২২টি নদী ভাঙন কবলিত এলাকা পরিদর্শন করা হয়েছে। যেসব এলাকায় নদী ভাঙন প্রবণ সেসব এলাকায় কর্মকর্তাও সংখ্যাও বাড়ানো হয়েছে।

মতলব উত্তরের ধনাগোদা সেচ প্রকল্প, নদী ও খাল ড্রেজিংসহ প্রায় ৭শ’ কোটি টাকা ডিপিপি কাজ প্রকল্পও পরিদর্শন করেন মন্ত্রী।

পানি সম্পদ উপমন্ত্রী একেএম এনামুল হক শামীম বলেছেন, দেশের বৃৃহত্তম মেঘনা ধনাগোদা বেড়ি বাঁধ রক্ষা করার জন্য মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃৃত্বে আমরা কাজ করে যাচ্ছি। নদী শাসন করতে যা যা করা প্রয়োজন এই সরকার তা করবে। এই সরকারের উপর আস্থা রাখতে মতলববাসীর প্রতি আহবান জানান মন্ত্রী। মন্ত্রী প্রতিরক্ষা বেড়িবাঁধের করুন অবস্থা দেখেন এবং স্থানীয় দূর্গত জনসাধারণের সাথে কথা বলেন। শীঘ্র্র্রই বেড়িবাঁধ উন্নয়নের কাজ শুরু হবে বলে আশ্বস্থ করেন। এ সময় মন্ত্রী বলেন, মতলবের মানুষের দূর্ভোগ আমি বুঝতে পেরেছি। ক্ষতিগ্রস্থ বেড়িবাঁধে প্রয়োজনে সেখানে জিওটেক ও পাথর দিয়ে সাময়িক কাজ করার নির্দেশ দেন। সকাল থেকে বিরতিহীন ভাবে ক্ষতিগ্রস্থ একাধিকস্থান পরিদর্শন করেন।

উপজেলা আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠনের আয়োজনে এখলাছপুর নয়াকান্দি বেড়ি বাঁধ সংলগ্ন মেঘনা নদীর পাড় ও কালীপুর পাম্প হাউজ মাঠে জনসভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন- পানি সম্পদ উপমন্ত্রী একেএম এনামুল হক শামীম।

বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন- চাঁদপুর-২ আসনের সংসদ সদস্য এডভোকেট আলহাজ¦ নুরুল আমিন রুহুল।

উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি এডভোকেট রুহুল আমিনের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক এবং উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা এমএ কুদ্দুসের সঞ্চালনায় সভায় উপস্থিত ছিলেন- পরিকল্পনা কমিশনের সদস্য ড. সামছুল আলম মোহন, পানি উন্নয়ন বোর্ডের অতিরিক্ত মহাপরিচালক একেএম শামসুল করীম, চাঁদপুরের জেলা প্রশাসক মো. মাজেদুর রহমান খান, চাঁদপুর পানি উন্নয়ন বোর্ডের তত্ত¡াবধায়ক প্রকৌশলী মো. রফিকুল্লাহ, মতলব উত্তর দক্ষিণ উপজেলা নির্বাহী অফিসার শাহিদুল ইসলাম, মতলব উত্তর উপজেলা নির্বাহী অফিসার শারমিন আক্তার, চাঁদপুরের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) জাহেদ পারভেজ চৌধুরী, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান মোতাহার হোসেন খান, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান শাহিনা আক্তার, শিল্পপতি এম. ইসফাক আহসান, আ’লীগ নেতা শিল্পপতি কাজী মিজানুর রহমান, গাজী মুক্তার হোসেন, উপজেলা যুবলীগের সভাপতি দেওয়ান জহির, সাধারণ সম্পাদক কাজী শরীফ, কৃষকলীগের সাধারণ সম্পাদক জিএম ফারুক, জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি এডভোকেট জসিম উদ্দিন পাটোয়ারী, জেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক পারভেজ করীম বাবু, ছাত্রলীগের সাবেক আহŸায়ক এডভোকেট মহসিন মিয়া মানিক, সাবেক যুগ্ম আহŸায়ক এডভোকেট জসিম উদ্দিন, জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সহ-সভাপতি এডভোকেট সেলিম মিয়া, জহিরুল ইসলাম চৌধুরী’সহ আওয়ামী লীগ অঙ্গ সংগঠন নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

প্রকাশিত : ১৫ জুন ২০১৯ খ্রিস্টাব্দ, শনিবার

চাঁদপুর রিপোর্ট-এমআরআর

ফেসবুকে মন্তব্য করুন
127 জন পড়েছেন