জানালার ফাঁক দিয়ে প্রবাসীর স্ত্রীর পোশাক বদলের ভিডিওধারণ : আটক ২

0
239

চাঁদপুর রিপোর্ট ডেস্ক :

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

পর্নোগ্রাফি মামলায় দুজনকে গ্রেফতার করেছে দোহার থানার পুলিশ। তারা হলেন মো. আব্দুস সালাম (৩৫) ও মাসুদ রানা (৩২)।

তারা দোহারের লটাখোলা বিলেরপাড় এলাকায় গোপনে গৃহবধূর পোশাক বদলের ভিডিওধারণ করে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে দেয়ার হুমকি দিয়ে ৫ লাখ টাকা চাঁদা দাবি করে আসছিল।

নারী-পুরুষের যে কোনোা যৌন সমস্যার (যৌন দুর্বলতা, সন্তান না হওয়া, সহবাসে ব্যর্থতা, দ্রুত বীর্যপাত, মেহ-প্রমেহ) সমাধানে ‘নাইট কিং’ ও ‘নাইট কিং গোল্ড’ কার্যকরী। বাংলাদেশের যে কোনো জেলা বা উপজেলায় কুরিয়ার সার্ভিসযোগে ‘নাইট কিং’ পেতে যোগাযোগ করুন :
হাকীম মিজানুর রহমান
ইবনে সিনা হেলথ কেয়ার, যোগাযোগ করুন : (সকাল ১০টা থেকে রাত ০৮ টা (নামাজের সময় ব্যতীত) +88 01762240650, +88 01777988889
এছাড়াও শ্বেতী রোগ, ডায়াবেটিস, অশ্ব (গেজ, পাইলস, ফিস্টুলা), ব্লকেজ, শ্বেতপ্রদর, রক্তপ্রদর ইত্যাদি রোগের চিকিৎসা দেয়া হয়।

পুলিশ জানায়, লটাখোলা বিলেরপাড় এলাকায় গত ২৭ মে রাতে এক দুবাই প্রবাসীর স্ত্রী (নাম গোপন রাখা হলো) ঘরে পোশাক পরিবর্তন করার সময় জানালার ফাঁক দিয়ে ভিডিওধারণ করে একই এলাকার সালাম, মাসুদ রানা, কাউছারসহ আরও দু-তিনজন। এরপর ২৯ মে বিকেলে তারা ওই গৃহবধূর বাসায় গিয়ে নগ্ন ভিডিও ও ছবি প্রদর্শন করে। এসময় তারা ইন্টারনেটের মাধ্যমে ভাইরাল করে দেবে বলে ভয়ভীতি দেখিয়ে ৫ লাখ টাকা চাঁদা দাবি করে। সম্ভ্রম বাঁচাতে ওই গৃহবধূ ঘরে থাকা ২০ হাজার টাকা তাদের দেয়।

উপায় না পেয়ে তিনি বিষয়টি দোহার থানায় তিনজনের নাম উল্লেখ করে অজ্ঞাত দু-তিনজনের বিরুদ্ধে অভিযোগ করেন। এরপর দোহার থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সাজ্জাদ হোসেন গৃহবধূকে চাঁদা দেয়ার জন্য রাজি হতে বলে ফাঁদ পাতেন। সেই ফাঁদে ধরা খায় আসামিরা।

গত ১৪ জুন সন্ধ্যা ৭টার দিকে পুনরায় তারা ওই গৃহবধূর বাড়িতে গিয়ে ভয়ভীতি দেখিয়ে চাঁদা দাবি করলে স্থানীয়দের সহায়তায় পুলিশ দুজনকে হাতে নাতে ধরে।

এ বিষয়ে সাজ্জাদ হোসেন সত্যতা স্বীকার করে বলেন, তাদের কাছ থেকে ওই নারীর ভিডিওসহ মোবাইল উদ্ধার করে সোমবার জেলহাজতে পাঠানো হয়েছে।

প্রকাশিত : ১৭ জুন ২০১৯ খ্রিস্টাব্দ, সোমবার

চাঁদপুর রিপোর্ট-এমআরআর

ফেসবুকে মন্তব্য করুন
235 জন পড়েছেন