স্বামীকে পিটিয়ে গৃহবধূকে তুলে নিয়ে গণধর্ষণ

0
427

 

জেলা প্রতিনিধি নেত্রকোনা

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

আত্মীয়ের বাড়িতে বেড়াতে গিয়ে গণধর্ষণের শিকার হয়েছেন এক গৃহবধূ।

এ ঘটনায় তিনজনকে আটক করেছে পুলিশ।ঘটনাটি ঘটেছে নেত্রকোনা সদর উপজেলার মদনপুর ইউনিয়নের পশ্চিম মদনপুর গ্রামে।

স্থানীয় সূত্র ও নির্যাতিত গৃহবধূর স্বামী জানান, ময়মনসিংহের গৌরীপুর উপজেলার কান্দার গ্রামের জনৈক ব্যক্তি স্ত্রীকে নিয়ে বৃহস্পতিবার নেত্রকোনা সদর উপজেলার পশ্চিম মদনপুর গ্রামে আত্মীয়ের বাড়িতে বেড়াতে আসেন।

নারী-পুরুষের যে কোনোা যৌন সমস্যার (যৌন দুর্বলতা, সন্তান না হওয়া, সহবাসে ব্যর্থতা, দ্রুত বীর্যপাত, মেহ-প্রমেহ) সমাধানে ‘নাইট কিং’ ও ‘নাইট কিং গোল্ড’ কার্যকরী। বাংলাদেশের যে কোনো জেলা বা উপজেলায় কুরিয়ার সার্ভিসযোগে ‘নাইট কিং’ পেতে যোগাযোগ করুন :
হাকীম মিজানুর রহমান
ইবনে সিনা হেলথ কেয়ার, যোগাযোগ করুন : (সকাল ১০টা থেকে রাত ০৮ টা (নামাজের সময় ব্যতীত) 01762240650, 01834880825
এছাড়াও শ্বেতী রোগ, ডায়াবেটিস, অশ্ব (গেজ, পাইলস, ফিস্টুলা), ব্লকেজ, শ্বেতপ্রদর, রক্তপ্রদর ইত্যাদি রোগের চিকিৎসা দেয়া হয়।

বৃহস্পতিবার গভীর রাতে পশ্চিম মদনপুর গ্রামের মৃত ফুলু মেম্বারের ছেলে সাব্বির হোসেন (২০), আবুল মিয়ার ছেলে আকাশ মিয়া (১৮), মঞ্জিল মিয়ার ছেলে জিপন মিয়া (২০), মিরাজ আলীর ছেলে ফরিদ মিয়া (১৯), আবদুস সালামের ছেলে সালমান (১৮), মৃত আনহর আলীর ছেলে আসাদুল হক (২০), জামাল মিয়ার ছেলে জহিরুল ইসলামসহ (২০) ৮-১০ জন যুবক ওই বাড়িতে হামলা চালায়।

এ সময় স্বামীকে বেধড়ক পিটিয়ে আহত করে গৃহবধূকে তুলে নিয়ে গ্রামের একটি জঙ্গলে পালাক্রমে ধর্ষণ করে তারা। শুক্রবার সকালে গুরুতর অবস্থায় গৃহবধূকে উদ্ধার করে নেত্রকোনা আধুনিক সদর হাসপাতালে ভর্তি করেন স্বজনেরা।

খবর পেয়ে গণধর্ষণে জড়িত সালমান, আকাশ ও রফিকুল ইসলামকে আটক করেছে পুলিশ। সেই সঙ্গে শনিবার ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন নেত্রকোনার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) মুহাম্মদ ফখরুজ্জামান জুয়েল।

নেত্রকোনা মডেল থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. তাজুল ইসলাম খান বলেন, গৃহবধূকে গণধর্ষণের ঘটনায় জড়িত তিনজনকে আটক করা হয়েছে। বিষয়টি তদন্ত করে দেখা হচ্ছে। মামলার প্রস্তুতি চলছে।

প্রকাশিত: ০৫:৪২ পিএম, ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৯

ফেসবুকে মন্তব্য করুন
178 জন পড়েছেন