omor

শাহরাস্তিতে শিশু শিক্ষার্থীকে যৌন নির্যাতনে শিক্ষক জেলে

শাহরাস্তি প্রতিনিধিঃ
শাহরাস্তিতে পঞ্চম শ্রেণীতে পড়ুয়া এক শিক্ষার্থীকে প্রাইভেট পড়ানোর নামে যৌন নিপীড়নের দায়ে এক সপ্রাবির শিক্ষককে আটক করেছে পুলিশ। অভিযুক্ত শিক্ষককে বৃহস্পতিবার চাঁদপুর জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়। উপজেলার চিতোষী পূর্ব ইউপির চিতোষী বাজারস্থ ইয়াসিন মার্কেটে এ ঘটনা ঘটে।

ক্ষতিগ্রস্ত শিশুর পরিবারও স্থানীয় সূত্র জানায়, ওই দিন শিশুটির মা তার নানার বাড়ি ও পিতা জীবিকার প্রয়োজনে সিএনজি চালিত অটো রিকশা চালাতে যায়। শিশুটি প্রতিদিনের ন্যায় তার বিদ্যালয়ের পড়া শেষ করে রায়শ্রী দক্ষিণ ইউপির শিবপুর গ্রামের হাজী বাড়ির নেছার আহমেদ পুত্র ও চিতোষী সপ্রাবির শিক্ষক ওমর ফারুকের (৩৩) নিকট প্রাইভেট পড়তে যায়। ওই সময় শিক্ষক ওমর ফারুক তার সঙ্গে থাকা চার বান্ধবীকে ছুটি দিয়ে শিশুটিকে থাকতে বলে।

সেও শিক্ষকের কথা মতো থেকে যায়, পরে সবাইর অনুপস্থিতি নিশ্চিত হয়ে শিক্ষক শিশুটির বিভিন্ন স্পর্শকাতর স্থানে চাপ ও হাতিয়ে তাকে যৌন নির্যাতন চালায়। এতে শিশুটি কিংকর্তব্যবিমূঢ় হয়ে যায়। পরে দিন বিদ্যালয়ে গিয়ে তার দুই বান্ধবীকে বিষয়টি খুলে বললে তারা ঐ রাতে তার পিতা কে ঘটনাটি জানায়। ওই ঘটনার ক্ষোভে দুঃখে শিশুর স্বজনরা থানায় এসে তার পিতা বাদী হয়ে অভিযুক্ত শিক্ষককে দায়ী করে শিশু ও নারী নির্যাতন আইনে মামলা দায়ের করে।

পরে পুলিশ অভিযুক্ত শিক্ষককে আটক করে চাঁদপুর জেল হাজতে প্রেরণ করে।

এবিষয়ে জানতে শাহরাস্তি প্রাথমিক কর্মকর্তা সিরাজুল ইসলামকে ফোন দিলে তাকে পাওয়া যায়নি। এছাড়া বিভিন্ন শ্রেনীর পেশার ব্যাক্তিরা বলছেন, অত্র প্রাথমিক বিদ্যালয় গুলোতে সংশ্লিষ্ট পরিদর্শকরা তদারকি না করে অন্য কাজে ব্যাস্ত থাকেন বেশি। সে জন্য সপ্রাবি গুলোতে ইদানিং অনিয়ম ও শিক্ষকের অনৈতিক কর্মকান্ডে জড়িয়ে যাওয়ার প্রবণতা বাড়ছে।

শাহারাস্তি থানার অফিসার ইনচার্জ শাহ আলম (এলএলবি) জানান, বিষয়টি আইনি প্রক্রিয়ায় অগ্রসর হবে।

প্রকাশিত : ০৬ জুলাই ২০১৯ খ্রিস্টাব্দ, শনিবার

চাঁদপুর রিপোর্ট-এমআরআর

 47 সর্বমোট পড়েছেন,  1 আজ পড়েছেন

শেয়ার করুন